ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০

ফ্যাশনে বিজয়

জলি রহমান

প্রকাশিত: ০১:৪৮, ১১ ডিসেম্বর ২০২৩

ফ্যাশনে বিজয়

.

কর্মময় সময় দ্রুত চলে যায়। কখন যে সকালের সোনালি আভা সন্ধ্যার রক্তিম আলোয় রূপ নেয় টেরই পাওয়া যায় না। একইভাবে মনে হয়, এই তো সেদিন ক্যালেন্ডারে জানুয়ারি মাস ছিল। অথচ এখন ডিসেম্বরের পাতাটা উল্টালেই এর প্রয়োজনীয়তা শেষ। কিন্তু এই বারোটি মাস বিভিন্ন রঙ ছড়ায় বাঙালির মনে। যা ফুটে ওঠে তার পোশাকে। ঋতু বৈচিত্র্যের নানা নকশা আর বাঙালির ঐতিহ্য দেখা যায় নারী-পুরুষের পোশাকে। শুরু হয়েছে বাঙালির গৌরবান্বিত বিজয়ের মাস ডিসেম্বর। নয় মাস সংগ্রাম করে দেশ অর্জন করেছে স্বাধীনতা। আমাদের আছে লাল সবুজ রঙের একটি নিজস্ব পতাকা। রঙগুলো উজ্জীবিত করে ফ্যাশন হাউসগুলো তৈরি করছে নান্দনিক পোশাক। বিজয় দিবস উপলক্ষে বিজয়ের রঙে কাপড়ের ক্যানভাস রাঙিয়েছেন ডিজাইনাররা তাদের সৃজনশৈলীতে। ফ্যাশন হাউসগুলো নান্দনিক ডিজাইনে তৈরি বিজয় দিবস কালেকশনকে হাজির করেছে ভোক্তার কাছে। শুধু বিজয় দিবসের দিনেই নয়, ডিসেম্বর মাসের অন্যান্য দিনেও লাল-সবুজ রঙের আধিক্য দেখা যায় পোশাকে। এখন প্রতিটি ফ্যাশন হাউসের আয়োজনেই রয়েছে বিজয় দিবস কালেকশন। যেখানে লাল আর সবুজ দুটো রঙই প্রাধান্য পেয়েছে। মোটিফ হিসাবে হাউসগুলো মুক্তিযুদ্ধের নানা বিষয়কে বেছে নিয়েছে।

ফ্যাশন ব্র্যান্ড রঙ বাংলাদেশের পোশাকের ডিজাইনে আছে জাতীয় পতাকার ছাপ, বাংলাদেশের মুদ্রা জিওমেট্রিক থিম। লাল-সবুজ কালার কম্বিনেশনে পোশাকে তুলে ধরা হয়েছে বিজয় উল্লাসের ছাপ। বিজয় উৎসবের পোশাক হিসেবে তৈরি করা হয়েছে পাঞ্জাবি, শাড়ি, কামিজ, টিউনিক, উত্তরীয় ব্যান্ডেনা। যা ছোট-বড় সকলের জন্য সমানভাবে মানানসই। দেশে এবং দেশের বাইরে পজিটিভ বাংলাদেশকে তুলে ধরতে চাওয়ার প্রত্যাশায় গড়া আমার বাংলাদেশ সাব-ব্র্যান্ডের অধীনে তৈরি হয়েছে সকল সামগ্রী। কেবল বড়দের নয়, প্রতিটি উপলক্ষে ছোটদের পোশাককে সমান গুরুত্ব দিয়ে বাচ্চাদের সংগ্রহও হয় বিশেষভাবে আকর্ষণীয়। রয়েছে পরিবারের সবার জন্য একই ধরনের ম্যাচিং পোশাক। রঙ বাংলাদেশের ঢাকা ঢাকার বাইরের সকল আউটলেটেই পাওয়া যাচ্ছে বিজয় উৎসবের আয়োজন। এছাড়া অনলাইন প্ল্যাটফর্মে বিজয় উৎসবের পণ্য ক্রয়ে ভিজিট করুন www.rang-bd.com  অথবা রঙ বাংলাদেশের ফেসবুক পেজে যে কোনো প্রয়োজনে যোগাযোগ করুন।

কে ক্র্যাফ্টের এবারের আয়োজনে মেয়েদের জন্য রয়েছে লাল সবুজের শাড়ি। এছাড়াও আরামদায়ক সালোয়ার-কামিজ, কুর্তি কিংবা ভিন্ন প্যাটার্নের টপ বা টিউনিক। শীতে উষ্ণতার প্রয়োজনে অন্য কোনো রঙের পোশাকে জড়িয়ে নিতে লাল-সবুজের শাল। প্রতিবছরের মতোই ছেলেদের পোশাকে থাকছে পাঞ্জাবি, শার্ট, টি-শার্ট, শাল, কটি, মাফলার। বিজয়ের ফ্যাশনে লাল অথবা সবুজ রঙের পাঞ্জাবির সঙ্গে মিলিয়ে পড়তে কটি বেছে নিতে রয়েছে চমৎকার সব সংগ্রহ।

শিশুদের জন্য রয়েছে নানা পোশাকের আয়োজন। এছাড়াও বরাবরের মতোই রয়েছে যুগল পরিবারের সকল সদস্যের সঙ্গে মিলিয়ে পরার জন্য নান্দনিক পোশাক। কে ক্র্যাফ্টের ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট, কুমিল্লা খুলনাসহ সকল আউটলেট ছাড়াও অনলাইন শপ শধুশৎধভঃ.পড়স থেকে বিজয়ের পোশাক কিনতে পারেন বিশেষ সাশ্রয়ী মূল্যে। এছাড়া ফেসবুক পেজ থেকেও কেনাকাটা করার সুবিধা আছে।

দেশীয় ফ্যাশন হাউজ ছাড়াও যেকোনো মার্কেটেই এখন পাওয়া যাচ্ছে বিজয়ের ঐতিহ্য ধারণকৃত নানা পোশাক। দামও রয়েছে নাগালের মধ্যে। যারা কর্মব্যস্ততায় মার্কেটে যাওয়ার সময় পান না, তারা অনলাইন থেকেও কিনতে পারেন পছন্দের পোশাকটি।

×