সোমবার ১১ মাঘ ১৪২৮, ২৪ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা

আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংকের চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান পুনর্নির্বাচিত

আলহাজ আবদুস সামাদ (লাবু) আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংকের পরিচালক পর্ষদের চেয়ারম্যান এবং আলহাজ মোহাম্মদ আব্দুস সালাম ভাইস চেয়ারম্যান পুনর্নির্বাচিত হয়েছেন। শনিবার পর্ষদের ৩০৬তম সভায় সর্বসম্মতিক্রমে তারা আগামী এজিএম মেয়াদের জন্য নির্বাচিত হন।

আলহাজ আবদুস সামাদ (লাবু) আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংকের অন্যতম উদ্যোক্তা পরিচালক। চট্টগ্রাম জেলার অধিবাসী আবদুস সামাদ দেশের একজন বিশিষ্ট শিল্পপতি ও ব্যবসায়ী। তিনি দেশের অন্যতম বৃহত্তম শিল্প প্রতিষ্ঠান এস আলম গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান এবং এস আলম কোল্ড রোল্ড স্টিলস লিঃ’র চেয়ারম্যান। আলহাজ মোহাম্মদ আব্দুস সালাম বন্দরনগরী চট্টগ্রামের একজন স্বনামধন্য ব্যবসায়ী। তিনি আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংকের উদ্যোক্তা পরিচালক ও সাবেক চেয়ারম্যান চট্টগ্রামের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আলহাজ মীর আহমেদ সওদাগরের পুত্র। তিনি চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জের অন্যতম বৃহৎ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান মীর গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক। -বিজ্ঞপ্তি

জ্বালানি তেলের দাম ৫ মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন

বিশ্ববাজারে আবারও কমল জ্বালানি তেলের দর। গেল ৫ মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন পর্যায়ে নেমেছে এ নিত্যপণ্যের দর। শুক্রবার আন্তর্জাতিক বাজারে ব্যারেল প্রতি জ্বালানি তেল বিক্রি হয়েছে ৪৯ ডলার দরে। নবেম্বরে জ্বালানি উত্তোলক ও রফতানিকারক দেশগুলোর সংগঠন-ওপেকের জ্বালানির উত্তোলন কমানোর সিদ্ধান্তের পর এই প্রথম কমল জ্বালানির দর। বিশ্লেষকরা বলছেন, জ্বালানি উত্তোলক দেশগুলোর উত্তোলন আর কমানোর সম্ভাবনা নেই। পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্রের উত্তোলনও লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি হচ্ছে বলেও মনে করছেন তারা। জ্বালানির দর কমার প্রভাব পড়েছে যুক্তরাষ্ট্রের শেয়ারবাজারে। -অর্থনৈতিক রিপোর্টার

বিশ্ববাজারে চিনির দাম কমেছে ৯ শতাংশ

বিশ্ববাজারে সদ্য শেষ হওয়া এপ্রিলে খাদ্যসামগগ্রীর দাম কমেছে। চিনি, ভোজ্য তেলসহ প্রধান প্রধান খাদ্যসামগ্রীর উৎপাদন ও সরবরাহে যথেষ্ট সম্ভাবনা থাকায় বাজারে এর প্রভাব পড়েছে। এপ্রিলে খাদ্যপণ্যের গড় দাম নেমেছে ১৬৮ পয়েন্টে। গত মার্চ থেকে যা ১.৮ শতাংশ কম। জাতিসংঘের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান খাদ্য ও কৃষি সংস্থা (এফএও) এ তথ্য প্রকাশ করেছে। তবে এপ্রিলের এই পরিসংখ্যান গত বছরের একই সময়ের তুলনায় ১০ শতাংশ বেশি। অর্থাৎ গত বছরের এপ্রিল থেকে এ বছরের এপ্রিলে খাদ্যের দাম বেড়েছে ১০ শতাংশ। প্রতিবেদনে দেখা যায়, গড় খাদ্য সূচকে সবচেয়ে বেশি প্রভাব ফেলেছে চিনি। পণ্যটির দর ৯.১ শতাংশ কমেছে। এছাড়া এক মাসের ব্যবধানে ভোজ্যতেলের দর কমেছে ৩.৬ শতাংশ। ডেইলি টাইমসের এক খবরে বলা হয়, এ বছর দক্ষিণ ও উত্তর আমেরিকায় সয়া সয়াবিনের বাম্পার ফলন হবে বলে আশা করা হচ্ছে। এছাড়া পাম তেলেরও চাহিদা কমে যাবে। যার প্রভাব পড়বে ভোজ্যতেলে। -অর্থনৈতিক রিপোর্টার

শীর্ষ সংবাদ: