বুধবার ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ২৫ নভেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

এবার আগাম ভোট দিলেন বাইডেন, ফ্লোরিডায় ট্রাম্পের সমাবেশ

এবার আগাম ভোট দিলেন বাইডেন, ফ্লোরিডায় ট্রাম্পের সমাবেশ

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট দলীয় প্রার্থী জো বাইডেন (৭৭) ও তার স্ত্রী জিল বাইডেন আগাম ভোট দিয়েছেন। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ছয়দিন আগে বুধবার নিজ অঙ্গরাজ্য ডেলাওয়ারের উইলমিংটনে আগাম ভোট দিয়েছেন তারা। অন্যদিকে ফ্লোরিডায় সমাবেশ করেছেন বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বাইডেনও সেখানে সমাবেশ করেছেন। বৃহস্পতিবার ফ্লোরিডায় সমাবেশ করবেন ট্রাম্প ও বাইডেন। এর আগে, গত শনিবার ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যের নিজ গলফ ক্লাবের সামনে আগাম ভোট দেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। যুক্তরাষ্ট্রে এবারের নির্বাচনে আগাম ভোটের রেকর্ড হয়েছে। এখন পর্যন্ত ৭ কোটি ৪০ লাখ মানুষ আগাম ভোট দিয়েছেন। আগাম ভোট দেয়ার পর বাইডেন জোর দিয়ে বলেছেন, তিনি প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলে প্রথম দিন থেকেই করোনা মহামারী মোকাবেলায় ব্যবস্থা নেবেন। তবে সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, এই মহামারীর অবসানে তার হাতে কোন জাদুর সুইচ নেই। এমনকি আমি যদি নির্বাচিত হই, তারপরও মহামারীর অবসান ঘটাতে প্রচুর কঠোর পরিশ্রম করতে হবে। একটি জাদুর সুইচ চেপে মহামারী শেষ করতে সক্ষম হওয়ার মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিতে পারছি না। তবে আমি আপনাদের প্রতিশ্রতি দিতে পারি, একেবারে প্রথম দিন থেকেই মহামারী অবসানে সঠিক কাজটিই শুরু করব। আমাদের সিদ্ধান্ত বিজ্ঞান অনুযায়ী গ্রহণ করা হবে। খবর বিবিসি ও সিএনএনের।

হোয়াইট হাউসের মসনদে বসার প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ছোট পরিসরে, সামাজিক দূরত্ব মেনে নির্বাচনী প্রচার চালিয়ে আসছেন বাইডেন। শনিবার মিশিগানে সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সঙ্গে নির্বাচনী প্রচারে অংশ নেবেন তিনি। এর আগে ঐতিহ্যগতভাবে রিপাবলিকান ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত জর্জিয়ায় নির্বাচনী প্রচার চালান বাইডেন। আগামী কয়েকদিন ফ্লোরিডা, উইসকনসিন এবং মিশিগানে প্রচার চালানোর পরিকল্পনা রয়েছে তার। ভোট দেয়ার আগে বাইডেন বলেন, তিনিসহ অন্য ডেমোক্র্যাটরা আশা করছেন, নির্বাচনে জয়ী হবেন। কারণ, তারা অবস্থার বদল করতে পারবেন।

ফ্লোরিডায় ট্রাম্প ও বাইডেনের সমাবেশ ॥ ট্রাম্প ফ্লোরিডার গুরুত্বপূর্ণ দোদুল্যমান এলাকা টাম্পা শহরে বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় একটা ৩০ মিনিটে সমাবেশ করবেন। একই সময়ে বাইডেন সাউথ ফ্লোরিডার ব্রোয়ার্ড কাউন্টিতে সমাবেশ করবেন। তারপর স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ছয়টা ৩০ মিনিটে তিনি টাম্পা সফর করবেন। ট্রাম্প তার সমাবেশে যোগ দিয়ে বাইডেনের সমালোচনা করেন। তিনি দুর্নীতিবাজদের ভোট না দিতে ফ্লোরিডাবাসীকে আহ্বান জানান। ট্রাম্পের সমাবেশে জনসমাগম বেশি ছিল। কিন্তু স্বাস্থ্যবিধি মানা ও মাস্ক পরার কোন বাধ্যবাধকতা দেখা যায়নি। বাইডেন ব্রোয়ার্ড কাউন্টিতে কার র‌্যালি করেন। তিনি টাম্পা শহরেও কার র‌্যালি করে সমাবেশ করেন।

ইউরোপের রাজা আখ্যা দিলেন ট্রাম্প ॥ প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বুধবার তার নির্বাচনী সমাবেশে ব্রিটেনের ব্রেক্সিট প্রচারক নাইজেল ফারাজকে ইউরোপের রাজা আখ্যা দিয়ে তার প্রশংসা করেছেন। ইউরোপীয় পার্লামেন্টের সাবেক ইউরোসপেটিক সদস্য এবং যুক্তরাজ্য ইন্ডিপেন্ডেন্স পার্টির (ইউকেআইপি) সাবেক নেতা ফারাজ একদল রিপাবলিকান রাজনীতিবিদের সঙ্গে এ্যারিজোনার গুডইয়ারে ট্রাম্পের সমাবেশে অংশগ্রহণ করেন। নির্বাচনের মাত্র ৬ দিন আগে অনুষ্ঠিত এ সমাবেশে ট্রাম্প মঞ্চে উঠে তাকে ডেকে নেন এবং ব্রিটেনকে ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন থেকে সরিয়ে আনার সুদীর্ঘ সক্রিয় ভূমিকার জন্য তাকে ইউরোপের অন্যতম শক্তিশালী পুরুষ বলে অভিহিত করেন। ট্রাম্প তাকে উদ্দেশ করে বলেন, ইউরোপের রাজা আমাদের এখানেই রয়েছেন। তিনি অত্যন্ত অবিতর্কিত ব্যক্তি এবং খুব লাজুক বলে রসিকতাও করেন ট্রাম্প। ট্রাম্পের এসব মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় ফারাজ মাইক্রোফোন হাতে নিয়ে বলেন, তিনি কখনই ট্রাম্পের সঙ্গে তুলনীয় নন।

রিপাবলিকানের ভোট এবার ডেমোক্র্যাট বাক্সে ॥ রিপাবলিকানদের চোরা কিছু ভোট এবার চলে যাচ্ছে ডেমোক্র্যাট বাক্সে। বিষয়টি নিয়ে খুশিতে ভাসছেন বাইডেন সমর্থকেরা। এমনিতেই সব জরিপেই রিপাবলিকান প্রার্থী প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের চেয়ে এগিয়ে আছেন বাইডেন। এর মধ্যে কিছু রিপাবলিকান গোপন ভোট নিজেদের বাক্সে আসবে বলে আত্মবিশ্বাসী। এই রিপাবলিকান ভোটারদের তারা বলছেন ‘সিক্রেট বাইডেন ভোটার’। রাজনীতি পর্যবেক্ষকরা বলছেন, দেখা যাচ্ছে যারা কখনও ডেমোক্র্যাট কোন প্রার্থীকে ভোট দেয়নি, এমনকি স্থানীয় কোন নির্বাচনেও ডেমোক্র্যাটদের ভোট দেয়নি, সিটি কাউন্সিল, কংগ্রেস বা প্রেসিডেন্ট কোন ডেমোক্র্যাট প্রার্থীরই পক্ষে সিল মারেনি এমন কিছু রিপাবলিকান ভোটার এবার ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনকে ভোট দেবে। এসব ভোটার আগে ডেমোক্র্যাটদের জেতা অঙ্গরাজ্য- মিশিগান, উইসকনসিন ও পেনসিলভানিয়াতেই বাইডেনকে ভোট দেবেন। এমনকি ট্রাম্পের জেতা আইওয়া, জর্জিয়া ও নর্থ ক্যারোলিনাতেও বাইডেনকে ভোট দেবেন।

বড় চ্যালেঞ্জ দুর্দশায় পড়া লাখো মার্কিনী ॥ চারদিন পর যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ভোট। রিপাবলিকান ট্রাম্প বা ডেমোক্র্যাটিক বাইডেন যিনিই ক্ষমতায় আসুন, শুরুতেই তাকে মোকাবেলা করতে হবে করোনা সঙ্কটে দুর্দশায় পড়ে যুঝতে থাকা নিম্ন ও মধ্য আয়ের মার্কিনীদের সামাল দেয়ার বড় ধরনের চ্যালেঞ্জ। কোভিড-১৯ মহামারীতে বিশ্ব অর্থনীতিই আজ চরম বির্পস্ত। এই ভাইরাসে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃত্যু দেখেছে যুক্তরাষ্ট্র। বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর এই দেশটিকে গত ১০০ বছরেও এত মারাত্মক স্বাস্থ্য সঙ্কটে পড়তে হয়নি। করোনার কারণে যুক্তরাষ্ট্রে প্রায় দুই কোটি ২০ লাখ মানুষ বেকার হয়েছেন। বিশেষ করে নিম্নবিত্ত ও মধ্যবিত্ত শ্রেণীর মানুষ সবচেয়ে বেশি কাজ হারিয়েছেন। তাদের অর্ধেক এখনও কাজে ফিরতে পারেননি। মহামারীর প্রাদুর্ভাবের পর থেকেই ক্রেতার অভাবে বিভিন্ন খাতের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো প্রায় বন্ধ হয়ে যাওয়ার উপক্রম হয়েছে। কর্মীদের বেতন দিতে অনেক প্রতিষ্ঠানকে সরকার থেকে দীর্ঘদিন ধরে অর্থ সহায়তা দেয়া হচ্ছে। এ বিষয়ে সাবেক প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন আমলের কর্মকর্তা জিন লুডভিগ বলেন, আমেরিকার জন্য আগামী ১০ বছর বা ২০ বছরে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হচ্ছে, বাড়তে থাকা সুবিশাল নিম্নবিত্ত জনগোষ্ঠীর ভবিষ্যত সুনিশ্চিত করা।

শীর্ষ সংবাদ:
চাঙ্গা থাকবে অর্থনীতি ॥ করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সামলাতে ব্যাপক উদ্যোগ         চলমান কাজ শেষ না করলে পরবর্তী কাজ পাবে না ঠিকাদার         বেগমপাড়ার সাহেবদের ধরতে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী         অনেক নাটকীয়তার পর ক্ষমতা হস্তান্তরে রাজি ট্রাম্প         ঝুলে গেছে খালেদা জিয়ার লন্ডন যাত্রা         দশ বছরে নির্মাণসামগ্রী খাতের আকার দ্বিগুণ ॥ রফতানি হচ্ছে রড সিমেন্ট সিরামিক         ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩২ জনের মৃত্যু         বিবিসির দৃষ্টিতে ১০০ নারী ॥ এবার তালিকায় দুই বাংলাদেশী         তিন রাষ্ট্রদূতের কাছে রোহিঙ্গা সঙ্কট তুলে ধরলেন ড. মোমেন         মুক্তিযুদ্ধে ব্যবহৃত অস্ত্র বিক্রির ওপর হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা         মোহাম্মদপুরে বস্তিতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, শতাধিক ঘর পুড়েছে         ৮৫ বছরের বৃদ্ধের সঙ্গে ১২ বছরের কিশোরীর বিয়ে- তদন্তের নির্দেশ         লক্ষ্মীপুরে ঘটক সেজে নারীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ         এবার আসছে ঘূর্ণিঝড় নিভার ॥ আজ আঘাত হানছে ভারতে         তিন রাষ্ট্রদূতের কাছে রোহিঙ্গা সংকট তুলে ধরলেন ড. মোমেন         ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর শপথ নিলেন ফরিদুল হক খান         গবেষণায় কাট-পেস্ট একটি বড় রোগ : শিক্ষামন্ত্রী         এমপি হিসেবে শপথ নিলেন মোহাম্মদ হাবিব হাসান         রাজধানীর মোহাম্মদপুরে বস্তির আগুন নিয়ন্ত্রণে         চলমান কাজ শেষ না হলে পরের কাজ পাবে না ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান : প্রধানমন্ত্রী