বুধবার ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৮ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

মুজিববর্ষেই খুনী রাশেদকে এনে ফাঁসি কার্যকরের আশা পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষেই যুক্তরাষ্ট্রে পলাতক খুনী রাশেদ চৌধুরীকে ফেরানোর চেষ্টা করা হচ্ছে বলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন জানিয়েছেন। সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, ‘মিথ্যা তথ্য দিয়ে ২০০৬ সালে যুক্তরাষ্ট্রের অভিবাসী হয়েছে খুনী রাশেদ চৌধুরী। আমরা সে সব তথ্য যুক্তরাষ্ট্রকে জানিয়েছি। আশা করছি, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষে তাকে দেশে ফিরিয়ে এনে ফাঁসির রায় কার্যকর করা যাবে।’ বিদেশে পলাতক বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত পাঁচ খুনীর মধ্যে কানাডায় থাকা নূর চৌধুরীকেও ফেরানোর চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি। খবর বিডিনিউজের।

‘জনতার প্রত্যাশা’ নামের একটি সংগঠন আয়োজিত অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের পাশাপাশি কানাডায় পলাতক আরও একজনের তথ্যও আমাদের কাছে আছে। তাকেও ফিরিয়ে আনার জন্য আলোচনা করছি। বাকি তিনজনের বিষয়ে আমাদের কাছে ভাসাভাসা তথ্য রয়েছে। বঙ্গবন্ধুর খুনীদের ফিরিয়ে আনার ক্ষেত্রে দেশগুলোর এবং প্রবাসী বাংলাদেশীদের সহায়তা কামনা করেন মোমেন।

তিনি বলেন, আমরা সুশাসন ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার জন্য তাদের সাজা কার্যকর করতে চাই। প্রবাসী ভাই-বোনেরা তাদের খুঁজে বের করার কাজ করতে পারেন। খুঁজে পেলে সে দেশে তাদের ফিরিয়ে দেয়ার জন্য কর্মসূচীও পালন হতে পারে।

বাংলাদেশের স্বাধীনতার চার বছরের মাথায় ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা করে একদল বিপথগামী সেনা সদস্য।

দীর্ঘ ৩৮ বছর দেশের মানুষ অপেক্ষায় থেকেছে এই হত্যার বিচারের। ২০০৮ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় ফেরার পর বিচারপ্রক্রিয়ার অবসান শেষে পাঁচ খুনীর মৃত্যুদ- কার্যকর করা হয় ২০১০ সালের ২৮ জানুয়ারি। এরা হলেন সৈয়দ ফারুক রহমান, সুলতান শাহরিয়ার রশীদ, মহিউদ্দিন আহমদ, এ কে বজলুল হুদা ও এ কে এম মহিউদ্দিন। দীর্ঘদিন পালিয়ে থাকার পর চলতি বছর ১২ এপ্রিল মৃত্যুদ- কার্যকর করা হয় সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত ক্যাপ্টেন আবদুল মাজেদের। তবে এখনও অধরা রয়ে গেছেন বঙ্গবন্ধুর পাঁচ খুনী। যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডায় অবস্থানরত রাশেদ চৌধুরী ও এবিএমএইচ নূর চৌধুরী ছাড়া অপর তিন খুনী হলেন আব্দুর রশীদ, শরীফুল হক ডালিম ও মোসলেম উদ্দিন।

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী গত ১৭ মার্চ থেকে এক বছর ‘মুজিববর্ষ’ ঘোষণা করা হয়েছে। এ উপলক্ষে আগামী বছর ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবস নাগাদ মুজিববর্ষের কর্মসূচী ঘোষণা করা হয়েছে।

আলোচনা অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নে করোনাভাইরাসের টিকা নিয়ে কথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন। তিনি বলেন, আমরা তো আমাদের দেশের জনগণের স্বার্থটা দেখি। যদি ভ্যাকসিনটা বের হয় তাতে আমরা আমাদের জনগণকে কত তাড়াতাড়ি এই ভ্যাকসিনটা দিতে পারি, সে ব্যাপারে আমরা সচেষ্ট। সেখানে যারা তৈরি করবেন আগে যে কোন দেশ, তাদেরটা আনার জন্য আমরা চেষ্টা করব।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এখানে যদি অন্যান্য প্রতিষ্ঠান তৈরি করে সুবিধা হবে, তখন আমরাও সেটা তৈরি করার সুযোগ পাব। যাতে আমাদের দেশের লোকের মঙ্গল হয়। আমাদের দেশের লোকের মঙ্গলের ব্যাপারে যা যা করার আমরা এ ব্যাপারে করব।

শীর্ষ সংবাদ:
লুটপাটে নিঃস্ব গ্রাহক ॥ পি কে হালদারের থাবা         অর্থ ব্যয়ে সাশ্রয়ী হোন অপচয় করা যাবে না         তামিমের সেঞ্চুরি- বাংলাদেশের দাপট         প্রকল্প কমিয়ে অর্থায়ন বাড়িয়ে উন্নয়ন বাজেট অনুমোদন         জাতীয় সরকারের নামে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টি করতে দেয়া হবে না         চুরি, ছিনতাই করতে কক্সবাজার থেকে ঢাকা আসত ওরা         পণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণের উপায় খুঁজছে সরকার         অর্থপাচারকারীরা কোন দেশে গিয়েই শান্তি পাবে না         সিলেটে কয়েক লাখ মানুষ পানিবন্দী         সড়ক যেন ধান শুকানোর চাতাল, প্রাণ গেল বাইক আরোহীর         অবশেষে তথ্য অধিকার আইনে তথ্য দিল পুলিশ         ভোলায় বেইলি ব্রিজ ভেঙ্গে ট্রাক অটোরিক্সা খালে         ১১ ডিজিটের নতুন নম্বরে বিপাকে গ্রাহক         কিউআর কোড দিয়ে ভুয়া নিয়োগপত্র দিত ওরা         জিআই সনদ পেলো বাগদা চিংড়ি         জনগণের অর্থ ব্যয়ে সাশ্রয়ী হতে হবে ॥ প্রধানমন্ত্রী         বাস্তব শিক্ষার সঙ্গে শিক্ষার্থীদের সম্পৃক্ত করার আহ্বান শিক্ষা উপমন্ত্রীর         ডলারের দাম ১০২ টাকার বেশি         সিলেটে বন্যার আরও অবনতির আশঙ্কা         কানের ভেন্যুতে ‘মুজিব’-এর পোস্টার