রবিবার ১১ আশ্বিন ১৪২৭, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

থামিয়ে দিন বয়সের চাকা

থামিয়ে দিন বয়সের চাকা
  • সাবিহা রহমান

আঠারোতে তো অধিকাংশের ত্বকই ঈর্ষণীয়। তখন থেকেই শুরু করতে হবে ত্বকের দেখভাল। তবেই আটচল্লিশেও জেল্লা অনেকখানি বজায় থাকবে। আর যদি ভাবেন, এখন থাক পরে শুরু করব। ভুল করবেন। চামড়ায় জেঁকে বসবে বয়স আর সময়। তখন কিন্তু ঔজ্জ্বল্য ফিরিয়ে আনা বেশ মুশকিল।

কিন্তু সত্যিই কি শরীরের ঘড়িটাকে এক জায়গায় থামিয়ে দেয়ার কোন উপায় আছে? আর সেই পদ্ধতিগুলো কি সবই কৃত্রিম, কষ্টকর? রূপবিশেষজ্ঞরা বলছেন, ‘এজিং’ জৈবিক প্রক্রিয়া। সেটিকে পুরোপুরি থামানো হয়ত যায় না। তবে ক্যামেরা বা আয়নার চোখে বয়স ফাঁকি দেয়ার কিছু কৌশল আছে। স্বাভাবিক উপায়ে, নিয়মিত রূপচর্চা ও জীবনাভ্যাসে কিছু শৃঙ্খলা মেনে চলুন। ত্বকের তারুণ্যের মেয়াদ বাড়বে।

সময় থাকতে শুরু

ত্বকে কত দিনের মধ্যে বয়সের দাগ পড়বে, তা প্রথম যৌবনেই ঠিক হয়ে যায়। কারণ তা নির্ভর করে যতেœর ওপরে। তাই-ই কম বয়স থেকেই ত্বকের যত্ন শুরু করুন।

দূষণের সংস্পর্শে এসে ত্বক দ্রুত বিবর্ণ ও শিথিল হয়, কুচকে যায়। ডার্ক স্পট দেখা দেয়। তাই বাইরে বেরোলে যতটা সম্ভব শরীর ঢেকে রাখবেন। যে অংশ বাইরে বেরিয়ে থাকবে, সেখানে ওয়াটার রেজিস্ট্যান্ট এবং এসপিএফ যুক্ত সানস্ক্রিন লাগান। বাড়ি এসে ভাল ভাবে স্নান করে নিন। মেকআপ লাগালে খুব ভাল ভাবে পরিষ্কার করবেন।

-ত্বকের ক্লিনর্জি, টোনিং, সেরাম ও ময়শ্চারাইজিংয়ের রুটিন মানার সময়ে ত্বকের প্রতি যত্নশীল হন। জোরে ঘষবেন না। কোমল ভাবে ক্রিম লাগাবেন। প্রত্যেক দিন স্ক্রাব করবেন না। বদলে স্পঞ্জ দিয়ে মুখ মুছে নিন। আঙ্গুলের আলতো স্পর্শে বৃত্তাকারভাবে, আপওয়ার্ড স্ট্রোকে ক্রিম ম্যাসাজ করুন।

-ঘেমে গেলেই ভাল করে মুখ পরিষ্কার করবেন। এসিতে থাকলে ঘন ময়শ্চারাইজার ও বডি লোশন মাখা জরুরী।

-স্বাস্থ্যকর খাবার, নিয়মিত ব্যায়াম ও পর্যাপ্ত বিশ্রামের রুটিন মেনে চলুন। শরীরের ওপর অত্যাচার করলে আগেভাগেই বয়স্ক দেখাবে। স্ট্রেসে লাগাম টানার চেষ্টা করুন।

-ভ্রু কুাচকানোর অভ্যেস নিয়ন্ত্রণে রাখুন। এতে কপালে ভাঁজ পড়ে। বালিশে মুখ গুঁজে শোবেন না। ত্বকে চাপ পড়ে কুঞ্চন আসতে পারে।

-কোন প্রসাধনী, ক্রিম বা লোশন লাগিয়ে যদি মনে হয় গরম লাগছে, ত্বক জ্বলছে, ওটি আর ব্যবহার করবেন না।

-২২ বছর বয়সের পর নিয়মিত ফেসিয়াল, ফেস মাসাজ ও নাইট ক্রিম ব্যবহার করে ত্বকের যত্ন নিন। ত্রিশ ছুঁইছুঁই হলেই রেটিনল-সমৃদ্ধ এ্যান্টি এজিং প্রডাক্ট ব্যবহার শুরু করে দিন। এই সময় থেকেই আলাদা করে আন্ডার-আই ক্রিম ব্যবহার করতে পারেন।

হয়ত, সময় থাকতে ত্বকের যত্ন করে ওঠা হয়নি। কিন্তু বয়স ঘনাতেই মেনোপজ হরমোনগুলোর সৌজন্যে ত্বকের বলিরেখা, দাগ ছোপগুলো প্রকট হয়ে উঠেছে। তখন এই এজ স্পটগুলো ঠিক করতে চাইলে, ত্বকে কী সমস্যা হচ্ছে সেটা বুঝে নিতে হবে।

চামড়া ঝুলে আসছে দেখলে, কোলাজেন সমৃদ্ধ ক্রিম বা স্কিন লোশন ব্যবহার করুন। বাইরের জল হাওয়ার প্রভাবেও ত্বকের কোলাজেন তাড়াতাড়ি নষ্ট হয়। ত্বকের উপরের পরতটি পাতলা হয়ে যায়। রেটিনয়েড, কোলাজেন, ভিটামিন সি সমৃদ্ধ প্রডাক্টগুলো এই নষ্ট কোষ মেরামত করতে পারে। স্কিন টাইটনিং বা ফার্মিং প্রডাক্টে এই উপাদানগুলো আছে কি না, দেখে কিনুন। ব্যবহারের সময় যথা সম্ভব কম ঘষবেন। আলতো চাপড়ে (প্যাট) এ্যান্টি এজিং প্রডাক্ট লাগান।

ডার্ক স্পটে অ্যান্টি এজিং সেরাম লাগান। ত্বকের যেখানে ভাঁজ পড়ছে, সেখানে এ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট ক্রিম, পেপটাইড বা স্কিন বুস্টার সেরাম লাগাতে পারেন। অতিরিক্ত শুষ্ক ত্বকের ক্ষেত্রে ভিটামিন বি ফাইভ যুক্ত বুস্টার সেরাম কার্যকর। ত্বকের ছিদ্র উন্মুক্ত হয়ে গেলে ‘পোর টোনার’ লাগানো যায়। ব্যায়াম করুন নিয়মিত। মন শান্ত রাখতে মেডিটেশন করুন। কম তেল-মসলা স্বাস্থ্যকর খাবার খান, পরিমাণ মতো জল খান। ঘুমকে অবহেলা করবেন না। সকলের সঙ্গে ভাল সম্পর্ক রাখুন, তাতে মন ভাল থাকবে। এগুলোই তারুণ্যের বিশল্যকরণী।

মডেলিং, অভিনয়, বিমান পরিষেবা প্রভৃতি কিছু পেশায় সুন্দর, সজীব ও ঝকঝকে ত্বক প্রায় অপরিহার্য। সেগুলো পেতে অনেকে আধুনিক চিকিৎসার সাহায্য নেন। এই সব ট্রিটমেন্টের সাহায্যে ত্বকে বয়সের ছাপও মুছে ফেলা যায় বলে জানালেন চর্মরোগ বিশেষজ্ঞরা। ডার্ম্যাব্রেশন (উঁচু-নিচু ত্বক মসৃণ করে), ডার্মাল ফিলার (ত্বকের গর্তে আর্টিফিশিয়াল কোলাজেন, লিকুইড প্যারাফিন, ফ্যাট ফিলার প্রভৃতি ইঞ্জেক্ট করা হয়), প্লাস্টিক রিকনস্ট্রাকশন (যেখানে গর্ত হয়েছে, অন্য জায়গার চামড়া নিয়ে সেখানে ভরে দেয়া)-এর মতো চিকিৎসা আকছার করানো হচ্ছে। দু’চার বছর পর্যন্ত এর প্রভাব থাকে। সবচেয়ে জনপ্রিয় কুঞ্চিত অংশে বোটক্স ইঞ্জেকশন। তবে এর মেয়াদ বড় জোর দেড় বছর।

আর শুধু মুখ শোভার কথা ভাবলেই বা চলবে কেন? গলা, হাত-পা-কেও কিন্তু সময়ের থাবা থেকে রক্ষা করতে হবে। খুব গরমকাল ছাড়া অন্য সময়ে বাকি শরীরে পেট্রোলিয়াম জেলি ব্যবহার করে দেখুন। চমকপ্রদ ফল পাবেন।

ছবি : নাঈম ইসলাম

করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
৩২৭৯৪৪০৭
আক্রান্ত
৩৫৭৮৭৩
সুস্থ
২৪১৯৩২৯৩
সুস্থ
২৬৮৭৭৭
শীর্ষ সংবাদ:
সবার সুরক্ষা চাই ॥ করোনা সঙ্কট উত্তরণে বহুপাক্ষিকতাবাদের বিকল্প নেই         সিলেট এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গৃহবধূকে গণধর্ষণ         পুলিশে শুদ্ধি অভিযান         প্রধান আসামি মিজান সাত দিনের রিমান্ডে         কয়েক মাসেও হয়ত জানা যাবে না জয়ী কে ॥ ট্রাম্প         কঠিন শর্তের বেড়াজালে সিঙ্গাপুরগামী যাত্রীরা         দেশে করোনা রোগী শনাক্ত কমেছে         শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে আওয়ামী লীগের কর্মসূচী         কেরানীগঞ্জে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার নির্মাণে দুর্নীতির প্রমাণ         গণফোরাম ভেঙ্গেই গেল ॥ ২৬ ডিসেম্বর এক পক্ষের কাউন্সিল         রূপপুর আবাসন প্রকল্পের আসবাবপত্র কেনা হচ্ছে অস্বাভাবিক দামে         বিনা খরচে আইনী সহায়তা পেলেন ৫ লাখের বেশি দরিদ্র অসচ্ছল মানুষ         পর্যটন শিল্পকে চাঙ্গা করতে ‘রিকভারি প্ল্যান’         বেসরকারি প্রতিষ্ঠান থেকে করোনা ভাইরাসের সনদ নেয়া ৩২ জনকে রেখে গেল সাউদিয়া         পাবনা-৪ আসনে ৭৫ কেন্দ্রের বেসরকারী ফলাফলে আওয়ামীলীগের নুরুজ্জামানের জয়         সবার সুরক্ষা চাই ॥ বিশ্বসভায় প্রধানমন্ত্রী         সোমবার প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে ১০ টিভিতে ‘হাসিনা: অ্যা ডটারস টেল’         ভাঙলো গণফোরাম ॥ ২৬ ডিসেম্বর কাউন্সিলের ঘোষণা সাইয়িদ-মন্টু পক্ষের         ডোপ টেস্ট পজিটিভ হওয়ায় ২৬ পুলিশ সদস্যকে চাকরিচ্যুত করা হবে-ডিএমপি কমিশনার         করোনা ভাইরাসে আরও ৩৬ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১১০৬