ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১

বহুতল ভবন থেকে লাফিয়ে নারী চিকিৎসকের মৃত্যু

নিজস্ব সংবাদদাতা, ফরিদপুর

প্রকাশিত: ১৮:৪২, ২২ জানুয়ারি ২০২৪

বহুতল ভবন থেকে লাফিয়ে নারী চিকিৎসকের মৃত্যু

চিকিৎসক ডা. ফিরোজা বেগমের লাশ

ফরিদপুর শহরের ঝিলটুলি এলাকায় অবস্থিত ওয়াসিত্ব টাওয়ার-২ ভবন থেকে লাফিয়ে পড়ে ডা. ফিরোজা বেগম (৫২) নামে এক চক্ষু চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে। 

সোমবার সকাল ১১টার দিকে জেলা শহরের ঝিলটুলী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত ফিরোজা বেগম ফরিদপুরের ডা. জাহেদ মেমোরিয়াল শিশু হাসপাতালের শিশু বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডা. নিরঞ্জন কুমার দাসের স্ত্রী। তাদের নীলাঞ্জনা ফারজানা স্বর্নালী নামে উচ্চ মাধ্যমিক পড়ুয়া এক মেয়ে রয়েছে।  

প্রত্যক্ষদর্শী ও পার্শ্ববর্তী ফ্লাটের বাসিন্দারা জানায়, সোমবার সকালে তারা চিকিৎসক ফিরোজা বেগমকে ওয়াসিত্ব টাওয়ার-২ এর ১১তলার ছাদে হাঁটাহাঁটি করতে দেখেন।  হাঁটাহাঁটির এক পর্যায়ে নারী চিকিৎসক ছাদ থেকে লাফিয়ে আত্মহত্যা করে। 

পরে কোতোয়ালি থানার পুলিশকে অবহিত করলে থানা পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে। নিহতের স্বামী ডা. নিরঞ্জন কুমার দাস জানান, সে দীর্ঘদিন মানসিক রোগে ভুগছিলেন। সম্প্রতি তিনি ঢাকায় চিকিৎসা শেষে বাড়ি এসেছেন। 

ফরিদপুর কোতোয়ালি থানার ওসি (অপারেশন) আব্দুল গফফার জানান, খবর পেয়ে তারা ঘটনাস্থলে এসে দুই ভবনের মাঝের রাস্তায় লাশটি পড়ে থাকতে দেখতে পায়। এ সময় লাশের মাথা থেকে রক্ত বের হতে দেখে। প্রাথমিকভাবে এটাকে আত্মহত্যা ধরণা করা হচ্ছে।

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাসানুজ্জামান বলেন, খবর পেয়ে কোতয়ালী থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ফরিদপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে। ফিরোজা বেগম দীর্ঘদিন ধরে মানসিক অসুস্থতায় ভুগছিলেন বলে পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে। বিষয়টি যাচাই-বাছাই করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।  

 

এস

সম্পর্কিত বিষয়:

×