ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ০৩ অক্টোবর ২০২২, ১৮ আশ্বিন ১৪২৯

কিশোরগঞ্জে কৃষক হত্যা মামলায় ৯ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

প্রকাশিত: ০১:০৪, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

কিশোরগঞ্জে কৃষক হত্যা মামলায় ৯ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

নিজস্ব সংবাদদাতা, কিশোরগঞ্জ ॥ কিশোরগঞ্জে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে একটি হত্যা মামলার রায়ে ৯ জনের বিরুদ্ধে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড দিয়েছে আদালত। এছাড়া রায়ে প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরও ৩ মাসের সশ্রম কারাদ- দেয়া হয়েছে। দন্ডপ্রাপ্ত আসামীরা হলো-আবু সিদ্দিক, আবু বাক্কার, মতি মিয়া, ওয়াহাব, আউয়াল, মহরম, ইসমাঈল, মোস্তফা ও রুস্তম আলী। এ সময় মামলার এজাহারভুক্ত অপর আসামী ইব্রাহীমের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাকে খালাস দিয়েছে আদালত। মঙ্গলবার দুপুরে ১৯৯৬ সালের ২৫ অক্টোবর জেলার কুলিয়ারচর উপজেলার গোবরিয়া আব্দুল্লাহপুর মাতোয়ার কান্দা গ্রামের কৃষক হারিছ মিয়া হত্যাকান্ডের পর বাদীর দায়েরকৃত মামলার আটজন আসামীর উপস্থিতিতে জেলা ও দায়রা জজ আদালত-৩ এর বিচারক মুহাম্মদ আবু তাহের উপরোক্ত রায় দেন। মামলার এজাহারভুক্ত মোট ১৩ আসামীর মধ্যে আবু সিদ্দিক ও রুস্তম আলী পলাতক রয়েছে। আর মামলা চলমান অবস্থায় ইতোমধ্যে তিন আসামীর মৃত্যু হয়েছে। মামলার বিবরণ ও আদালত সূত্রে জানা গেছে, ১৯৯৬ সালের ১০ অক্টোবর সকালে কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচর উপজেলার গোবরিয়া আব্দুল্লাহপুর মাতোয়ার কান্দা গ্রামের কৃষক হারিছ মিয়া স্থানীয় বাজারে গরু বিক্রি করে বাড়ি উদ্দেশ্যে যাচ্ছিল। পথিমধ্যে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে একই এলাকার উপরোক্ত মামলার আসামীরা তাকে পথ আটকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় স্বজনেরা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে বাজিতপুর জহুরুল ইসলাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওইদিন রাতেই তাঁর মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় নিহতের ভাতিজা শহীদুল্লাহ বাদী হয়ে আসামীদের নামাল্লেখ করে কুলিয়ারচর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরে তদন্ত শেষে পুলিশ আদালতে চার্জশীট দিলে মঙ্গলবার আসামীদের বিরুদ্ধে উপরোক্ত রায় দেন। রাষ্ট্রপক্ষে এপিপি এ্যাডভোকেট দিলীপ কুমার ঘোষ, এ্যাডভোকেট সৈয়দ শাহজাহান এবং আসামীপক্ষে এ্যাডভোকেট গিয়াস উদ্দিন মামলাটি পরিচালনা করেন।