মঙ্গলবার ১২ মাঘ ১৪২৮, ২৫ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

ট্রাম্পের সময় বসতি স্থাপন ব্যাপকভাবে প্রসারিত হবে

  • চাপা পড়ে যাবে ফিলিস্তিন ইস্যু

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার আট বছরের সমালোচনা সত্ত্বেও ইসরাইলী বসতি স্থাপন নির্বিচারে চলেছে। পরবর্তী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আমলে ইসরাইলের বসতি স্থাপন আরও দ্রুত প্রসার লাভ করতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। খবর ওয়াশিংটন পোস্টের।

পশ্চিম তীরের প্রাচীন শহর শিলোহ। সেখানে কয়েক হাজার বাড়ি তৈরি করা হয়েছে। রয়েছে মাইলের পর মাইল সড়ক, রেস্তরাঁ, শপিংমল ও একটি বিশ্ববিদ্যালয়। নির্মিত হয়েছে একটি পর্যটন কেন্দ্রও। সেখানে একটি ভিডিওর মাধ্যমে স্বাগত জানানো হয়। এতে দেখানো হয় যে, ঈশ্বর ইহুদীদের জন্য যে ভূখ-ের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, সেখানে তাদের স্থায়ীভাবে বসবাসের নির্দেশ দিচ্ছেন বাইবেলের এক চরিত্র জোসুয়া। ইসরাইলী বসতি স্থাপন জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের চোখে অবৈধ এবং ওবামা প্রশাসনের দৃষ্টিতে মধ্যপ্রাচ্যের শান্তি প্রক্রিয়ার সবচেয়ে বড় বাধা। কিন্তু ইসরাইল প্রতিদিন ওই ভূখ-ের উপর তাদের দখলদারিত্ব আরও সুরক্ষিত করছে। যা আইনগতভাবে ফিলিস্তিনীদের হওয়া উচিত বলে জানিয়েছে ফিলিস্তিন। সেখানকার শুষ্ক, রুক্ষ পাহাড়ের উপরে লাল টালির বাড়িগুলো দুই রাষ্ট্র সমাধানে কয়েক দশক ধরে আন্তর্জাতিক প্রচেষ্টা ভেঙ্গে পড়ার কথাই বলছে। পাশাপাশি বৈশ্বিক নিন্দা সত্ত্বেও এই প্রবণতা আরও ত্বরান্বিত হওয়ার সুযোগ পাচ্ছে। ইতোমধ্যেই ইসরাইলের ডানপন্থী সরকার বসতি নির্মাণ নিয়ে দেশটির সংক্ষিপ্ত ইতিহাসের সবচেয়ে বেশি সমর্থন পেয়েছে। কয়েক সপ্তাহের মধ্যে দেশটি তার মিত্র পরবর্তী মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে ট্রাম্পকে পাবে। তিনি ইঙ্গিত দিয়েছেন, ইসরাইল বিষয়ে কয়েক দশকের মার্কিন নীতিতে পরিবর্তন করতে পারেন এবং বসতি স্থাপন নিয়ে আমেরিকান আপত্তির অবসানও ঘটাতে পারেন। ট্রাম্পের এই ইঙ্গিতে শিলোহ ও পুরো পশ্চিম তীরের বসতি স্থাপনকারীরা আনন্দিত এবং তারা আশা করছেন, সেখানে আরও অনেক ভবন নির্মিত হবে। যা ‘একটি ফিলিস্তিন রাষ্ট্র’ গঠনের ধারণাকে চিরতরে নস্যাৎ করে দিতে পারে। পশ্চিম তীরের ইহুদী আউটপোস্টের এক ওয়াইন প্রস্তুতকারী শিভি দ্রোরি (৪৩) বলেছেন, আমেরিকানরা কম হস্তক্ষেপ করলেই সবকিছু আরও সহজেই হবে। আমি বড় শহরগুলোতে আরও বৃহৎ বসতি স্থাপন দেখতে চাই। ইসরাইলী সরকার ওই আউটপোস্টে বসতি স্থাপন আনুষ্ঠানিকভাবে নাগালের বাইরে বলে বিবেচনা করে। কিন্তু সেখানে তাদের কৌশলগত সমর্থন রয়েছে। দ্রোরি বলেন, প্রেসিডেন্ট ওবামা বসতি স্থাপনের বিরোধী।

শীর্ষ সংবাদ:
বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমের মুখোমুখি হচ্ছেন সিইসি কেএম নূরুল হুদা         দেশের অর্থনীতিতে গতিসঞ্চারে ভূমিকা রাখতে কাস্টমস কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান রাষ্ট্রপতির         করোনায় মৃত্যু ১৮, শনাক্ত ১৬ হাজার         করোনাভাইরাস : বাণিজ্যমেলা বন্ধ ও বইমেলা পেছানোর পরামর্শ         টিকার কারণে হাসপাতালে রোগী কম, মৃত্যুও কম : স্বাস্থ্যমন্ত্রী         একনেকে ১০ প্রকল্প অনুমোদন         ‘আমরণ অনশন ভাঙার সিদ্ধান্ত নিয়েছি, আন্দোলন চলবে’         ডিবির জ্যাকেটে নতুন প্রযুক্তি         ওমিক্রনে শিশুদের ঝুঁকি বাড়ছে         ‘বিএনপি অগণতান্ত্রিক পথে ক্ষমতায় যাওয়ার স্বপ্ন দেখছে’         ভূমধ্যসাগরে নৌকায় হাইপোথার্মিয়ায় ৭ বাংলাদেশির মৃত্যু         ৭ ফেব্রুয়ারি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থগিত পরীক্ষা শুরু         ক্রিপ্টো বাজারে ট্রিলিয়ন ডলার ধস         দুর্নীতি মামলায় জিকে শামীমের মা কারাগারে         ‘জাতিসংঘে চিঠি শান্তিরক্ষা মিশনে প্রভাব ফেলবে না’         ‘দুর্নীতিগ্রস্ত’ দেশের তালিকায় বাংলাদেশ ১৩তম         ঢাকায় শাবিপ্রবির সাবেক দুই শিক্ষার্থীকে আটকের অভিযোগ         ঝালকাঠিতে লঞ্চে অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ ৩০ জনকে নগদ সহায়তা         এবার র‌্যাবকে নিষিদ্ধ করতে ইইউতে চিঠি         গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় মারা গেছেন ৫ হাজার ৯২২ জন