রবিবার ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৮ নভেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

পদত্যাগ করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ আফগানিস্তান দূত খলিলজাদ

পদত্যাগ করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ আফগানিস্তান দূত খলিলজাদ

অনলাইন ডেস্ক ॥ যুক্তরাষ্ট্রের আফগানিস্তান বিষয়ক শীর্ষ দূত জালমে খলিলজাদ পদত্যাগ করেছেন।

সোমবার মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে একথা জানিয়েছে বলে খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের।

আফগানিস্তান থেকে যুক্তরাষ্ট্রের বিশৃঙ্খলাপূর্ণ প্রত্যাহার ও দেশটি তালেবানের নিয়ন্ত্রণে যাওয়ার দুই মাসের মধ্যে পদ ছাড়লেন খলিলজাদ। কাতারের রাজধানী দোহায় তার নেতৃত্বে হওয়া আলোচনার মাধ্যমেই ফেব্রুয়ারি ২০২০ এ যুক্তরাষ্ট্র ও তালেবানের মধ্যে আফগানিস্তান থেকে চলতি বছরের মধ্যে মার্কিন সৈন্য প্রত্যাহারের বিষয়ে সমঝোতা হয়েছিল।

বর্তমানে দোহাভিত্তিক আফগানিস্তান বিষয়ক মার্কিন দূতাবাসে খালিলজাদের ডেপুটি টম ওয়েস্ট তার স্থলাভিষিক্ত হবেন বলে জানিয়েছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন। আফগানিস্তানে যুক্তরাষ্ট্রের স্বার্থ রক্ষায় পশ্চিমা দেশগুলো এই দূতাবাসের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

বিষয়টি সম্পর্কে জানেন যুক্তরাষ্ট্রের এমন এক কর্মকর্তা পরিচয় না প্রকাশ করার শর্তে রয়টার্সকে বলেন, খলিলজাদ শুক্রবার তার পদত্যাগপত্র পেশ করেছেন।

আফগানিস্তান থেকে যুক্তরাষ্ট্র সরে যাওয়ার পর অক্টোবরের প্রথমদিকে দোহায় বাইডেন প্রশাসনের সঙ্গে প্রথমবারের মতো আলোচনা বসেছিল তালেবানে; এই আলোচনায় ছিলেন না খলিলজাদ।

পদত্যাগের বিষয়ে মন্তব্যের জন্য রয়টার্সের অনুরোধে খলিলজাদ তাৎক্ষণিকভাবে সাড়া দেননি।

আফগানিস্তানে জন্মগ্রহণকারী খলিলজাদ ২০১৮ সাল থেকে আফগানিস্তান বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ দূতের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।

আফগানিস্তান থেকে সৈন্য প্রত্যাহারে তালেবান ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে সমঝোতা হওয়ার পর খলিলজাদ ওই কট্টরপন্থি গোষ্ঠীটিকে কাবুলের পশ্চিমা সমর্থিত আশরাফ গনি সরকারের সঙ্গে আলোচনায় বসে কয়েক দশকের হানাহানি বন্ধে রাজনৈতিক নিষ্পত্তির জন্য চাপ দিতে থাকেন।

কিন্তু মধ্য আগস্টে কোনো প্রতিরোধ ছাড়াই তালেবান আফগানিস্তানের অধিকাংশ এলাকায় নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার পর কাবুলের দিকে অগ্রসর হলে চাপের মুখে গনি সরকার ভেঙে পড়ে। ওই সময় আফগানিস্তান থেকে মার্কিন নাগরিকদের সরিয়ে নেওয়ায় সহায়তা করতে তালেবানের আনুকূল্য চেয়েছিলেন খলিলজাদ। কিন্তু দীর্ঘ ২০ বছরের যুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্র সরকারের পক্ষ হয়ে কাজ করা আফগান নাগরিকরা তখন ঝুঁকির মুখে পড়ে যান।

এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক ও বর্তমান কর্মকর্তারা রয়টার্সকে বলেছিলেন, তিন বছর ধরে খলিলজাদ ওই পদে থেকে স্মরণকালে যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে বড় একটি কূটনৈতিক ব্যর্থতার অন্যতম মুখ হয়ে উঠেছিলেন।

পরিচয় প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই মার্কিন কর্মকর্তা বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের অভিজ্ঞ এই কূটনীতিক তালেবানের ওপর থেকে চাপ সরিয়ে তাদের উদ্দেশ্য সাধনের পথ খুলে দিয়েছিলেন, ধারাবাহিকভাবে আফগান সরকারকে অবজ্ঞা করেছেন এবং মার্কিন সরকারের ভেতরের ভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গীগুলোতে কর্ণপাতও করেননি।

খলিলজাদ পদত্যাগের পরিকল্পনা করেছেন, এ নিয়ে সিএনএন প্রথম প্রতিবেদন করেছিল।

শীর্ষ সংবাদ:
দেশ এগিয়ে যাচ্ছে, এগিয়ে যাবে         ব্যাটিং ব্যর্থতায় ম্লান বোলিং সাফল্য         মিল্কি ওয়ের প্রথম ‘পালক’         সরকারী কাস্টডিতে নেই খালেদা, তিনি মুক্ত         ঢাকায় বিশ্ব শান্তি সম্মেলন ৪ ডিসেম্বর শুরু         ওমিক্রন প্রতিরোধে সতর্ক অবস্থায় সারাদেশ         সাদা পোশাকে দেশে সবার ওপরে মুশফিক         সাগরে জলদস্যুতায় যাবজ্জীবন দন্ড         গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশন, ৪১ বছর পূর্তির আয়োজন         কুয়েতে পাপুলের সাত বছরের কারাদন্ড         পাকি প্রেম দূরে রাখুন         বিনিয়োগবান্ধব পরিবেশ তৈরিতে আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ         ‘মোকাবেলা করে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে ’         তৃতীয় ধাপের সহিংসতাহীন নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে দাবি ইসির         করোনা : গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ৩         করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের সতর্কবার্তা         পরিবহন সেক্টর কার নিয়ন্ত্রণে : জি এম কাদের         সংসদে নির্বাচন কমিশন গঠনে আইন আনা হচ্ছে শিগগিরই ॥ আইনমন্ত্রী         বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহী সৌদির ৩০ কোম্পানি         আগামী ১ ডিসেম্বর থেকে নগর পরিবহন চালু সম্ভব নয় : মেয়র তাপস