শনিবার ৯ মাঘ ১৪২৮, ২২ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

আমতলীতে টাকা দিয়েও মিলছে না বিদ্যুত সংযোগ

নিজস্ব সংবাদদাতা, আমতলী, বরগুনা, ৩ ফেব্রুয়ারি ॥ টাকা না দিলে বিদ্যুত সংযোগ মেলে না। বাড়িতে বিদ্যুত সংযোগ আনার প্রস্তাব দিলেই দালালকে দিতে হচ্ছে গ্রাহক প্রতি ৩ থেকে ৫ হাজার টাকা। তিন ধাপে টাকা দিয়েও বিদ্যুত সংযোগ পাচ্ছে না গ্রাহকরা। বিদ্যুতের খুঁটি পোঁতার এক বছর পরেও বিদ্যুত সংযোগ পাইনি এলাকাবাসী। এমন অভিযোগ উপজেলার আঠারোগাছিয়া ইউনিয়নের উত্তর সোনাখালী ও মধ্য সোনাখালী গ্রামের ২শ’ ৫৮ গ্রাহকের। এলাকাবাসীর অভিযোগ মিটার দেয়ার নামে দালাল ইলিয়াস হাওলাদার প্রতি গ্রাহকের কাছ থেকে এক হাজার টাকা নিয়েছেন কিন্তু এক বছরেও মিটার পাইনি।

জানা গেছে, আঠারোগাছিয়া ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য আবুল হক হাওলাদার ২০১৭ সালে বিদ্যুত সংযোগ পাওয়ার জন্য পটুয়াখালী পল্লী বিদ্যুত অফিসে আবেদন করেন। ওই আবেদনের প্রেক্ষিতে পল্লী বিদ্যুত অফিস প্রকল্প অনুমোদন দেয়। এ খবর পেয়ে উত্তর সোনাখালী গ্রামের ইলিয়াস হাওলাদার ও কাসেম হাওলাদার পল্লী বিদ্যুত অফিসের নাম করে মধ্য সোনাখালী ও উত্তর সোনাখালীর সাড়ে সাত কিলোমিটার বিদ্যুত সংযোগের নামে ২শ’ ৫৮ গ্রাহকের কাছ থেকে টাকা উত্তোলন করেন। প্রত্যেক গ্রাহকের কাছ থেকে ৩ থেকে ৪ হাজার টাকা আদায় করেছেন বলে অভিযোগ টাকা উত্তোলনের পরপরই পটুয়াখালী পল্লী বিদ্যুত অফিস থেকে লোক এসে এলাকা সার্ভে করে যায় (যার প্যাকেজ নং-২৮১/২)। গত বছর জানুয়ারি মাসে ওই এলাকায় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মোজাম্মেল হক এ্যান্ড কোং খুঁটি পুঁতে বিদ্যুতের তার টেনে বিদ্যুত সংযোগের কাজ সম্পন্ন করেন। এদিকে উত্তর সোনাখালী গ্রামের দালাল ইলিয়াস হাওলাদার বিদ্যুতের খুঁটি পোঁতার পরপর প্রতি গ্রাহকের কাছ থেকে মিটার দেয়ার নাম করে পুনরায় এক হাজার করে টাকা আদায় করেছেন। গত এক বছর পেরিয়ে গেলেও ওই এলাকার সাড়ে সাত কিলোমিটারের ২শ’ ৫৮ পরিবার এখনও মিটার ও বিদ্যুত সংযোগ পায়নি।

অভিযুক্ত ইলিয়াস হাওলাদার সাংবাদিক পরিচয় নিশ্চিত হওয়ার পর কথা না বলে ফোন কেটে দেন। বিদ্যুত সংযোগের কাজ সম্পন্ন হওয়ার এক বছরেও মিটার ও বিদ্যুত সংযোগ পায়নি এ বিষয়ে নির্বাহী প্রকৌশলী (বরগুনা) দিলীপ কুমার সিকদার বলেন, এমন তো হওয়ার কথা না। আমি খোঁজ নিয়ে ব্যবস্থা নিচ্ছি। তিনি আরও বলেন, বিদ্যুত সংযোগ দেয়ার নাম করে কোন দালাল টাকা উত্তোলন করলে তার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শীর্ষ সংবাদ:
সাকিবের হাসিতে শুরু বিপিএল         ফের বন্ধ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ॥ করোনার লাগাম টানতে পাঁচ জরুরী নির্দেশনা         বাবার সম্পত্তিতে পূর্ণ অধিকার পাবেন হিন্দু নারীরা ॥ ভারতীয় সুপ্রীমকোর্ট         উচ্চারণ বিভ্রাটে...         বাণিজ্যমেলার ভাগ্য নির্ধারণে জরুরী সিদ্ধান্ত কাল         আলোচনায় এলেও আন্দোলনে অনড় শিক্ষার্থীরা         ‘আমার প্রিয় বিশ্ববিদ্যালয়টি ভালো নেই’         করোনা ভাইরাসে আরও ১২ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১১৪৩৪         ‘১৫ ফেব্রুয়ারি বইমেলা শুরু’         ঢাবির হল খোলা, ক্লাস চলবে অনলাইনে         করোনারোধে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের ৫ জরুরি নির্দেশনা         আগামী ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বন্ধ স্কুল-কলেজ         ভরা মৌসুমে চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে সব ধরনের সবজি         মাদারীপুরে সেতুর পিলারে মোটরসাইকেলের ধাক্কা, ২ শিক্ষার্থী নিহত         বিপিএম-পিপিএম পাচ্ছেন পুলিশের ২৩০ সদস্য         অভিনেত্রী শিমু হত্যা : ফরহাদ আসার পরেই খুন করা হয়         দিনাজপুরে মাদক মামলায় নবনির্বাচিত ইউপি সদস্য গ্রেফতার         শাবিপ্রবিতে গভীর রাতে শিক্ষার্থীদের মশাল মিছিল         ঘানায় ভয়াবহ বিস্ফোরণে ৫শ’ ভবন ধস, নিহত ১৭         করোনায় রেকর্ড সাড়ে ৩৫ লাখ শনাক্ত, মৃত্যু ৯ হাজার