ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১

‘বলার ছিল অনেক কিছু’ লিখে এসএসসি পরীক্ষার্থীর আত্মহত্যা

প্রকাশিত: ১১:৩৬, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

‘বলার ছিল অনেক কিছু’ লিখে এসএসসি পরীক্ষার্থীর আত্মহত্যা

পরীক্ষার্থী লামিসা জামান

এক এসএসসি পরীক্ষার্থী ফেসবুক স্টোরিতে ‘বলার ছিলো অনেক কিছু, বলা হইলো না কিছু’ লিখে নিজের ঘরে ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস নিয়েছে। পরীক্ষার্থীর নাম লামিসা জামান। 

শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে শরীয়তপুরের ডামুড্যা পৌরসভার দক্ষিণ ডামুড্যা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

লামিসা জামান দিয়া (১৭) দক্ষিণ ডামুড্যা গ্রামের ইতালি প্রবাসী মনিরুজ্জামান বিপ্লব বেপারী ও লাকি বেগম দম্পত্তির মেয়ে। সে সরকারি ডামুড্যা মুসলিম উচ্চ বিদ্যালয়ের মানবিক শাখা থেকে চলমান এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিল।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, লামিসা জামান দিয়ার মা লাকি বেগম বাড়িতে ছিলেন না। গতকাল শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে নিজের রুমের দরজা বন্ধ করে দেয় লামিয়া। অনেক সময় কেটে গেলেও দরজা না খুললে সন্দেহ হয় বাড়িতে থাকা অন্যদের। এরপর তার খালামনি ডাকাডাকি করলেও সে দরজা না খুললে প্রতিবেশীরা এসে দরজা ভেঙে দেখেন ভেন্টিলেটরের সঙ্গে ওড়না দিয়ে পেঁচিয়ে লামিসা জামান দিয়া ঝুলে রয়েছে। পরে দ্রুত তাকে উদ্ধার করে ডামুড্যা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। 

সরকারি ডামুড্যা মুসলিম উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আব্দুল মজিদ গণমাধ্যমকে বলেন, লামিসা জামান দিয়ার সঙ্গে বৃহস্পতিবার পরীক্ষা শেষে কথা হয়েছে আমার। আমি জানতে চেয়েছিলাম পরীক্ষা কেমন হয়েছে? ও সুন্দর ভাবে জবাব দিয়েছিল পরীক্ষা ভালো হয়েছে। এতটুকুন বয়সে কেন যে এমন করল, কিছুই বুঝলাম না।

বিষয়টি নিয়ে ডামুড্যা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমারত হোসেন বলেন, প্রাথমিক ধারণায় মনে হয়েছে লামিসা আত্মহত্যা করেছে। তার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। মেডিকেল প্রতিবেদনের ভিত্তিতে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

তাসমিম

×