বুধবার ১২ কার্তিক ১৪২৮, ২৭ অক্টোবর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

হলিউডের অভিনেতা বাংলাদেশের প্রীতম

হলিউডের অভিনেতা বাংলাদেশের প্রীতম

আনন্দকণ্ঠ ডেস্ক

গান লিখেছেন, তাতে সুর দিয়ে ও গেয়ে তৈরি করেছেন স্বতন্ত্র একটি অবস্থান। ঢাকায় প্রায় দুই দশকের সঙ্গীত ক্যারিয়ার। সফলতার কমতি না থাকলেও ছিল হতাশা। মনের কথাগুলো গানে গানে সঠিকভাবে বলতে না পারার জটিলতা। ছিল গানের কপিরাইট-রয়্যালটি বাস্তবায়ন নিয়েও যুদ্ধ। সম্ভবত এসব বেদনা ভুলতে তার পরবাস জীবন বেছে নেয়া। ২০১৬ সালে পাড়ি জমান যুক্তরাজ্যে। আগে থেকেই সেখানে ছিলেন অর্ধাঙ্গিনী স্মৃতি ফামি। সেখানে গিয়েও প্রথম চার বছর সঙ্গী ছিলেন সঙ্গীতের। বানিয়েছেন গান, পড়েছেন মিউজিক নিয়ে। তবে ২০২০ সালে করোনা মহামারীর বিশ্ব চোখ তুলে তাকাল এই সঙ্গীতশিল্পীর দিকে। বনে গেলেন পুরোদস্তুর অভিনেতা! হুম, হলিউড অভিনেতা। নেটফ্লিক্স, ওয়ার্নার ব্রাদার্স, এ্যামাজন, সনির মতো আন্তর্জাতিক ওটিটি প্ল্যাটফর্মের দারুণ সব সিনেমা ও ওয়েব সিরিজে অভিনয় করছেন নিয়মিত। অভিনয়ের সুবাদে যিনি সম্প্রতি যুক্ত হলেন ব্রিটিশ রাজপরিবারের গল্পেও! ব্র্রিটিশ এ্যাক্টর ও পারফর্মার হিসেবে এরমধ্যে এনলিস্টেড হয়েছেন।

প্রীতম জানান, সনি পিকচার্স প্রযোজিত শিশুদের একটি সিনেমায় তিনি কাজ করছেন। যার বাজেট ৩৬ মিলিয়ন ডলার। সিনেমাটিতে অভিভাবক হিসেবে তিনি অভিনয় করছেন। এছাড়াও এতে আরও অভিনয় করেছেন একাডেমি এ্যাওয়ার্ড উইনার এমা স্টোন, এমা থমসনের মতো তারকারা। ছবির নাম একদমই বলা যাবে না। ইনফ্যাক্ট ওদের বাইরে এসে কোনকিছুই বলা যাবে না। দেশের মিডিয়া বলেই কিছু কিছু বলছি। এই ছবিটির প্রেক্ষাপট এমন, শিশুদের কল্পনা ও স্বপ্নের জগতকে মজবুত করতে হয় কঠিন বিষয়গুলোর বিনোদনমূলক উপস্থাপনার মাধ্যমে। তবেই শিশুটি বড় হয়ে দেশ গড়ায় নিজেকে সম্পৃক্ত করতে পারবে। আমরা আমাদের শিশুদের শুধু বাঁচার স্বপ্ন দেখাই, কিন্তু কী নিয়ে বাঁচবে, বেঁচে গেলে কি করবে সেসব কিছু বলি না। আমি জানি না, আমার দেশের শিশুদের জন্য শেষ কবে সিনেমা নির্মিত হয়েছিল! আমরা এসব নিয়ে ভাবলামই না।

এদিকে ব্রিটিশ রাজ পরিবারের গল্প নিয়ে নির্মিত ‘দ্য ক্রাউন’ নামের একটি সিরিজেও কাজ করেছেন প্রীতম। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ওয়েব সিরিজটির একটি বিশেষ পর্বে বাংলাদেশ হাইকমিশনারের চরিত্রে অভিনয় করেছি। বিষয়টি উল্লেখযোগ্য তিনটি কারণে। প্রথমটি হলো ‘দ্য ক্রাউন’র মতো ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপটের সিরিজে কাজ করা। দ্বিতীয়টি সনি পিকচার্সের মতো পৃথিবীর প্রথম শ্রেণীর প্রযোজনা সংস্থার সঙ্গে কোনও বাংলাদেশী শিল্পীর চুক্তিবদ্ধ হয়ে অভিনয় করা। এবং শেষটা হলো বাংলাদেশের পোশাক ও দেশের নামটি বিশ্বজুড়ে উপস্থাপন করার সুযোগ পাওয়া। পুরো রাজপ্রাসাদই বানানো হয়েছে শূটিং সেটে। যা মুভিতে দেখে বোঝার উপায় থাকবে না, আসল না নকল!

প্রীতম বলেন, আমাদের ওখানে তো কাজের চেয়ে সেলফি আর আগাম নিউজই বেশি বেশি হয়। বলতে দ্বিধা নেই, আমি নিজেও সেই প্র্যাকটিসের অংশ ছিলাম। বাট এখানে এসে দেখলাম পরিস্থিতি পুরো উল্টো। এখানে কাজটাই মুখ্য। যাই হোক, এখানে প্রথমত আমি ভিনদেশী। অভিনয়েও নতুন। মাত্র তো এক বছর হলো কাজ শুরু করলাম। তবে এই করোনাকালেও আমি যা করেছি বাংলাদেশী হিসেবে- সেটি অন্য আর কেউ করেছে বলে আমার জানা নেই।

শীর্ষ সংবাদ:
বৃহস্পতিবার গণটিকার দ্বিতীয় ডোজ         ১ ফেব্রুয়ারিতে হচ্ছে না এসএসসি পরীক্ষা : শিক্ষামন্ত্রী         বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্প পুরস্কার পাচ্ছে ২৩ প্রতিষ্ঠান         করোনা: গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৭, নতুন শনাক্ত ৩০৬         কোচিং সেন্টার বন্ধ থাকবে ১৮ দিন         গুলশানে ট্রান্সফরমার বিস্ফোরণ, শিশুসহ দগ্ধ ৪         টেকসই উন্নয়নের জন্য চাই ঐক্যবদ্ধ সামাজিক শক্তি         বহদ্দারহাটের ফ্লাইওভারের পিলারে ফাটল পায়নি নকশা প্রণয়নকারী প্রতিষ্ঠান         সার্বিক বিবেচনায় মুদ্রাস্ফীতি বাড়েনি ॥ অর্থমন্ত্রী         বাংলাদেশে ফেরিডুবির ঘটনা এবারই প্রথম : শাজাহান খান         ডেঙ্গু : ২৪ ঘণ্টায় নতুন হাসপাতালে ১৮৪         ১১ নবেম্বর রেইনট্রিতে ধর্ষণ মামলার রায়         ব্যাংকে টাকা জমা –উত্তোলনকারীদের টার্গেট, গ্রেফতার ৯         ‘কুমিল্লার ঘটনায় ফেসবুককে সতর্ক করে চিঠি দেওয়া হয়েছে’         সুদানে সব ধরনের ফ্লাইট স্থগিত         কেরানীগঞ্জের কেন্দ্রীয় কারাগারে হাজতির মৃত্যু         সপ্তাহখানেকের মধ্যেই করোনা টিকা পাবে স্কুল শিক্ষার্থীরা ॥ শিক্ষামন্ত্রী         মার্কিন শিশুদের জন্য ফাইজারের টিকা অনুমোদনের সুপারিশ         নির্বাচনী সংঘাত ॥ নিহত কাপ্তাইয়ের ইউপি সদস্য         বাসেত মজুমদারের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতির শোক