মঙ্গলবার ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

জঙ্গীবাদ প্রতিরোধে সংস্কৃতি

‘মানবতা ও স্বদেশ ভাবনায় রুখে দাঁড়াও জঙ্গীবাদ’ শীর্ষক ব্যানার ধারণ করে রাজধানীর সর্বস্তরের সংস্কৃতিকর্মীদের পদযাত্রাটি ছিল শনিবারের উল্লেখযোগ্য ঘটনা। সাত কিলোমিটার দীর্ঘ পদযাত্রাটি পরিব্যাপ্ত ছিল কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে গুলশান-১ পর্যন্ত। হাজার হাজার সংস্কৃতিকর্মীর ব্যানার ও ফেস্টুন শোভিত বর্ণাঢ্য এই মিছিলের কণ্ঠে ছিল উদ্দীপক গান, অগ্নিঝরা কবিতার পঙ্ক্তিমালা, সন্ত্রাস ও জঙ্গীবিরোধী নাট্যাংশ সর্বোপরি দেশ ও মাটির সুরক্ষায় মুহুর্মুহু সেøাগান। এর পাশাপাশি মানবতা ও স্বদেশ ভাবনায় উজ্জীবিত বক্তৃতা তো ছিলই। এটা খুবই আশার কথা যে, সংস্কৃতিকর্মীদের সুদীর্ঘ এই র‌্যালি ও পদযাত্রাকে দু’পাশে চলাচলরত সর্বস্তরের সাধারণ মানুষ করতালি দিয়ে স্বাগত জানিয়েছে এবং দু’হাত তুলে প্রকাশ করেছে একাত্মতা। উল্লেখ্য, এই মিছিল ছিল সম্প্রতি গুলশান ও শোলাকিয়ায় সংঘটিত ভয়াবহ নৃশংস সন্ত্রাসী জঙ্গী হামলা ও অমানবিক হত্যাকা-ের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ ও ঘৃণার বহির্প্রকাশ। শ্রাবণের ভারি বর্ষণ এবং বৃষ্টিস্নাত রাজপথ সংস্কৃতিকর্মীদের এই সমাবেশ ও মিছিল শ্লথগতি করতে পারেনি।

দেশের সংস্কৃতিকর্মীরা গুলশান ও শোলাকিয়ায় হাতেগোনা কয়েকজন ঘৃণ্য জঙ্গী কর্তৃক কতিপয় বিদেশী ও স্বদেশী নিরীহ নাগরিক হত্যার প্রতিবাদে শোকসভা ও শোক মিছিলের আয়োজন করতে পারতেন। সে পথে তারা যাননি। পরিবর্তে জঙ্গীবাদের বিরুদ্ধে সরব কণ্ঠে কবিতা ও গানের মিছিল সহযোগে গান গেয়েছেন মানবতার। অঙ্গীকার করেছেন ভয়কে জয় করার। এটা তো চির সত্য যে, মৃত্যুর কাছে জীবন কখনই পরাজয় মেনে নিতে পারে না। জীবন চিরসত্য ও অপরাজিত। ৩০ লাখ শহীদের দেশে, দু’লাখ মা-বোনের সম্ভ্রম হারানোর দেশে, সশস্ত্র সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে স্বাধীন ও সার্বভৌম বাংলাদেশ সর্বোপরি বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশে জঙ্গীবাদের কোন স্থান নেই। এখন সময় এসেছে রুখে দাঁড়ানোর; সময় এসেছে প্রতিবাদের, প্রতিরোধের। আমরা যদি দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কয়েক কোটি শিক্ষার্থীকে পর্যায়ক্রমে সাংস্কৃতিক সপ্তাহ আয়োজনের মাধ্যমে বাঙালীর হাজার বছরের ইতিহাস-ঐতিহ্য-কৃষ্টি-সংস্কৃতি, সুমহান মুক্তিযুদ্ধ এবং এর চেতনার সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিতে পারি জাতীয় পতাকা ও জাতীয় সঙ্গীতের মাধ্যমে, তাহলে জঙ্গীবাদ কিছুতেই মাথা তুলে দাঁড়াতে পারবে না। আর এখানেই নিহিত রয়েছে কবিতার জয়, নাটক ও গানের বিজয়বার্তা। দেশের সর্বত্র সংস্কৃতিকর্মীদের কাজ ও দায়িত্ব হলো, আমাদের সন্তানদের মধ্যে অসাম্প্রদায়িক, ধর্মনিরপেক্ষ ও মানবিক চেতনার বার্তাটি পৌঁছে দেয়া। মনে রাখতে হবে, সারাবিশ্বে একমাত্র এ দেশের চারণ কবিই উচ্চকণ্ঠে ঘোষণা করেছেন চিরায়ত মানবতার এই সুমহান বিজয়বার্তাÑ ‘সবার উপরে মানুষ সত্য, তাহার উপরে নাই।’

সত্য বটে, বর্তমানে শুধু বাংলাদেশ নয়, বরং সমগ্র বিশ্ব আজ বিপন্ন। জঙ্গী ও সন্ত্রাস কবলিত হয়ে মানব সভ্যতা বর্তমানে হুমকির সম্মুখীন। শুধু মধ্যপ্রাচ্য নয়, ইরাক-সিরিয়া-পাকিস্তান-আফগানিস্তান নয়; বরং জঙ্গী হামলা হচ্ছে ইউরোপ-ফ্রান্স-ইতালি-যুক্তরাজ্য ও জার্মানিতে, অস্ট্রেলিয়া ও আমেরিকায়। সর্বাধুনিক তথ্যপ্রযুক্তি, শক্তিশালী গোয়েন্দা নেটওয়ার্ক সর্বোপরি অত্যাধুনিক সমরাস্ত্র আপাতদৃষ্টিতে আত্মঘাতী জঙ্গী হামলা ও সন্ত্রাস মোকাবেলায় প্রায় ব্যর্থ হচ্ছে। ফলে অনিবার্য প্রাণ যাচ্ছে অগণিত নিরীহ সাধারণ মানুষের, নারী ও শিশুর। ঘটছে সম্পদহানিও। মানুষের মধ্যে সুপ্ত শুভবোধ ও চেতনাকে যদি জাগ্রত করা যায়, মানবিকতা যদি বিকশিত করে তোলা যায় মানুষের মনে, তাহলে জঙ্গীবাদ একেবারে নির্মূল না হোক, অন্তত কমে আসবে অনেকাংশে। এ ক্ষেত্রে সর্বোত্তম হাতিয়ার ও মাধ্যম হতে পারে ধর্ম ও সংস্কৃতি, সর্বোপরি শিক্ষা। বিশ্বের সব ধর্মই মানুষ ও মানবতার কথা বলে। সংস্কৃতি বলে মানবতার বিকাশের কথা। এই কাজটি তৃণমূল থেকে শুরু করতে হবে শিক্ষক, ধার্মিক ও সংস্কৃতিকর্মীদের সম্মিলিতভাবে। আলো দিয়ে আলো জ্বালাতে হবে মানুষের মনে।

শীর্ষ সংবাদ:
ঢাকায় পৌঁছেছেন ভারতের পররাষ্ট্রসচিব শ্রিংলা         বৃষ্টি থেমেছে, মিরপুর টেস্টের চতুর্থ দিনের খেলা শুরুর সম্ভাবনা         গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় মারা গেছেন ৫ হাজার ২৮০ জন         শীর্ষে যাবে রফতানিতে ॥ গার্মেন্টস শিল্পে ঈর্ষণীয় সাফল্য         ঢাকা-দিল্লী সম্পর্ক আস্থা ও শ্রদ্ধায় বিস্তৃত         ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার ১১ মাসের মাথায় সুচির কারাদণ্ড         বিশ্বজুড়ে শান্তির বার্তা ছড়িয়ে দিচ্ছেন শেখ হাসিনা         অভিযুক্ত কর্মকর্তাদের সচিব পদোন্নতি দেয়ার প্রক্রিয়া!         বিজয়ের মাস         জাওয়াদ দুর্বল হয়ে লঘুচাপে রূপ নিয়েছে         ৪৩ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে রিপোর্ট দিতে হাইকোর্টের নির্দেশ         অরাজকতা সৃষ্টির নীলনক্সা জামায়াতের         আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি অর্জনের সূচনা ৬ ডিসেম্বর         বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী ছিন্ন করা যাবে না         বন্ড সুবিধার অপব্যবহার, ২৭৫ কোটি ৩২ লাখ টাকার ভ্যাট ফাঁকি         বিএনপি রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতা সৃষ্টির চেষ্টা করছে         সমিতি সংগঠন খুলে ফায়দা লুটে নিচ্ছে বিশেষ শ্রেণী         তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মুরাদকে পদত্যাগের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর         দেশে টিকা উৎপাদনে দুই-চার দিনের মধ্যেই চুক্তি : স্বাস্থ্যমন্ত্রী         সমাপনী পরীক্ষা না থাকলেও বৃত্তি ও সনদের ব্যবস্থা থাকবে : শিক্ষামন্ত্রী