ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৩ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

গাঁজার চালান বার বার ধরা পড়ছে

প্রকাশিত: ১০:৩০, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯

 গাঁজার চালান বার বার ধরা পড়ছে

স্টাফ রিপোর্টার ॥ গাঁজা নাকি স্বাস্থ্যের জন্য ভাল- এমন যুক্তি দেখিয়েই নিয়মিত চালান আনা হতো ঢাকায়। রাজধানীর বিত্তবান পরিবারের তরুণ-তরুণীদের কাছে জনপ্রিয় হয়ে ওঠা এই মাদকের ব্যবহার আশঙ্কাজনক হারে বেড়ে চলছে। যে কারণে বার বার ধরা পড়ছে গাঁজার বড় বড় চালান। ধরা পড়ার পর এমন সব আজগুবি তথ্য প্রকাশ করে মাদক ব্যবসায়ী মিন্টু। এক সপ্তাহের ব্যবধানেই বড় তিনটি চালান ধরেছে র‌্যাব-১। শনিবার ভোরেও সিলেট থেকে রাজধানীতে প্রবেশের মুখে গাজীপুরের বাসন এলাকায় ধরা পড়ে ৬০ কেজি গাঁজার একটি চালান। এ বিষয়ে র‌্যাবের মুখপাত্র লে. কর্নেল সারওয়ার বিন কাশেম জানান, চক্রটি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর চোখ ফাঁকি দেয়ার জন্য নিত্যনতুন কৌশল অবলম্বন করছে। কখনও যাত্রীবাহী বাসে করে, আবার কখনও কখনও ব্যক্তিগত প্রাইভেটকারে করে মাদকদ্রব্য নিয়ে আসছে। এ অবস্থায় গোপন সূত্রে জানা যায়, মৌলভীবাজার হতে একটি প্রাইভেটকারে করে মাদকদ্রব্য গাঁজার একটি বড় চালান রাজধানী ঢাকার উদ্দেশ্যে আসছে। এতে র‌্যাবের নজরদারি বাড়ানো হয়। শনিবার সকালে গাজীপুরের নাওজোড় বাইপাস রোডের উত্তর পার্শ্বে অবস্থিত মাম সিএনজি পাম্পের সামনে অভিযান পরিচালনা করে আন্তঃজেলা মাদক ব্যবসায়ী চক্রের সদস্য মোঃ মিন্টু মিয়া (৩৮)কে আটক করা হয়। এ সময় মিন্টুর প্রাইভেটকার হতে ৬০ কেজি গাঁজা জব্দ করা হয়। তাকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, সে পেশায় একজন প্রাইভেটকার চালক। সে প্রায় ২০-২২ বছর যাবত একজন ব্যাংক কর্মকর্তার গাড়ি চালাত। সে প্রাইভেটকার চালনার পাশাপাশি মৌলভীবাজারের জনৈক শফিকের মাধ্যমে মাদক ব্যবসায় জড়িয়ে পড়ে। সে দীর্ঘদিন যাবত মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। সে গাঁজার চালানটি মৌলভীবাজার জেলার শায়েস্তাগঞ্জ এলাকা হতে রাজধানীতে নিয়ে আসছিল। চালানটি রাজধানীর জনৈক মাদক ব্যবসায়ীর নিকট সরবরাহ করার কথা ছিল। এর আগেও সে ১০ বার মাদকের চালান ঢাকায় নিয়ে এসেছে বলে স্বীকার করে। চালান প্রতি মাদক ব্যবসায়ীরা তাকে ৪৫ হাজার টাকা করে দিত বলে জানায়।
monarchmart
monarchmart