ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ২৪ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

যুক্তরাষ্ট্রে ‘প্রিয়তমা’ দেখে আবেগে আপ্লুত শাকিব খান

প্রকাশিত: ১৬:৩২, ২ আগস্ট ২০২৩

যুক্তরাষ্ট্রে ‘প্রিয়তমা’ দেখে আবেগে আপ্লুত শাকিব খান

চিত্রনায়ক শাকিব খান

ঢাকাই সিনেমার শীর্ষ নায়ক শাকিব খানের ‘প্রিয়তমা’ সিনেমা গেল ঈদে মুক্তি পেয়েছিল। ইতোমধ্যেই দেশের ইতিহাসের অন্যতম ব্যবসা সফল ছবিতে পরিণত হয়েছে এটি। ঈদের দিন দেশের প্রেক্ষাগৃহে ‘প্রিয়তমা’ মুক্তি পেলেও হলে গিয়ে ছবিটি দেখার সুযোগ হয়নি শাকিব খানের। সেসময় জানিয়েছিলেন, যুক্তরাষ্ট্রে গিয়ে প্রেক্ষাগৃহে উপস্থিত হয়ে সিনেমাটি দেখবেন তিনি। 

সেই কথাই রাখলেন এই নায়ক। যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে জ্যামাইকা মাল্টিপ্লেক্স সিনেমাসে ‘প্রিয়তমা’ দেখেছেন ঢালিউড সুপারস্টার। এসময় তার সঙ্গে ছিলেন নির্মাতা হিমেল আশরাফ, অভিনেত্রী নওশীন নেহরিন মৌ, অভিনেতা সৈয়দ আদনান ফারুক ও প্রধানমন্ত্রীর সাবেক উপ-প্রেস সচিব আশরাফুল আলম খোকন।

এদিন প্রেক্ষাগৃহে নিজের সিনেমা দেখে আবেগতাড়িত হয়ে পড়েন শাকিব খান। ছবিটির শেষে দর্শক ও সাংবাদিকরা করতালি দিয়ে নায়ককে অভিনন্দন জানান। এসময় শাকিবের চোখে জল দেখা যায়। 

এদিকে তখনকার সেই মুহুর্ত নিয়ে এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে হিমেল আশরাফ লিখেছেন, ২০১৭ সালে ‘প্রিয়তমা’ বানানোর ঘোষনার পরে আমাকে আমেরিকা চলে আসতে হয় জীবনের প্রয়োজনে। তারপর থেকে আজ পর্যন্ত আমাকে মিডিয়াতে ছোট করে হলেও বাঁচিয়ে রেখেছিলেন শাকিব খান। আমি দেশে উপস্থিত ছিলাম না, এরপরেও তার প্রায় প্রতিটা সিনেমার অনুষ্ঠানে তিনি আমার কথা বলতেন, আমার নাম বলতেন। 

হিমেল আরও বলেন, ‘প্রিয়তমা’ না করতে পারার পরেও রাজকুমার ও মায়া নামের দুইটা সিনেমায় আমার নাম ঘোষনা করার পরে মোটামুটি সবাই টিটকারি মেরে হেসেছেন। তাকে সবাই বলতেন, হিমেলকে দিয়ে হবে না। নাটকের ছেলে, নাটক বানায় ফেলবে। কেউ বলতেন, ওর প্রথম সিনেমা ভালো যায় নাই, কুফা ভাই নিয়েন না। কেউ কেউ বলেছে. শাকিব ভাই ভুল করতেছেন, ও তো নাটকের কিছু করতে পারে নাই, পরে বুঝবেন। ৯৯ ভাগ মানুষ শাকিব ভাইয়ের কাছে আমার নামে নেগেটিভ মন্তব্য করতেন। কিন্তু কোন এক অদ্ভুত কারণে উনি আমার উপর আস্থা পেতেন। প্রায়ই বলতেন তুই একদিন বড় ডিরেক্টর হবি হিমেল। 

এই নির্মাতা লেখেন, আমি আজও জানিনা তিনি আসলে কেন বলতেন এই কথা। শুধু আমাকে না, আমার অনুপস্থিতিতেও তিনি খুবই কনফিডেন্সের সাথে বলতেন, হিমেল ভালো সিনেমা বানাবে। তার কথা শুনে মানুষ মুচকি হাসতো। 

শাকিবের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে হিমেল বলেন, আজ ‘প্রিয়তমা’ দেখা শেষে তার ভেজা চোখে চোখ পরতেই আমাকে দেখে হেসে, কাধে হাত রেখে কিছু না বলেও যেন কত কিছু বললেন। আর আমি তার বিজয়ের হাসি দেখে মনে মনে বার বার বলছিলাম, ‘ভাইয়া থ্যাংক ইউ’।

সর্বশেষ হিমেল লিখেছেন, শাকিব খানের ব্যস্ত শিডিউলে হয়ত তার সাথে আমার অনেক কাজ হবে না, কিন্তু একজন নির্মাতা হিমেল আশরাফ আজীবন শাকিব খানের কাছে ঋণী হয়ে থাকবে।

 

 

এস

সম্পর্কিত বিষয়:

×