রবিবার ১০ মাঘ ১৪২৭, ২৪ জানুয়ারী ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

বিদায় লগ্নে পৌষ, মাঘের শুরুতেই শৈত্যপ্রবাহের আগমন বার্তা

বিদায় লগ্নে পৌষ, মাঘের শুরুতেই শৈত্যপ্রবাহের আগমন বার্তা

অনলাইন রিপোর্টার ॥ বৃহস্পতিবার পৌষের শেষ দিন । এরপরই শুরু হচ্ছে মাঘ মাস। ষড়ঋতুর হিসাবে পৌষ-মাঘ শীতের ঋতু। পৌষের শীত এবার ততটা প্রভাব প্রভাব তৈরি করতে সমর্থ হয়নি। শীতের আমেজ নেই কোথাও। উত্তরাঞ্চলের কিছু এলাকায় রাতে হালকা শীত অনুভূত হলেও রাজধানীসহ অন্যত্র শীতের দেখা নেই। তবে মাঘের শুরুতেই শৈত্যপ্রবাহের আগমন বার্তা দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

মঙ্গলবার দিনের তাপমাত্রা অনেকটা কমে গিয়েছে। বিকাল থেকে হিমেল বাতাসের সঙ্গে কুয়াশার দেখাও মিলছে। বুধবার সকাল থেকেই বইছে ঠান্ডা হিমেল হাওয়া।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, বুধবার সারাদেশেই রাতের তাপমাত্রা কমে যেতে পারে ১-২ ডিগ্রি। সেই সঙ্গে উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের অর্থাৎ রংপুর ও রাজশাহী বিভাগের দু-এক জায়গায় শুরু হতে পারে শৈত্যপ্রবাহ। আগামী দু-তিন দিনে এ শৈত্যপ্রবাহ নতুন এলাকায় বিস্তার লাভ করতে পারে। একইসঙ্গে বাড়তে পারে কুয়াশার মাত্রা এবং উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে তা দুপুর পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।

অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ ওমর ফারুক গণমাধ্যমকে বলেন, বুধবার থেকেই তাপমাত্রা কমতে শুরু করবে। উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের দু-একটি জায়গায় রাতের তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি বা তার নিচে নেমে শৈত্যপ্রবাহ শুরু হতে পারে। পরের দুই দিন আরো এলাকায় শৈত্যপ্রবাহ বিস্তার লাভ করতে পারে। এ কয়দিন দিনের তাপমাত্রাও কিছুটা কমবে। তবে এই শৈত্যপ্রবাহ দুই-তিন দিনের বেশি স্থায়ী হবার সম্ভাবনা কম। ১৭ জানুয়ারি থেকে আবার তাপমাত্রা বেড়ে যেতে পারে।

অধিদপ্তরের জানুয়ারি মাসের দীর্ঘমেয়াদী বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছিল, এ মাসে দেশে ১-২টি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে। এর মধ্যে একটি তীব্র শৈত্যপ্রবাহে রূপ নিতে পারে। তখন তাপমাত্রা ৪-৬ ডিগ্রিতে নামতে পারে।

তবে আগামী দু-তিনদিনের শৈত্যপ্রবাহ তীব্র মাত্রার শৈত্যপ্রবাহে রূপ নেওয়ার শঙ্কা নেই।মঙ্গলবার রাতের তাপমাত্রা তেমনভাবে না কমলেও প্রায় সারাদেশেই দিনের তাপমাত্রা অনেকটা কমে গিয়েছে। রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগে তাপমাত্রা বেশি কমেছে। পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় কাছাকাছি চলে এসেছে। সেখানে মঙ্গলবার দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ১৬ দশমিক ৮ ডিগ্রি ও রাতের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৩ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড হয়েছে।

রাজধানীতে রাতের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে ১৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস আর দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৬ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আগের দিন রাজধানীতে দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৮ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

গতকাল দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে কক্সবাজারে ৩০ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং রাতের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে নওগাঁর বদলগাছীতে ১১ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
৯৮৮০৯৬১৭
আক্রান্ত
৫৩১৩২৬
সুস্থ
৭১০১৬৫৪৪
সুস্থ
৪৭৫৮৯৯
শীর্ষ সংবাদ:
স্বপ্নের নীড়ে নবযাত্রা ॥ সারাদেশে গৃহহীন ও ভূমিহীনদের আনন্দের দিন         সম্মুখসারির করোনা যোদ্ধাদের কথা         শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলছে         ২৭ জানুয়ারি টিকা দেয়া শুরু         প্রণোদনার মেয়াদ ও আকার বাড়ছে         নান্দনিক নগর গড়ব-রেজাউল, সেবক হতে চাই- শাহাদাত         ৮৫ হাজার কোটি টাকার প্লাস্টিক পণ্য রফতানির টার্গেট         করোনায় দেশে মৃত্যুর সংখ্যা ৮ হাজার ছাড়িয়েছে         মেঘনা নদীকে নিয়ে পূর্ণাঙ্গ মাস্টারপ্ল্যান তৈরির উদ্যোগ         বিএনপি-জামায়াতের প্রোপাগান্ডা স্কোয়াডের অপতৎপরতা         শীতের তীব্রতা আরও দুদিন থাকবে         নেতাজী ও বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ধারণ করে এগিয়ে যেতে হবে         ৩৪ ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী কাউন্সিলর প্রার্থী         রাজধানীতে সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ জন নিহত         চাল আমদানির এলসি খোলার সময়সীমা বাড়ল         শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার আগে মানতে হবে যে ৪ ধাপ         গৃহহীন পরিবারকে গৃহ দিতে পারছি, এটিই আমার সবচেয়ে আনন্দের ॥ প্রধানমন্ত্রী         আগামী বুধবার থেকে বাংলাদেশে করোনার টিকাদান শুরু         সাগরে ট্রলারডুবি : ৪ লাশ উদ্ধার, নিখোঁজ ১০         করোনা ভাইরাসে মৃত্যু ৮ হাজার ছাড়াল, নতুন শনাক্ত পাঁচশ’র নিচে