ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ০৩ অক্টোবর ২০২২, ১৮ আশ্বিন ১৪২৯

চালু হচ্ছে লালমোহন-কালাইয়া রুটে ফেরি সার্ভিস

নিজস্ব সংবাদদাতা, লালমোহন

প্রকাশিত: ১৯:২৫, ১৯ আগস্ট ২০২২

চালু হচ্ছে লালমোহন-কালাইয়া রুটে ফেরি সার্ভিস

লালমোহনের নাজিপুর টু পটুয়াখালীর জেলার বাউফলের কালাইয়া ঘাট পরিদর্শন করে বিআইডব্লিউটিসি কর্তৃপক্ষ।

ভোলার লালমোহনের সঙ্গে সড়ক পথে দক্ষিণাঞ্চলের জেলাগুলোর সঙ্গে সংযুক্ত করতে ফেরি সার্ভিস চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিআইডব্লিউটিসি কর্তৃপক্ষ। এ লক্ষ্যে একটি ফেরি সার্ভিস চালু করতে তিন সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল ঘাট পরিদর্শন করেছেন।

শুক্রবার (১৯ আগস্ট) প্রতিনিধি দলটি ফেরি রুটের সম্ভাবতা যাচাই শেষে তেতুলিয়ার
১৩ কিলোমিটার নৌপথে ফেরি সার্ভিস চালুর চিন্তা করেন তারা। এ জন্য লালমোহনের নাজিপুর টু পটুয়াখালীর জেলার বাউফল উপজেলার কালাইয়া ঘাট পরিদর্শন করেন।

প্রতিনিধি দলে ছিলেন, বিআইডব্লিউটিসির চেয়ারম্যান আহমদ শামীম আল রাজী, বিআইডব্লিউটিসির পরিচালক (বানিজ্য) এস এম অশিকুজ্জামান, ক্যাপ্টেন হাসেমুর রহমান চৌধুরী। এছাড়াও ভোলা বিআইডব্লিউটিসির ম্যানেজার মো. পারভেজ খান, তজুমদ্দিনের নির্বাহী
কর্মকর্তা (ইউএনও) মোসা. মরিয়ম বেগম।

বিআইডব্লিউটিসির ম্যানেজার মো. পারভেজ খান বলেন, লালমোহন-কালাইয়া ফেরি চালু হতে পারে। কারণ, এ পথে ফেরি চালু হলে চট্রগ্রাম, কুমিল্লা, পায়রা বন্ধরের সঙ্গে যোগাযোগ সহজ হবে। তাই আমরা খুব দ্রুত ফেরি সার্ভিস চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিআইডব্লিউটিসি। তবে কালাইয়া সড়কটি সংস্কার করতে হবে। তাহলে কোনো সমস্যা নেই।

বিআইডব্লিউটিসির চেয়ারম্যান এসময় নদীপথ বৃদ্ধির কার্যক্রম এর অংশ হিসাবে এই রুটে ফেরি সার্ভিস চালু করার জন্য দ্রু সমীক্ষার মাধ্যমে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান।

ফেরিঘাট এর দুপাশের অবস্থানসহ নদীর নাব্যতা অনুযায়ী ফেরি চলাচলের উপযোগী করতে ব্যবস্থা গ্রহণ করার কথা। খুব দ্রুত সময়ের মধ্যেই আনুষ্ঠানিকভাবে ফেরি চলাচল কার্যক্রম শুরু হবে বলে জানান।

এদিকে, নাজিপুর-কালাইয়া রুটে ফেরি সার্ভিস চালু হলে শুধু দ্বীপজেলা ভোলা নয় লালমোহন উপজেলার যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নতির পাশাপাশি অর্থনৈতিক উন্নত হবে বলে মনে করছেন এলাকাবাসী।