ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১

কেন্দ্রীয় ঔষধাগারে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর ঝটিকা অভিযান

প্রকাশিত: ১৮:৩২, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

কেন্দ্রীয় ঔষধাগারে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর ঝটিকা অভিযান

কেন্দ্রীয় ঔষধাগার

রাজধানীর তেজগাঁও এলাকায় কেন্দ্রীয় ঔষধাগারে (সেন্ট্রাল মেডিকেল স্টোরস ডিপো) ঝটিকা পরিদর্শন করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন।

রবিবার দুপুর ১টা ৫০ মিনিট থেকে ২টা ২৫ মিনিট পর্যন্ত পুরো প্রতিষ্ঠান ঘুরে দেখেন তিনি। এ সময় বিভিন্ন অনিয়ম চোখে পড়ে। তবে এ নিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর প্রশ্নের কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি সেখানকার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা। 

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ তথ্য কর্মকর্তা মো. মাইদুল ইসলাম প্রধানের স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, দুপুরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব মো. জাহাঙ্গীর আলম এবং স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এবিএম খুরশীদ আলমকে সঙ্গে নিয়ে কেন্দ্রীয় ঔষধাগারে ঝটিকা অভিযানে নেতৃত্ব দেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন।  স্বাস্থ্যমন্ত্রী প্রায় ৩৫ মিনিট পুরো স্টোরেজ ঘুরে ফিরে দেখেন এবং সেখানে উপস্থিত কর্মকর্তাদের বিভিন্ন বিষয়ে জিজ্ঞাসা করেন। 

স্বাস্থ্যমন্ত্রী এ সময় সেখানে শত শত কার্টন ভর্তি নানারকম জরুরি স্বাস্থ্যসেবা সামগ্রী অকেজো অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন এবং নানা বিষয়ে অনিয়ম দেখতে পান। নানা রকম জরুরি স্বাস্থ্যসেবার পণ্য সেখানে অনেক দিন ধরে অব্যবহৃত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন মন্ত্রী। অনেক জরুরি পণ্য অব্যবহৃত অবস্থায় সেখানে মেয়াদ শেষ হয়ে গেল কীভাবে তা উপস্থিত ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জিজ্ঞেস করেন। স্বাস্থ্যমন্ত্রীর অধিকাংশ প্রশ্নেরই উত্তর দিতে পারেননি উপস্থিত কর্মকর্তারা। 

স্বাস্থ্যমন্ত্রী এসব অনিয়ম দেখে এই স্টোরেজের সব মালামালের তালিকাসহ, কোন মালামাল কত তারিখে ডেলিভারি হয়েছে এবং আগামীতে কোন পণ্য কবে ডেলিভারি করা হবে সেগুলোসহ, কেন এত বিরাট সংখ্যক মালামাল নষ্ট হয়ে পড়ে আছে তার কারণ জানিয়ে আগামী সাত দিনের মধ্যে লিখিত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। 

স্বাস্থ্যমন্ত্রী সেখানে উপস্থিত স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব মো. জাহাঙ্গীর আলম ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এবিএম খুরশীদ আলমকে এই প্রতিবেদন নির্দিষ্ট সময়ে সংগ্রহ করে উপযুক্ত ব্যবস্থা নিতে একটি জরুরি বৈঠকে বসার কথা জানান।

 

এস

×