ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ২২ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১

ইজতেমা উপলক্ষে

টঙ্গীতে যানবাহন নিয়ন্ত্রণে পুলিশ কমিশনারের যেসব নির্দেশনা 

নিজস্ব সংবাদদাতা, টঙ্গী, গাজীপুর

প্রকাশিত: ১৬:১২, ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

টঙ্গীতে যানবাহন নিয়ন্ত্রণে পুলিশ কমিশনারের যেসব নির্দেশনা 

ইজতেমা ময়দানের পুলিশ কন্ট্রোলরুমে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ কমিশনার।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের পুলিশ কমিশনার মাহবুব আলম বিশ্ব ইজতেমায় সাংবাদিকদের বলেছেন দ্বিতীয় পর্বের আখেরি মোনাজাত সকাল ১০ টা থেকে সাড়ে ১০ টার মধ্যে অনুষ্ঠিত হবে। রবিবার মুসল্লীদের আসা যাওয়া নির্বিঘ্ন করতে টঙ্গীতে যানবাহন ঢোকার পথ গুলোতে নিয়ন্ত্রণ আরোপ করার কথাও উল্লেখ করেন পুলিশ কমিশনার। শনিবার দুপুরে টঙ্গী ইজতেমা ময়দানের পুলিশ কন্ট্রোলরুমে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ কমিশনার এসব কথা  বলেন। উল্লেখ করা যেতে পারে, আখেরি মোনাজাত অনুষ্ঠানে ইজতেমার মুরুব্বিরা নির্ধারিত কোন সময় দেন না। পুলিশ কমিশনার আরও বলেন, শনিবার রাত ১২ টা থেকে রাজধানীর আব্দুল্লাহপুর থেকে গাজীপুর মহানগরীর ভোগড়া বাইপাস, টঙ্গীর স্টেশন রোড থেকে মীরের বাজার, কামারপাড়া রোড থেকে মন্নুগেটের ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়ক এবং আবদুল্লাহপুর আশুলিয়া সড়কে সবধরনের যান চলাচল বন্ধ থাকবে। "ইজতেমার আখেরি মোনাজাত উপলক্ষে জিএমপির ট্রাফিক বিভাগকে ঢেলে সাজানো হয়েছে। দূর-দূরান্ত থেকে মোনাজাতে অংশগ্রহণের জন্য মুসল্লিরা আসবেন। তাই, শনিবার মধ্য রাত থেকে কয়েকটি সড়ক বন্ধ রাখা হবে।" তিনি আরও বলেন, ‘আখেরি মোনাজাত উপলক্ষে দেশ-বিদেশের লাখ লাখ ধর্মপ্রাণ মুসল্লি মোনাজাতে অংশ নেবেন।

এ কারণে তাদের সুবিধার জন্য ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের রাজধানীর আবদুল্লাহপুর থেকে গাজীপুর মহানগরীর ভোগড়া বাইপাস, আবদুল্লাহপুর থেকে কামারপাড়া রোড হয়ে গাজীপুর মহানগরীর টঙ্গী স্টেশন রোড পর্যন্ত সড়ক, আবদুল্লাহপুর থেকে আশুলিয়ার বাইপাইল পর্যন্ত এবং মিরের বাজার থেকে টঙ্গী পর্যন্ত সড়কে সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে।’

এ সময় ঢাকাগামী যানবাহনগুলোকে ভোগড়া বাইপাস দিয়ে তিনশ ফিট রাস্তা ব্যবহার করে চলাচল করতে বলা হয়েছে। যেসব লোকজন ময়মনসিংহ বা গাজীপুর যাবেন, তারা বাইপাইল থেকে জয়দেবপুর চৌরাস্তা হয়ে চলে যেতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

কমিশনার বলেন,  প্রথম পর্বের মত এবারও জিএমপির ৬ হাজার পুলিশ সদস্য মোতায়েন রয়েছে। ইজতেমার শেষ দিন পর্যন্ত পুলিশ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন থাকবে। পাশাপাশি পুলিশ র‍্যাব , টুরিস্ট পুলিশ,  শিল্পপুলিশ, নৌ পুলিশসহ সকল বাহিনী আগের মতই মোতায়েন আছে। সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে পুলিশ কমিশনার জনকণ্ঠকে বলেন, আখেরী মোনাজাত শেষে যানবাহনে মুসল্লীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করলে পুলিশের পক্ষ থেকে কড়া আইনগত ব্যবস্হা নেওয়া হবে।
 

 

টিএস

সম্পর্কিত বিষয়:

×