বুধবার ১৫ আশ্বিন ১৪২৭, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

প্লাস্টিক ॥ বন্ধ হচ্ছে না উৎপাদন ও ব্যবহার

  • শাকিল আহমেদ

আমাদের দেশে এক সময় ছিল যখন বাজারে গেলে মানুষজন হাতে করে একটা চটের ব্যাগ নিয়ে যেতেন। কিন্তু আশির দশকে প্রথম বাজারে পলিথিনের ব্যবহার শুরু হয়। এর পর থেকে বাজারে যে ধরনের দোকানেই যান না কেন বিনে পয়সায় পলিথিনের ব্যাগ দেয়া শুরু হলো। এখন সহজে সকল দোকানে বিনে পয়সায় চাইলেই পলিথিনের ব্যাগ পাওয়া যায়। পশ্চিমা বিশ্বের তুলনায় বাংলাদেশে অনেক পরের দিকে পলিথিন ব্যবহার শুরু“ করেছে। কিন্তু তা এতটাই বড় বিপর্যয় ডেকে আনে যে, ব্যবহার শুরুর ১৫ থেকে ২০ বছরের মাথায় ২০০২ সালের জানুয়ারি থেকে এর উৎপাদন, পরিবহন, মজুদ ও ব্যবহারকে আইন করে নিষিদ্ধ করা হয়। শুরুর দিকে বেশ কড়াকড়ি হলেও ধীরে ধীরে শিথিল হয়ে যায় আইনের প্রয়োগ। আর এখন বাংলাদেশে এটি যে নিষিদ্ধ তার বোঝারই কোন উপায় নেই।

কিন্তু কেন প্লাস্টিক বর্জন করা উচিত?

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের প্রধান, অধ্যাপক ড. হাফিজা খাতুন বলছেন, প্লাস্টিক এমন একটি পদার্থ যার আয়ুষ্কাল হাজার হাজার বছর। দেখতে ভাল না লাগলেও এমন পরিস্থিতিই বাস্তবতা। যা মাটিতে গেলে ক্ষয় হয় না বা মাটির সঙ্গে মিশে যায় না। এটি মাটিতে পানি ও প্রাকৃতিক যে পুষ্টি উপাদান রয়েছ তার চলাচলকে বাধাগ্রস্ত করে। যার ফলে মাটির গুণগত মান হ্রাস পায়। গাছ তার খাবার পায় না। মাটি ও পানিতে প্লাস্টিক কণা ছড়িয়ে পড়ে। যা হয়ত পানি থেকে মাছের শরীরে যাচ্ছে।

মাটিতে প্লাস্টিকের তৈরি টক্সিক রাসায়নিক পদার্থ গাছে মিশে যাচ্ছে। আর তা শেষমেশ শুধু পশু পাখি নয় মানুষের শরীরেও এসে পৌঁছায়। প্লাস্টিক মানুষের শরীরে আরও অনেক মরণ ব্যাধির পাশাপাশি ক্যান্সারের জন্য দায়ী। যে সুবিধার জন্য আপনি প্লাস্টিক ব্যবহার করেন যেমন ফুটো না হলে এতে পানি ঢোকে না বা বের হয় না।

যে কারণে প্লাস্টিক পুনর্ব্যবহারে পিছিয়ে বাংলাদেশ

সেই একই কারণে পলিথিন বা প্লাস্টিকের বর্জ্য যেখানে সেখানে ফেলে দিলে তা নর্দমায় আটকে গিয়ে পানির প্রবাহে বাধা দেয়। যার ভুক্তভোগী ঢাকা শহরের লাখ লাখ মানুষ। একটু বৃষ্টি হলেই জমে যায় পানি।

পরিবেশ বিষয়ক আন্তর্জাতিক সংস্থা আর্থ ডে নেটওয়ার্ক এক প্রতিবেদনে বলছে বিশ্বে প্লাস্টিক দূষণকারী দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ ১০ নম্বরে। বেশিরভাগ প্লাস্টিক রিসাইকেল হচ্ছে না।

কেন এটির ব্যবহার ও উৎপাদন বন্ধ করতে পারছে না বাংলাদেশ?

ড. হাফিজা খাতুন বলছেন, ‘আমাদের দেশে ব্যবসায়িক ও আর্থিকভাবে লাভজনক না হলে মানুষ কিছু করে না। শুধু সচেতনতা বা সমাজের কল্যাণের জন্য কিছু হয় না। পলিথিন ব্যাগ সাধারণের জন্য অর্থনৈতিক দিক থেকে লাভজনক কারণ এটি সস্তা ও সহজে পাওয়া যায়।’ এটি হয়ত একটি কারণ। কিন্তু আশ্চর্যের বিষয় হলো বিশ্বে যে দেশটি সবচেয়ে আগে পলিথিনের ব্যবহার নিষিদ্ধ করেছিল সেটি হলো বাংলাদেশ।

কিন্তু বাজারে গিয়ে দেখা গেল বিষয়টি মারাত্মকভাবে তার গুরুত্ব হারিয়েছে। ক্রেতা ও বিক্রেতা দুই পক্ষের কাছেই।

একজন ক্রেতা বলছেন, ‘বাজার থেকে ফেরার সময় টপ টপ করে মাছ বা মাংসের রক্ত পড়ছে না। হঠাৎ পথের মধ্যে কাগজের ব্যাগের মতো ছিঁড়ে পড়ে যাচ্ছে না।’ পশ্চিমের দেশগুলোতে দোকানে এমন ব্যাগের জন্য পয়সা নেয়া শুরুর পর থেকে অনেকেই সঙ্গে করে ব্যাগ নিয়ে যাওয়া শুরু করেছেন। বাংলাদেশে সেই অভ্যাস চলে গেছে পলিথিনের কারণে। আইনে করে নিষিদ্ধ করার পর সেই আইনের প্রয়োগ কেন হচ্ছে না? কিন্তু পলিথিনের ব্যবহার রোধের বিষয়টি দেশব্যাপী যে গুরুত্ব হারিয়েছে সেটি বাজারে গেলে বা রাস্তায় সামান্য একটু হাঁটলেই বোঝা যায়। বাড়ির দরজা থেকে শুরু করে নদী, নালা, ড্রেন সবখানেই মিশে গিয়ে যেন পৃথিবীর শ্বাসরোধ করে ফেলেছে পলিথিন ও প্লাস্টিক সামগ্রী।

করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
৩৩৫৭৬৪৬৪
আক্রান্ত
৩৬২০৪৩
সুস্থ
২৪৮৯৫৪৬৬
সুস্থ
২৭৩৬৯৮
শীর্ষ সংবাদ:
বন্ধ হবে নদী ভাঙ্গন ॥ বিদেশী প্রযুক্তির টেকসই প্রকল্প         কোভিড-১৯ মোকাবেলায় সুসমন্বিত রোডম্যাপ প্রয়োজন ॥ প্রধানমন্ত্রী         প্রথম প্রেসিডেন্সিয়াল বিতর্কের জন্য প্রস্তুত বাইডেন-ট্রাম্প         সিলেটে দিনভর বিক্ষোভ ॥ আরেক আসামি গ্রেফতার তিনজন রিমান্ডে         ফের বেপরোয়া কিশোর গ্যাং ॥ চার মাসে চাঞ্চল্যকর ১৩ খুন         আমদানির পেঁয়াজ দ্রুত আসছে         দেশে করোনায় মৃত্যু ও শনাক্ত কমেছে         বিদেশী বিনিয়োগের জন্য চাই শক্তিশালী পুঁজিবাজার ॥ সালমান রহমান         এইচএসসি পরীক্ষা ও শিক্ষাঙ্গন খোলার সিদ্ধান্ত শীঘ্রই         মুজিববর্ষে এক শ’ ডিজিটাল সার্ভিস দেয়ার উদ্যোগ         মান বজায় রেখে স্থাপনা নির্মাণ শেষ করতে হবে নির্ধারিত সময়ে         শেখ হাসিনা একে একে জাতির পিতার স্বপ্ন বাস্তবায়ন করছেন         সিলেটের ঘটনার দায় নিরূপণে কমিটি করুন- হাইকোর্ট         বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত হত্যা বন্ধে একমত বাংলাদেশ-ভারত         এমসি কলেজের ওই ছাত্রাবাসে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটি         কুয়েতের আমির শেখ সাবাহ আর নেই         সারাদেশে কলেজগুলোতে বহিরাগত প্রবেশ নিষেধ         করোনা ভ্যাকসিন কিনতে বাংলাদেশকে ৩ মিলিয়ন ডলার অনুদান এডিবির         বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়ন করছেন শেখ হাসিনা : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         শিল্প এলাকায় শিল্পকারখানা স্থাপনের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর