মঙ্গলবার ৬ আশ্বিন ১৪২৮, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

দেলদুয়ারে করোনার টিকার সিরিঞ্জ ফেলে দেয়া সেই স্বাস্থ্য কর্মীকে অব্যহতি

দেলদুয়ারে করোনার টিকার সিরিঞ্জ ফেলে দেয়া সেই স্বাস্থ্য কর্মীকে অব্যহতি

নিজস্ব সংবাদদাতা, টাঙ্গাইল ॥ টাঙ্গাইলের দেলদুয়ারে করোনার টিকা গ্রহণকারীদের শরীরে সূচ ঢুকালেও টিকা প্রবেশ না করিয়ে সিরিঞ্জ ফেলে দেয়ার অভিযোগে ওই স্বাস্থ্যকর্মী সাজেদা আফরিনকে দায়িত্ব থেকে অব্যহতি দিয়া তাকে ক্লোজ করা হয়েছে। এছাড়া ওই স্বাস্থ্যকর্মীর বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করেছে তদন্ত কমিটি। স্বাস্থ্যকর্মী সাজেদা আফরিন টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার উপজেলায় সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক পদে কর্মরত ছিলেন।

স্থানীয় জনগন জানান, গত রবিবার বেলা ১১টার দিকে দেলদুয়ার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ২ নম্বর বুথে টিকা দিচ্ছিলেন সাজেদা আফরিন। এ সময় তিনি টিকা গ্রহণকারীদের শরীরে সুচ ঢুকালেও টিকা প্রবেশ না করিয়েই তাড়াহুড়ো করে সিরিঞ্জ ঝুড়িতে ফেলে দিচ্ছিলেন। বিষয়টি টিকাকেন্দ্রে আসা কয়েকজনের নজরে আসে। তারা আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) শামীম হোসেনকে বিষয়টি জানান। পরে ঝুড়িতে থাকা পরিত্যক্ত সিরিঞ্জগুলো বের করে দেখেন আরএমও। তখন তিনি সেখান থেকে ২০টি সিরিঞ্জের ভেতর টিকা দেখতে পান। বিষয়টি তিনি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাকে জানান। এ ঘটনায় টাঙ্গাইলের ডেপুটি সিভিল সার্জন শামীম হুসাইন চৌধুরীকে প্রধান করে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেন সিভিল সার্জন। তদন্ত শেষে সোমবার দুপুরে প্রতিবেদন সিভিল সার্জনের কাছে জমা দিয়েছে কমিটি।

টাঙ্গাইলের ডেপুটি সিভিল সার্জন শামীম হুসাইন চৌধুরী জানান, তদন্ত করে তারা টিকা না ঢুকিয়েই সিরিঞ্জ ফেলে দেওয়ার অভিযোগের সত্যতা পেয়েছেন। অভিযুক্ত সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক নিজেও লিখিতভাবে বিষয়টি স্বীকার করেছেন। তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করেছে তদন্ত কমিটি। তাঁর নিজের অসুস্থতা এবং টিকা গ্রহণকারীদের চাপ বেশি থাকায় এমনটি হয়েছে বলে ওই সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক তদন্ত কমিটিকে জানিয়েছেন।

দেলদুয়ার হাসপাতালে টিকা দিতে আসা আলিম মিয়া বলেন, সুই পুশ করা হয়েছে। কিন্তু ভ্যাকসিন দেওয়া হয়নি। এ রকম ঘটনা যদি সত্য হয়ে থাকে প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি অতি দ্রুত ওই স্বাস্থ্যকর্মীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া উচিত। সাজ্জাদ হোসেন বলেন, এখানে এসে আমাদের অনেক ভোগান্তির শিকার হতে হয়েছে। আমি টিকা দিতে এসেছি, টিকার কার্ড জমা দিয়েছে। তারা কার্ড হারিয়ে ফেলেছে। সুমি বেগম বলেন, আমি টিকা দিতে এসে ভালো ভাবেই টিকা দিতে পারিনি। এ ঘটনায় আমি আতঙ্কিত।

এ বিষয়ে টাঙ্গাইলের সিভিল সার্জন আবুল ফজল মো. সাহাবুদ্দিন খান তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার কথা নিশ্চিত করে জানান, প্রতিবেদনটি ঢাকায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্ত সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক সাজেদা আফরিনের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ঘটনাটি সত্য, যা সাজেদা আফরিন নিজেও স্বীকার করেছেন। এ ঘটনায় সাজেদা আফরিনকে দায়িত্ব থেকে অব্যহতি দেয়া হয়েছে। তাকে ক্লোজ করা হয়েছে।

শীর্ষ সংবাদ:
জাতিসংঘ ৭৬তম সাধারণ পরিষদের অধিবেশনের উদ্বোধনী সেশনে প্রধানমন্ত্রী         করোনা : গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ২৬         ঈশ্বরদী রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্প পরিদর্শনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         বাংলাদেশে প্রতিমাসে এক কোটি ভ্যাকসিন আসছে, অক্টোবরে ভারত থেকেও আসবে॥ নৌ প্রতিমন্ত্রী         জাতিসংঘে করোনা টিকা নিশ্চিতে জোর দেবেন প্রধানমন্ত্রী         কমলো সঞ্চয়পত্রের মুনাফার হার         স্বাস্থ্য-র গাড়িচালক মালেক ও স্ত্রীর বিরুদ্ধে চার্জশিট অনুমোদন         নামিদামি অফিসই ছিল তাদের টার্গেট         এহসান গ্রুপ ॥ ৭ দিনের রিমান্ড শেষে রাগীব ও তার ৩ ভাই কারাগারে         প্রতারণা মামলা : দুই মামলায় জামিন পেলেন হেলেনা জাহাঙ্গীর         টঙ্গীতে ৭ ঘণ্টা পর ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক         জাতিসংঘের এসডিজি অগ্রগতি পুরস্কার পেলেন প্রধানমন্ত্রী         স্থানীয় সরকার নির্বাচন তৃণমূলে গণতন্ত্রের ভিত্তি মজবুত করে ॥ কাদের         ডেঙ্গু : গত ২৪ ঘন্টায় ২৪৬ জন হাসপাতালে         করোনার র‍্যাপিড টেস্টের যন্ত্র দেশে নেই : প্রবাসীকল্যাণমন্ত্রী         রৌমারী সীমান্তে ‘বাংলাদেশী ভেবে’ ভারতীয়কে গুলি করে হত্যা করল বিএসএফ         শূন্য পদে কারা চিকিৎসক নিয়োগ দিতে হাইকোর্টের নির্দেশ         ৮১ বার পেছালো সাগর-রুনি হত্যা মামলার প্রতিবেদন         আশুলিয়ায় বিয়ে করায় চাকরি হারালেন পোশাক শ্রমিক দম্পতি         বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের সম্প্রচারে বিঘ্ন ঘটতে পারে ৮ দিন