ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ০৯ আগস্ট ২০২২, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯

পরীক্ষামূলক

সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে এলডিসিভুক্ত দেশগুলোর অগ্রগতি এখনও আশানুরূপ নয়

প্রকাশিত: ০৪:২৩, ১৮ জুলাই ২০১৬

সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে এলডিসিভুক্ত দেশগুলোর অগ্রগতি এখনও আশানুরূপ নয়

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, জিএসপি সুবিধাসহ রফতানি বাণিজ্য বৃদ্ধির বিভিন্ন পদক্ষেপের মাধ্যমে এলডিসিভুক্ত দেশগুলোর আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে আঙ্কটাড গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে। যদিও সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে এলডিসিভুক্ত দেশগুলোর অগ্রগতি এখনও আশানুরূপ নয়। বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট গোল (এসডিজি) অর্জনেও আঙ্কটাড গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে বলে আশা করি। কারণ এ গোল অর্জনে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহযোগিতা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তোফায়েল আহমেদ রবিবার নাইরোবির কেনিয়া আন্তর্জাতিক কনফারেন্স সেন্টারে জি-৭৭ এবং চীনের মন্ত্রী পর্যায়ের সভায় এলডিসি গ্রুপের পক্ষে বক্তব্য উপস্থাপনের সময় এসব কথা বলেন। বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বিশেষ করে প্রয়োজনীয় সম্পদ সরবরাহ, অবকাঠামো নির্মাণ, কারিগরি ও প্রযুক্তিগত সহায়তা, প্রশিক্ষণ ও গবেষণা ইত্যাদি ক্ষেত্রে এলডিসিভুক্ত দেশগুলোর সামর্থ্য এখনও সীমিত, এ সকল ক্ষেত্রে সহযোগিতা প্রয়োজন। বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে এলডিসিভুক্ত দেশগুলোর কল্যাণে গৃহীত বিভিন্ন সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা বা অচলাবস্থা দূর করতে আঙ্কটাড অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে পারে। আন্তর্জাতিক বাণিজ্য ব্যবস্থা থেকে এলডিসিভুক্ত দেশগুলো যাতে অধিকতর সুবিধা পেতে পারে, সেজন্য আঙ্কটাড গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে। বিশেষ করে অগ্রাধিকারমূলক বাণিজ্য সুবিধা আদায়ের মাধ্যমে এলডিসিভুক্ত দেশগুলো রফতানি বাণিজ্য বৃদ্ধি করতে পারে। এলডিসিভুক্ত দেশগুলোর উন্নয়নে আঙ্কটাডের ভূমিকা প্রশংসনীয়। তোফায়েল আহমেদ বলেন, ইস্তানবুল প্রোগ্রাম অব এ্যাকশন মোতাবেক ২০২০ সালের মধ্যে অর্ধেক এলডিসিভুক্ত দেশ উন্নয়নশীল দেশে রূপান্তর এবং বিশ্ব রফতানি বাণিজ্যে দুই শতাংশ অবদান নিশ্চিত করার চেষ্টায় আঙ্কটাডের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। এ সকল সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন এলডিসিভুক্ত দেশগুলোর অগ্রগতি এখনও আশানুরূপ নয়। তানজানিয়ার শিল্প ও বাণিজ্যমন্ত্রী চার্লস জন মইজাগের সভাপতিত্বে সম্মেলনে কেনিয়ার পররাষ্ট্র ও আন্তর্জাতিক বাণিজ্য বিষয়ক মন্ত্রী আমিনা চাওয়াহির মোহাম্মদ স্বাগত বক্তব্য রাখেন। এ সময় বক্তব্য রাখেন আঙ্কটাডের ডেপুটি সেক্রেটারি জেনারেল জসিম রেইটার, থাইল্যান্ডের পার্মানেন্ট সেক্রেটারি এবং বিশেষ পররাষ্ট্র বিষয়কমন্ত্রী এ্যাচার্ট চিনওয়ানো।
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২