২৯ মার্চ ২০২০, ১৫ চৈত্র ১৪২৬, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

কবরীর মেয়ের চরিত্রে...

প্রকাশিত : ১৯ মার্চ ২০২০
  • রুহুল আমিন ভুইয়া

কিংবদন্তি অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরী বেশ কিছু দিন যাবত নতুন নায়িকা খুঁজছিলেন। ‘এই তুমি সেই তুমি’ শিরোনামের ছবিটি দিয়ে দীর্ঘ ১৪ বছর পর দ্বিতীয় সিনেমা শুরু করতে যাচ্ছেন এ অভিনেত্রী। কোন ভাবেই মনের মতো করে নায়িকা পাচ্ছিলেন না। অবশেষে নায়িকা খুঁজে পেলেন কিংবদন্তি এই অভিনেত্রী। ‘এই তুমি সেই তুমি’র নায়িকা হিসেবে ২০১৮ সালের ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’খ্যাত সুন্দরী নিশাত নাওয়ার সালওয়াকে বেছে নিয়েছেন তিনি। ছবিতে সালওয়ার নায়ক হিসেবে থাকছেন রিয়াদ রায়হান। মঙ্গলবার রাজধানীর উত্তরায় ছবিটির শূটিং শুরু হয়। কবরীর মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করবেন সুন্দরী সালওয়া। নিশাত সালওয়া এর আগে মডেল হয়েছিলেন ইমরান-তাহসান এর গানের ভিডিওতে। প্রতিযোগিতা থেকে বের হয়ে একটি সিনেমায় কাজ করেছেন। তবে কবরীর সিনেমায় অভিনয়ের সুযোগ পাওয়াকে জীবনের অনেক বড় একটি অর্জন বলে মনে করছেন তিনি। এটি কবরীর দ্বিতীয় সিনেমা, সালওয়ারও দ্বিতীয় সিনেমা। সালওয়া একক নায়িকা হিসেবে প্রথম ক্যামেরার সামনে দাঁড়ান মোস্তাফিজুর রহমান মানিক পরিচালিত ‘স্বপ্নে দেখা রাজকন্যা’ ছবি দিয়ে। এরই মধ্যে ছবিটির দৃশ্য ধারণ শেষ হয়েছে। রয়েছে মুক্তির মিছিলে। প্রথম দিনের শূটিংয়ের অভিজ্ঞতার কথা জানতে চাইলে সদা হাস্যোজ্জ্বল সালওয়া বলেন, রোমান্টিক গান দিয়ে শূটিং শুরু হয়। প্রথমে কিছুটা নার্ভাস ছিলাম। ছবিটির শূটিং হয় বর্ষাকালে। বেরশিক বৃষ্টি তখন কাজের বেঘাত ঘটান। তবে সবার সহযোগিতায় সুন্দরভাবে কাজটি শেষ হয়।

নিশাত নাওয়ার সালওয়া দুই হাজার আঠারো সালে ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে সবার নজর কারেন। নিজের মেধা ও যোগ্যতার পরিচয় দিয়ে উঠে আসেন ফাইনালের মঞ্চে। কিন্তু একটুর জন্য ভাগ্য দেবী সহায়ক না হওয়ায় চ্যাম্পিয়ন হতে পারেনি। হন প্রথম রানার্সআপ। বর্তমানে সালওয়া ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজী সাহিত্যে অধ্যয়নরত রয়েছেন। ‘স্বপ্নে দেখা রাজকন্যা’ সালওয়া কখনও স্বপ্ন দেখেননি চলচ্চিত্রে কাজ করবেন। তবে সুন্দরী প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়ার পর চলচ্চিত্রে কাজের প্রস্তাব পান। প্রথমে পরিবারের অনিহা থাকলেও পরে মেয়ের ইচ্ছেকে গুরুত্ব দেন। এখন সালওয়ার ভাবনাজুড়ে চলচ্চিত্র। শোবিজে নিজেকে একজন অভিনেত্রী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করার মনোবাসনা নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন। দুঃখের সঙ্গে বলতে হয় বাংলা চলচ্চিত্রের সঙ্কটকাল। ক্রমেই বন্ধ হয়ে যাচ্ছে সিনেমা হল। কমে আসছে সিনেমা নির্মাণের সংখ্যা। বছরে যে ছবিগুলো নির্মিত হয় তার মধ্যে দু-একটি ছবি ব্যবসা করতে পারে। বাকি ছবিগুলোতে গুনতে হয় লোকশন। এমন সঙ্কটময় সময় কি মনে করে সিনেমায় আগ্রহী হলেন? জানতে চাইলে নবাগত এই নায়িকা আনন্দকণ্ঠকে বলেন, প্রথম ছবিতে অভিনয়ের পর চলচ্চিত্রর প্রতি ভালবাসা তৈরি হয়। ক্রমেই সেই ভালবাসার পরিধি বাড়ছে। চলচ্চিত্রর প্রেমে পরে গেছি। তাই চলচ্চিত্র ঘিরে স্বপ্ন বুনেছি। শোবিজে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে চাই। সবার সহযোগিতা পেলে কাক্সিক্ষত স্বপ্নটি পূরণ করতে পারব। আশা রাখি সিনেমার ক্রান্তিকাল দূর হয়ে সুদিন ফিরবে। সালওয়ার ভবিষ্যত পরিকল্পনা এখন চলচ্চিত্র ঘিরে।

বলছিলেন চলচ্চিত্রর প্রেমে পড়েছেন। বাস্তবের প্রেম দেখা দিয়েছে কি? কোন কিছু না ভেবে অকপটে আনন্দকণ্ঠের কাছে স্বীকার করেন প্রথম প্রেমের কথা। বলেন, কলেজে পড়াকালীন তার একটি প্রেম হয়েছিল। আড়াই বছর চুটিয়ে প্রেম করার পর তাদের প্রেমে ফাটল ধরে। তবে প্রথম প্রেমটিকে শুধুই স্বপ্ন হিসেবে দেখেন। যেটি অধরাই থেকে গেছে। দ্বিতীয় প্রেমে সালওয়ার আগ্রহ নেই। ভাবছেন বিয়ের কথা। পাত্র হিসেবে চাচ্ছেন সিলেটের ছেলে। কারণ সালওয়ার বাড়ি সিলেট বিয়ানীবাজার। দুই বোনের মধ্যে সালওয়া ছোট। পরিবার তাকে সিলেটের বাইরে বিয়ে দেবেন না। তবে নিজেকে শোবিজে প্রতিষ্ঠিত করেই পরিবারের ইচ্ছে বিয়ে করবেন এই সুন্দরী।

প্রকাশিত : ১৯ মার্চ ২০২০

১৯/০৩/২০২০ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: