ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২৯ জানুয়ারি ২০২৩, ১৬ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

অসহায় ক্রীড়াবিদের জন্য তামিমের অবদান

প্রকাশিত: ২২:৪৬, ২৮ এপ্রিল ২০২০

অসহায় ক্রীড়াবিদের জন্য তামিমের অবদান

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাসের প্রভাবে বিশ্বব্যাপীই অসহায় হয়ে পড়েছেন নি¤œ আয়ের মানুষরা। কিন্তু এর পাশাপাশি এমন কিছু মানুষ আছে যারা অসহায় হয়ে পড়লেও সঙ্কোচে চাইতে পারছেন না সাহায্য। এমন মানুষগুলোর পাশেও দাঁড়িয়েছেন অনেকে বিচক্ষণতা দেখিয়ে। তেমনি বিচক্ষণতা দেখালেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের ওপেনার তামিম ইকবাল। ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম এবার বিভিন্ন পর্যায়ের, বিভিন্ন ক্রীড়ার ৯১ জন অসহায় এ্যাথলেটের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। ক্রিকেট কোচ মোঃ হুমায়ুন কবিরের সঙ্গে সমন্বয় করে আর্থিক সহায়তা দিয়েছেন তিনি বাংলাদেশের এই ক্রীড়াবিদদের। করোনাভাইরাসের সংক্রমণের ধাক্কাটা লেগেছে ক্রীড়াঙ্গনে। একেবারেই স্থবির হয়ে আছে মাঠগুলো। কোন ধরনের ক্রীড়া কর্মকা-ই নেই। এমন পরিস্থিতিতে বাংলাদেশের অনেক ক্রীড়াবিদ আছেন যারা অসহায় হয়ে পড়েছেন। ফুটবল, ক্রিকেট, হকি ব্যতীত বাকি ক্রীড়াগুলো বাংলাদেশে তেমন জনপ্রিয় নয় এবং সেসব ক্রীড়ায় অংশ নেয়া এ্যাথলেটরা সবাইও তেমন সচ্ছল না। এখন ক্রীড়াঙ্গনে স্থবিরতা আসায় তাদের উপার্জনের রাস্তাটা একেবারেই রুদ্ধ হয়ে পড়েছে এবং সঙ্কটকালীন সময়ে নিত্যপ্রয়োজনীয় ব্যয় নির্বাহ করার মতো সঞ্চয়ও নেই। এ কারণে বিভিন্ন দেশের বিভিন্ন ক্রীড়ার ৯১ জন অসহায় ক্রীড়াবিদকে তালিকাভুক্ত করে আর্থিক সহায়তা দিয়েছেন তামিম। এর মধ্যে ফুটবল, ক্রিকেট, হকি, এ্যাথলেটিক্স, সুইমিংসহ অনেক ক্রীড়া সংশ্লিষ্ট ক্রীড়াবিদই আছেন। দেশে মোটামুটি নিয়মিত প্রতিযোগিতা চলে এমন কোন ক্রীড়াই বাদ পড়েনি তালিকা থেকে। এরপর তাদের বিকাশের মাধ্যমে আর্থিক সহায়তা পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। এমনটাই জানিয়েছেন হুমায়ুন কবির। তিনি বলেন, ‘৯১ জনের তালিকা করা হয়েছিল। কোন খেলাই বাকি পড়েনি। সবাইকে আর্থিক সহায়তা করা হয়েছে বিকাশের মাধ্যমে। ফোন দিয়েছিলাম আমি সবাইকে তালিকা অনুযায়ী। আমার পরিচয় দিয়ে বলেছি তামিম ইকবাল আপনাদের খোঁজ নিলেন একটু। আপনাদের পরিবারের সবার সুস্থতা কামনা করেছেন তিনি। তামিম শুধু আপনাদের সঙ্গে একটু শরিক হলো। ওর হয়ে আমি কিছু টাকা পাঠাচ্ছি। বাজার করে পরিবার নিয়ে খাবেন ভাই। তারা অনেক খুশি হয়ে কয়েকজন কান্নাও করে দিয়েছে।’
monarchmart
monarchmart