২১ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

এফএম রেডিওর বাংলিশ


হাসান তৌফিক পারভেজ

বাংলা ভাষার শত্রু আমাদের মধ্যেও কম নেই! বলতে বাধ্য হচ্ছি যে, ইদানীং তথাকথিত এফএম ব্যান্ড রেডিওগুলো যেভাবে ‘বাংলা’ ভাষার চর্চা করে যাচ্ছে তাকে কী বলা যাবে? সেটাকে কি শুদ্ধ বাংলা ভাষার চর্চা বলা যাবে? তাদের বাংলা ভাষার উচ্চারণের নমুনা শুনলে মনে দ্বিধা লাগে সত্যিই কী বাংলা ভাষা শুদ্ধরূপে এভাবে উচ্চারণ করতে হয়? ভাবতে অদ্ভুত লাগে ওই সব রেডিও বাংলা ভাষাকে এভাবে উচ্চারণ করার সাহস পায় কোথা থেকে বা অনুমোদন পায় কোথা থেকে। ভাবলে আশ্চর্য হতে হয় ওইসব রেডিও থেকে বর্তমান প্রজন্ম কী শিখছে? সেটা কি বাংলা ভাষা নাকি অন্য ভাষা? এ দেশের কর্তাব্যক্তিরা এসব নিয়ে কি মাথা ঘামাচ্ছেন নাকি এসব নিয়ে মাথা ঘামানোর প্রয়োজন মনে করছেন না? ওরা বাংলা ভাষার নামে যা চর্চা করছে তাকে ‘বাংলিশ’ ছাড়া অন্য কোন ভাষাই বলা যাবে না। ওরা যেভাবে এক একটি বাংলা শব্দ উচ্চারণ করছে একমাত্র ওরা এবং ওদের তথাকথিত ‘শ্রোতা’ ছাড়া সে বাংলা ভাষা বোঝার ক্ষমতা অন্য কারোর আছে কিনা সে বিষয়ে আমার সন্দেহ হয়। বাংলা ভাষার এসব শত্রুকে আজই রুখতে হবে। বাংলা ভাষার মিত্র কারা কারা? সেটা স্বাভাবিকভাবেই বোঝা যায় যে, যেসব বিদেশী তাদের নিজ ভাষা ছাড়াও বাংলা ভাষা নিয়ে চর্চা করছেন তারা বাংলা ভাষার মিত্র। তাদের সাধুবাদ দিতে হয় যে, তারা অন্য ভাষা চর্চার ক্ষেত্রে বাংলাকে বেছে নিয়েছেন বলে। যা আমাদের জন্যও একটি শ্লাঘার বিষয়। অর্থাৎ বলা যায় যে, ধীরে ধীরে বাংলা ভাষা আন্তর্জাতিক পরিম-লে পরিচিতি লাভ করছে বিধায় অন্য ভাষার মানুষজনও বাংলাকে চর্চার বিষয় হিসেবে বেছে নিয়েছেন। বলাই বাহুল্য যে, এটাই আমাদের মাতৃভাষার সার্থকতা।

মিরপুর, ঢাকা থেকে