ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১

সমালোচনা সামলাতে মুখ খুললেন আশিস

প্রকাশিত: ১৩:৫৮, ২৭ মে ২০২৩

সমালোচনা সামলাতে মুখ খুললেন আশিস

আশিস দম্পতি

৬০ বছর বয়সে জীবনের নতুন অধ্যায় শুরু করলেন অভিনেতা আশিস বিদ্যার্থী। পোশাকশিল্পী রূপালি বড়ুয়ার সঙ্গে দ্বিতীয় বার ঘর বাঁধলেন অভিনেতা। যদিও এর আগে স্ত্রী রাজশী বিদ্যার্থীর সঙ্গে ২২ বছরের দাম্পত্য কাটিয়েছেন অভিনেতা। অভিনেত্রী শকুন্তলা বড়ুয়ার কন্যা তিনি। 

প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে বিচ্ছেদের পর ফের দ্বিতীয় বিয়ে করার খবর প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই তাকে ঘিরে চলছে নানা বিতর্ক, নিন্দে-চর্চা। অবশেষে সে সব কটাক্ষের জবাব দিলেন অভিনেতা। তার সাফ কথা, ভাল থাকার অধিকার সবার আছে।

২৬ মে রাতে ফেসবুকে লাইভ করেন আশিস। সেখানে তিনি যেমন তার প্রাক্তন স্ত্রী রাজশী ওরফে পিলু বিদ্যার্থীকে নিয়ে কথা বলেন, তেমনই বর্তমান স্ত্রী রূপালি বড়ুয়াকে নিয়ে নানা অজানা কথা জানান।

স্বামী দ্বিতীয় বিয়ের খবরে প্রথমে হয়তো কষ্টই পেয়েছিলেন তার প্রাক্তন স্ত্রী রাজশী বড়ুয়া। তবে সামলে নিয়েছেন নিজেকে। পরে রাজশীর বলেন, আশিস আমায় কোনও দিন ঠকায়নি। আমরা দারুণ জুটি ছিলাম। একসঙ্গে বেড়াতে যেতাম। আমাদের মধ্যে খুব মিল ছিল। আমাদের সন্তানও হয়েছে তেমনই সুন্দর। 

পাশাপাশি স্বামীর দ্বিতীয় বিয়ে প্রসঙ্গে নিয়ে অভিনেতার প্রথম স্ত্রী বলেন, আমার বিয়ের দরকার পড়লে আমিও করতাম। আশিস করেছে, এতে সমস্যা কী? 

এবার আশিস বলেন, দিন শেষে আমরা সবাই কিন্তু খুশি থাকতে চাই। আর এই খুশির জন্য আজ থেকে ২২ বছর আগে আমি ও পিলু একে অন্যের হাত ধরেছিলাম। আমাদের জীবনে আমাদের সন্তান অর্থ আসে। তারও এখন বয়স ২২। কিন্তু এত সুন্দর একটা সময় কাটানোর পর আমরা বুঝতে পারি আমরা ভাল নেই। আমরা বুঝতে পারি, আমরা ভবিষ্যৎটা আলদাভাবে দেখি। বিয়ে টিকিয়ে রাখার চেষ্টা করেছি।

পাশপাশি দ্বিতীয় স্ত্রী রূপালির সঙ্গে আলাপ থেকে বিয়ের সিদ্ধান্ত নেওয়া গোটাটাই খোলসা করলেন। অভিনেতার কথায়, এই ভাবনাটা এখন এসেছে তেমনটা নয়, দুই বছর আগেই ভেবেছিলাম। আমার বয়স যখন ৫৫ বছর, তখন আমি সিদ্ধান্ত নিই, আমি আবার বিয়ে করব। সেই সময় রূপালির সঙ্গে আলাপ। তারপর গত বছর আমরা দেখা করি। তখনই আমরা একে অন্যের প্রতি টান অনুভব করি। মনে হল, পড়ে থাকা জীবনটা স্বামী-স্ত্রী হিসাবে কাটিয়ে দিতে পারব।

একটা লম্বা সময় পার করে ৫৭-তে এসে ফের বিয়ের সিদ্ধান্ত নেওয়ায় যে কটাক্ষের মুখে পড়তে হয় জবাবে অভিনেতা বলেন, একটু সংশোধন করে দিই- আমার বয়স ৫৭, তার বয়স ৫০। কিন্তু তাতে কী এসে যায়? সম্মানের সঙ্গে এগিয়ে যাওয়াই বুদ্ধিমানের কাজ।

 সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

এসআর

×