রবিবার ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৮ নভেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

উৎসবের চোখ ধাঁধানো আলো, বিপদে পাইলট

 উৎসবের চোখ ধাঁধানো আলো, বিপদে পাইলট

অনলাইন ডেস্ক ॥ বিরাটির দিক থেকে নামছিল কাতার এয়ারওয়েজের বিমান। যশোহর রোড পার হওয়ার সময়ে মাটি থেকে বিমানটি তখন প্রায় ২০০ ফুট উপরে। আচমকা ধাঁধিয়ে যায় পাইলটের চোখ। ককপিটের সামনে খেলা করে যায় লেজার রশ্মি।

গত ৮ তারিখ গভীর রাতের ঘটনা। বিমানের গতি তখন ঘণ্টায় ২৫০ কিলোমিটারের কাছাকাছি। কলকাতা বিমানবন্দরের প্রধান রানওয়ে থেকে কয়েকশো মিটার দূরে বিমান। বিশেষজ্ঞ পাইলটদের কথায়, এই ব্রাহ্ম মুহূর্তে পাইলটকে সব চেয়ে বেশি সজাগ থাকতে হয়। মাটিতে নেমে আসাটাই সব চেয়ে কঠিন। বিপুল ওজনের বিমানকে তখন প্রাণপনে টানতে থাকে পৃথিবীর মাটি। এই অবস্থায় মসৃণ ভাবে মাটি ছোঁয়াটা একটা চ্যালেঞ্জের পর্যায়ে চলে যায়।

বিমানবন্দরের এক কর্তার কথায়, ‘‘এমন সময়ে পাইলটের চোখ ধাঁধিয়ে গেলে যে কোনও মুহূর্তে বড় দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।’’ সে দিন পাইলট পরিস্থিতি সামলে নির্বিঘ্নে নেমে আসার পরে এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলে (এটিসি) বিষয়টি জানান। পরে বিমানবন্দরের তরফে প্রাথমিক খোঁজখবর করে জানা যায়, যশোহর রোডের ধারে কোনও বিয়েবাড়ি বা জলসা চলছিল। সেখানে নাচের আসরের জন্য ওই ঘোরানো লেজার আলো লাগানো হয়েছিল। যে আলো ঘুরতে ঘুরতে ককপিটের কাচ ছুঁয়ে যায়। বিষয়টি স্থানীয় পুলিশকে জানানো হবে বলেও বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা গিয়েছে।

এই প্রথম কলকাতায় নিরাপত্তা সপ্তাহ পালন করছে এয়ারলাইন অপারেটর কমিটি (এওসি)। বিভিন্ন বিমান সংস্থার প্রতিনিধিদের নিয়ে তৈরি এই কমিটি শুক্রবার যে আলোচনাসভার আয়োজন করেছিল, সেখানেই এই লেজার আলোর বিষয়টি উঠে আসে। এক বক্তা জানান, চেন্নাই বিমানবন্দরে বেশ কয়েক বার এমন ঘটনা ঘটার পরে স্থানীয় পুলিশের কন্ট্রোল রুমের সঙ্গে চেন্নাই এটিসি-র সরাসরি হটলাইন ব্যবস্থা চালু হয়েছে। এ রকম ঘটনা ঘটলেই সঙ্গে সঙ্গে পুলিশকে জানিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

এ দিন নিরাপত্তা সপ্তাহ উপলক্ষে বেশ কয়েকটি বিষয় উঠে আসে। এওসি-র চেয়ারম্যান ক্যাপ্টেন সর্বেশ গুপ্ত জানান, কলকাতা বিমানবন্দরের টারম্যাকে (যেখানে বিমান দাঁড়ায়) যাত্রীদের বাস, বিমানের সিঁড়ি, মালবাহী গাড়ি, জ্বালানির ট্যাঙ্কও যাতায়াত করে। সর্বেশের কথায়, ‘‘গত ছয় মাসের মধ্যে এমন দু’তিনটি ঘটনার কথা জানা গিয়েছে, যেখানে ওই টারম্যাকে হয় একটি বাস গিয়ে দাঁড়িয়ে থাকা বিমানকে ধাক্কা মেরেছে। নয়তো একটি বাসের সঙ্গে অন্য বাসের ধাক্কা লেগেছে। আগামী দিনে বিমানের সংখ্যা আরও বাড়বে এবং এই ধরনের বাস ও অন্য গাড়িও বাড়বে। নিয়মিত প্রশিক্ষণের খুব প্রয়োজন।’’ এমনকী এই ধরনের যানবাহনের চালকদের যাতে পরপর দু’দিন রাতের ডিউটি করতে না হয়, তার জন্যও আলোচনা সভায় প্রস্তাব ওঠে।

ডিরেক্টরেট জেনারেল অফ সিভিল অ্যাভিয়েশন (ডিজিসিএ)-এর ডিরেক্টর (এয়ার সেফটি) মণীশ কুমার বলেন, ‘‘যে বিমান সংস্থা চালকদের নিয়োগ করছেন, এটা তাদেরই দেখতে হবে। প্রতি মুহূর্তে প্রত্যের কর্মীকে সজাগ রাখার দায়িত্ব তাদেরই।’’

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

শীর্ষ সংবাদ:
তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচন : চলছে গণনার কাজ         বাংলাদেশে বিনিয়োগ সুবিধা লুফে নেওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর         করোনা : গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ৩         করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের সতর্কবার্তা         পরিবহন সেক্টর কার নিয়ন্ত্রণে : জি এম কাদের         সংসদে নির্বাচন কমিশন গঠনে আইন আনা হচ্ছে শিগগিরই ॥ আইনমন্ত্রী         আগামী ১ ডিসেম্বর থেকে নগর পরিবহন চালু সম্ভব নয় : মেয়র তাপস         মানবপাচার মামলা : কুয়েতে পাপুলের ৭ বছরের কারাদণ্ড         ডেঙ্গু : গত ২৪ ঘন্টায় আরও ৭৪ রোগী হাসপাতালে         নন-জুডিসিয়াল স্ট্যাম্পে বঙ্গবন্ধুর ছবি যুক্ত করতে রুল         বাংলাদেশে বিপুল পরিমাণ বিনিয়োগ আসছে : সালমান এফ রহমান         নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের অবরোধ         বুয়েট ছাত্র আবরার হত্যা মামলার রায় পিছিয়ে ৮ ডিসেম্বর নির্ধারণ         করোনা : সুইজারল্যান্ড না গিয়ে দেশে ফিরলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী         আন্তর্জাতিক মানের নতুন একটি বিমানবন্দর নির্মাণের পরিকল্পনা         তেজগাঁওয়ে ঠিকাদারের কাছে চাঁদা দাবির অভিযোগ         টঙ্গীতে পুড়ে যাওয়া বস্তির একটি মানুষও না খেয়ে থাকবে না ॥ রাসেল         করোনাভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন সবচেয়ে মারাত্মক ॥ গবেষণা