সোমবার ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৬ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

সোনারগাঁয়ে ২ এস আই নিহত : গাড়ি চালাচ্ছিলেন মামলার আসামি

সোনারগাঁয়ে ২ এস আই নিহত : গাড়ি চালাচ্ছিলেন মামলার আসামি

অনলাইন রিপোর্টার ॥ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ পৌরসভার দত্তপাড়া এলাকায় দুই উপপরিদর্শক (এসআই) নিহত হওয়ার ঘটনায় পালিয়ে যাওয়া সেই আসামিকে ১৯ ঘণ্টা পরও ধরতে পারেনি পুলিশ। তবে পুলিশের একাধিক সূত্র জানিয়েছে, ওই আসামিকে দিয়ে গাড়ি চালানো হচ্ছিল। এ সুযোগে ওই আসামি গাড়ি খাদে ফেলে পালিয়ে যান।

পুলিশের একাধিক সূত্র জানায়, সোনারগাঁয়ের মেঘনা টোল প্লাজায় তল্লাশিচৌকিতে একটি গাড়িকে থামার জন্য সংকেত দেওয়ার পর সেটি এক কনস্টেবলকে আহত করে দ্রুত পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। পরে ধাওয়া করে আলমগীর হোসেন নামের একজনকে গাড়িসহ ধরতে সক্ষম হয় পুলিশ। এ সময় তার কাছ থেকে ৪২ হাজার ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়।

এরপর আলমগীরকে জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে আনা হয়। এ সময় তিনি গাড়ি চালিয়েছিলেন। এসপি কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন শেষে তাকে নিয়ে আবার থানায় যাওয়ার জন্য রওনা দেন এসআই শরীফুল ইসলাম ও কাজী সালেহ এবং এএসআই রফিকুল ইসলাম। তবে তাদের তিনজনের কেউই গাড়ি চালাতে পারতেন না।

ফলে তারা ইয়াবা মামলার আসামি আলমগীরকে আবারও গাড়ি চালানোর দায়িত্ব দেন। সোনারগাঁ পৌরসভার দত্তপাড়া এলাকায় একটি পুকুরের পাশে এলে গাড়িটি ফেলে দিয়ে আসামি লাফ দিয়ে নেমে পালিয়ে যান। এতে দুই এসআই নিহত হন। গুরুতর আহত হন এএসআই।

নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি) মোস্তাফিজুর রহমান জানান, সোমবার সন্ধ্যা পৌনে ৭টার দিকে এ ঘটনা ঘটার পর আসামি পালিয়ে যায়। তাকে এখনো ধরা যায়নি। তিনি আরও জানান, আসামির কাছ থেকে উদ্ধার হওয়া ইয়াবা পানিতে পড়ে যাওয়ায় কিছু গলে গেছে, বাকিগুলো উদ্ধার করা হয়েছে।

সোনারগাঁ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) এস এম শফিকুল ইসলাম জানান, নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে একটি প্রেস ব্রিফিং শেষে সোনারগাঁ থানায় আসামিকে আনার সময় এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ সময় স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কাজী সালেহ আহম্মেদ ও শরিফুল ইসলামকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

প্রসঙ্গত, সোমবার (১৭ জানুয়ারি) সন্ধ্যা পৌনে ৬টার দিকে সোনারগাঁ পৌরসভার দত্তপাড়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ সময় এসআই শরীফুল ইসলাম ও কাজী সালেহ নিহত হন। তারা দুজন সোনারগাঁ থানায় কর্মরত ছিলেন। শরীফুল ইসলাম গোপালগঞ্জের সদর উপজেলার চরভাইপাড়া এলাকার ইউসুফ আলীর ছেলে। আর কাজী সালেহ ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার মুনসুরাবাদ গ্রামের কাজী নুরুল ইসলামের ছেলে।

এ ঘটনায় এক সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) রফিকুল ইসলাম আহত হয়েছেন। তাকে রাজারবাগ পুলিশ লাইনস হাসপাতালে পাঠানো হয়।

শীর্ষ সংবাদ:
সরকারি-আধা সরকারি প্রতিষ্ঠান থেকে বিদেশ ভ্রমণ বন্ধ         ‘শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তনে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার পথ সুগম হয়’         ‘রাজধানীতে বসে সমালোচনা না করে গ্রামে গিয়ে পরিবর্তনটা দেখুন’         ডলার : কেন্দ্রীয় ব্যাংক বেঁধে দিল সাড়ে ৮৭ টাকা, খোলা বাজারে ৯৭         অর্থ পাচারকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে সরকার : তথ্যমন্ত্রী         ভারতের রপ্তানি নিষেধাজ্ঞায় বিশ্বব্যাপী বেড়েছে গমের দাম         পি কে হালদারের দুই কোম্পানির শেয়ারের দাম বাড়ল লাফিয়ে         ৮ পদের ওষুধের নিবন্ধন বাতিল করলো ঔষধ প্রশাসন         পুরস্কার পাবেন মাঠ পর্যায়ে ভূমির সেরা কর্মকর্তা-কর্মচারীরা         করোনা : ২৪ ঘণ্টায় কারও মৃত্যু হয়নি         ইভ্যালির রাসেল ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি         আশুলিয়ায় কুকুরের মাংস দিয়ে বিরিয়ানি, গ্রেফতার ১         ৬৫ দিন মাছ ধরা বন্ধ : তিন লাখ জেলের জন্য বরাদ্দ পৌনে ১৭ হাজার টন চাল         চলতি সপ্তাহে আত্মসমর্পণ করছেন না হাজী সেলিম         ‘বাংলাদেশের পরিস্থিতি শ্রীলঙ্কার মতো হওয়ার সুযোগ নেই’         নিবন্ধন ছাড়া কেউ ব্যবসা করতে পারবে না ॥ তাপস         আমরা বৈশ্বিক সমস্যার মধ্যে আছি ॥ বাণিজ্যমন্ত্রী         দেশে ফিরতে চান পি কে হালদার         সম্রাটের উন্নত চিকিৎসা দরকার ॥ বিএসএমএমইউ         স্পেনকে বাংলাদেশে বিনিয়োগের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর