ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৩ আশ্বিন ১৪২৯

নান্দাইলের ‘পিঠার রানী’

মজিবুর রহমান ফয়সাল

প্রকাশিত: ০১:৫৬, ২৩ আগস্ট ২০২২

নান্দাইলের ‘পিঠার রানী’

নান্দাইলের ‘পিঠার রানী’

আমাদের গ্রামীণ সমাজে ভাপা পিঠা, পুলি পিঠা, চিতই পিঠা, পাটিসাপটাসহ নানা ধরনের পিঠার প্রচলন রয়েছেবিয়ে অথবা নানা পার্বণ উপলক্ষে অতিথি আপ্যায়নে গ্রামের বধূরা এসব পিঠা তৈরি ও পরিবেশন করে থাকেনবিশেষ করে বাড়িতে নতুন জামাইয়ের আগমনে পিঠা ছাড়া আপ্যায়ন কল্পনা করা যায় নাতবে গতানুগতিক পিঠার বাইরে ব্যতিক্রমী এক পিঠা নিয়ে এসেছেন নান্দাইলের শিপলু আক্তার খানম (৩২) নামে এক নারীতিনি মাছের পিঠা তৈরি করে তা অনলাইনে বাজারজাত করেনএখন সবাই তাকে চেনেন পিঠার রানীনামে

শিপলু আক্তার পৌরসভার ভূঁইয়াপাড়া মহল্লার বাসিন্দাতার স্বামী  কামরুজ্জামান খান একটি ইলেকট্রনিক্স কোম্পানিতে চাকরি করেনশিপলু একটি বেসরকারী সংস্থায় প্রায় দেড় যুগ চাকরি করেছেনএরপর করোনাকালে তাকে চাকরি হারাতে হয়চাকরি হারিয়ে বিপাকে পড়লেও ভেঙে পড়েননিভূঁইয়াপাড়া মহল্লায় তাদের মাছ চাষের পুকুর রয়েছেএকদিন মহল্লায় মস্যচাষীদের নিয়ে মাছ চাষের বিষয়ে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা নেয় উপজেলা মস্য বিভাগশিপলুও ওই প্রশিক্ষণে অংশ নেয়

প্রশিক্ষণ শেষে শিপলু মস্য কর্মকর্তাসহ প্রশিক্ষণে অংশ নেয়া সকলকে মাছের পিঠা খাওয়ালেনতার তৈরি মাছের পিঠা খেয়ে সকলেই প্রশংসায় পঞ্চমুখযাবার সময় তকালীন মস্য কর্মকর্তা আরিফ হোসেন মাছের পিঠা নিয়ে শিপলু আক্তারকে বাণিজ্যিক চিন্তা ভাবনা করার পরামর্শ দেনএরপরই নান্দাইলের নারী উদ্যেক্তার মাছের পিঠানামে ফেসবুক আইডি খুলে পিঠা বিক্রি শুরু করেননানা ধরনের মাছ দিয়ে পিঠা তৈরি করে নিজের ফেসবুক আইডিতে আপলোড করে বেশ ভাল সাড়া পানএখন সবাই এখন তাকে চেনেন পিঠার রানীনামেআবহমান বাংলার গতানুগতিক পিঠার বাইরে ব্যতিক্রমী পিঠা তৈরি করে বাণিজ্যিকভাবে দেশের সর্বত্র সরবরাহ করে যাচ্ছেন তিনি

শিপলু জানান, তার নিজস্ব পুকুর রয়েছেসেই পুকুরে তিনি মাছ চাষ করেনপিঠা তৈরির প্রধান উপকরণ তাজা মাছসেটি তিনি তার নিজের পুকুর থেকে সংগ্রহ করেনআর যেসব উপকরণ প্রয়োজন হয় তা বাজারে কিনতে পাওয়া যায়পরিমাণমতো সব উপকরণ একত্রিত করে মাছের পিঠা তৈরি করেন