বুধবার ৬ মাঘ ১৪২৮, ১৯ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

ঝিনাইগাতী সীমান্তে হাতি তারানো সোলার ফেন্সিং কাজে আসছে না গ্রামবাসীদের

ঝিনাইগাতী সীমান্তে হাতি তারানো সোলার ফেন্সিং কাজে আসছে না গ্রামবাসীদের

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঝিনাইগাতী, শেরপুর ॥ শেরপুর সীমান্তে হাতি তাড়ানোর সোলার ফেন্সিং কাজে আসছে না গ্রামবাসীদের। ফলে থেকেই গেল বন্যহাতির তান্ডবে গ্রামবাসীদের দুঃখ-দুর্দশা। গত প্রায় ২ যুগ ধরে সীমান্তবর্তী পাহাড়ি গ্রামবাসীরা বন্যহাতির তান্ডবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে। উপর্যপুরি বন্যহাতির তান্ডবে জান-মাল ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি সাধিত হয়। ফলে নিদ্রাহীনভাবে রাত্রী যাপন করছেন পাহাড়ি গ্রামবাসীরা।

বন্যহাতির কবল থেকে পাহাড়ী গ্রামবাসীদের জান-মাল রক্ষার্থে ২০১৬ সালে জেলার সীমান্তে হাতি কবলিত পাহাড়ি গ্রামগুলোতে স্থাপন করা হয় সোলার ফেন্সিং (বৈদ্যুতিক তারের বেড়া)। যা দিয়ে হাতি আক্রান্ত হবে, কিন্তু মারা যাবে না। গারো পাহাড়ের ১৩কিলোমিটার এলাকাজুড়ে এ সোলার ফেন্সিং স্থাপন করা হয়। এতে সরকারের ব্যয় হয় প্রায় ১কোটি টাকা। বন-বিভাগের বন্য প্রাণী অধিদফতরে তদারকিতে এ কাজটি সম্পন্ন করা হয়। ঝিনাইগাতীর গুরুচরণ দুধনই ৪.৫ কিলোমিটার, ছোট গজনী ৩ কিলোমিটার, বড় গজনী-হালচাটি ৩.৫ কিলোমিটার এবং নালিতাবাড়ীর মায়াগাছীতে ২কিলোমিটার এলাকা জুড়ে স্থাপন করা হয় সোলার ফেন্সিং। কিন্তু নিম্নমানের কাজ করায় নির্মান কাজ শেষ না হতেই তা অকেজো হয়ে পড়ে।

উপজেলা ট্রাইবাল ওয়েল ফেয়ার এসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান নবেস খকশী ও কাংশা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জহুরুল হক বলেন, ঠিকাদার কর্তৃক নিম্ন মানের কাজ করায় নির্মান কাজ শেষ না হতেই তা অকেজো হয়ে পড়ে। ফলে হাতি তাড়ানোর ক্ষেত্রে তা গ্রামবাসীদের কোনই কাজে আসছে না।

এব্যাপারে ঝিনাইগাতী উপজেলার রাংটিয়া রেঞ্জ কর্মকর্তা সুমন মিয়ার সাথে কথা হলে তিনি বলেন, গ্রামবাসীদের অসচেতনতা ও সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কর্মকর্তাদের তদারকীর অভাবে সোলার ফেন্সিংটি অকেজো হয়ে পরেছে।

তিনি আরো বলেন, সোলার ফেন্সিং সচল করতে বন বিভাগের পক্ষ থেকে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে।

শীর্ষ সংবাদ:
একদিনে করোনায় ১২ মৃত্যু, শনাক্ত ৯৫০০         ‘মাসুদ রানা’খ্যাত কাজী আনোয়ার হোসেন আর নেই         ‘বাংলাদেশের অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রা কেউ থামাতে পারবে না’         বাংলাদেশ ব্যাংকের ৪ কর্মকর্তাকে দুদকে তলব         করোনার সংক্রমণের উচ্চ ঝুঁকিতে ১২ জেলা         আপাতত বাড়ছে না ভোজ্যতেলের দাম         শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে রিট         প্রথম দিনে সেফুদার বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ হয়নি         আগামীকাল থেকে উপজেলাতেও ওএমএসে চাল-আটা বিক্রি         দখলদারদের উচ্ছেদ ও অবৈধ ইটভাটা বন্ধে ডিসিদের নির্দেশ         পরিবহন শ্রমিকদের টিকা দেওয়া শুরু         শিমুকে হত্যার পর নিখোঁজের জিডি করেন স্বামী         বিশ্বজুড়ে করোনায় আরও ৯৬৬৯ মৃত্যু         ফুটপাতে নির্মাণসামগ্রী ॥ মেয়র আতিকের ক্ষোভ প্রকাশ