শনিবার ৯ মাঘ ১৪২৮, ২২ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

বায়ুদূষণের জন্য সমন জারি

  • আদালতে হাজিরা দিলেন থাই প্রধানমন্ত্রী ও ব্যাঙ্ককের গবর্নর

থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী প্রায়ুথ চান ওচা, ব্যাঙ্ককের গবর্নর অসউইন কুয়ানমুয়াং এবং ন্যাশনাল এনভায়রনমেন্ট বোর্ডকে হাজিরা দেয়ার জন্য সমন জারি করেছে। বৃহস্পতিবার সেন্ট্রাল এ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ কোর্টে তারা হাজিরা দেন। দুমাস ধরে বৃহত্তর ব্যাঙ্কক এলাকায় ভয়াবহ বায়ুদূষণ অব্যাহত থাকায় তাদের আদালতে তলব করা হয়। দ্য ন্যাশন ও এশিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক।

স্টপ গ্লোবাল ওয়ার্মিং এ্যাসোসিয়েশন (এসজিডব্লিউএ) এবং ব্যাঙ্ককের ৪১ বাসিন্দার আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত ওই সমন জারি করে। তাদের বিরুদ্ধে ধোঁয়াশা নিয়ন্ত্রণ, পরিবেশ আইনের যথাযথ প্রয়োগ এবং দূষণ পিএম ২.৫ মাত্রায় রাখতে সরকারের অবহেলার অভিযোগ আনা হয়। আদালত প্রায়ুথ চান ওচা, কুয়ানমুয়াং এবং ন্যাশনাল এনভায়রনমেন্ট বোর্ডের অসহনীয় বায়ু দূষণের বিষয়ে জানতে চান। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা পিএম ২.৫ মাত্রাকে ক্যান্সার তৈরির মতো ঝুঁকিপূর্ণ বলে মত দিয়েছে। অভিযোগ উঠেছে দুমাস ধরে বাতাসে ক্ষতিকর উপাদানের উপস্থিতি বেড়ে চললেও কর্তৃপক্ষ এদিকে নজর দেয়নি। থাই চেম্বার্স অব কমার্সের দেয়া তথ্য মতে, ধোঁয়াশা দীর্ঘায়িত হওয়ার জন্য আর্থিক ক্ষতির পরিমাণও বাড়ছে। এর মাসিক লোকসানের পরিমাণ ৪৩৩ থেকে ৬৫০ মিলিয়ন ডলার পর্যন্ত হতে পারে।

নিজেদের অসুস্থতার কথা সামাজিক মাধ্যমে জানিয়ে দেশবাসীকে সতর্ক করছে ব্যাঙ্ককবাসী। এ অসুখ দূষণজনিত। থাইল্যান্ডের রাজধানীর বাতাসে তীব্র দূষণ, ধোঁয়াশা। রাস্তায় বের হলে অসুস্থতা অবধারিত। সেই অসুস্থতা কখনও কখনও রীতিমতো কাবু করে ফেলছে রোগীকে। অনেক সময় তা কাটিয়ে উঠতে দীর্ঘ সময় লাগছে। দূষণ নিয়ন্ত্রণ দফতরের মতে, ধূলিকণা আর পানির মিশ্রণ বাতাসের এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্স বা দূষণমাত্রা বাড়িয়ে তুলছে। আবহাওয়াবিদদের মতে, কলকারখানার দূষণ, শস্য পোড়ানো এবং রাস্তাঘাটের বাড়তি যানবাহনেই এই পরিস্থিতি রাজধানী শহরের। যেমন দিল্লীর ক্ষেত্রে হয়েছিল। সেখানেও ঠিক একই কারণে দূষণের মাত্রা বেশি। দূষণের সূচক মাত্রায় ব্যাঙ্কক এই মুহূর্তে উঠে এসেছে ৫ নম্বরে, এটা দিল্লীর চেয়ে অনেকটা নিচে। সমাধান হিসেবে কৃত্রিমভাবে মেঘ তৈরির পরিকল্পনা করা হচ্ছে। যাতে তুমুল বৃষ্টি নামে। তাহলেই দূষণমুক্ত হবে ব্যাঙ্ককের বাতাস। টেলিভিশন অনুষ্ঠানের মাধ্যমেও বাড়ছে সচেতনতামূলক প্রচার। এই সমস্যা এড়াতে কে, কোন ধরনের মাস্ক ব্যবহার করবেন, তার বিশদ বিবরণ দেয়া হচ্ছে। চিকিৎসকরা বলছেন, নিজের যত্নে এই মুহূর্তে সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ মাস্ক ব্যবহার করা। চীনে শুরু হয়ে চন্দ্র নববর্ষ। থাইল্যান্ডসহ এশিয়ার নানা দেশে এটাই নতুন বছর। এটি উৎসবের মৌসুম। নানা অনুষ্ঠানের মধ্যে আতশবাজি প্রদর্শনীও এখানকার একটি বড় আকর্ষণ। বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ, এই সময়ে আতশবাজি পোড়াবেন না, তাহলে পরিস্থিতি আরও দুরূহ হয়ে উঠতে পারে। তখন ব্যাঙ্ককের বাতাসে শ্বাস নেয়াই কঠিন হবে। তাই নিজেদের ভাল রাখতে এবারের নববর্ষে আনন্দ, উৎসব একটু কমই হোক।

বিষাক্ত ধোঁয়ার কারণে গত সপ্তাহে ব্যাঙ্ককের সব স্কুল বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয় কর্তৃপক্ষ। শিশুদের নজিরবিহীন বায়ু দূষণের ক্ষতি থেকে বাঁচাতেই এ পদক্ষেপের কথা বলা হলেও কবে নাগাদ স্কুল খুলবে এ বিষয়ে কোন তথ্য জানানো হয়নি। যানবাহন থেকে নির্গত ধোঁয়া, নির্মাণকাজ ও কল-কারখানা থেকে নির্গত বিষাক্ত পদার্থ মিলে এ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। জাতিসংঘের পরিবেশ বিষয়ক সংগঠনের ব্যাঙ্কক প্রধান কাকুকো নাগাতানি যোশিদা মনে করেন, বিশেষ করে কল-কারখানার বর্জ্যই যখন মূল কারণ, এই দূষণ এক দিনে সৃষ্টি হয়নি। থাই প্রশাসনের পদক্ষেপও সমালোচিত হচ্ছে। দূষণের জন্য ব্যাঙ্ককে লোকজন মাস্ক ব্যবহার করছে। হাসপাতালগুলোতে শ্বাসকষ্টের রোগী বাড়ছে বলে জানা গেছে।

শীর্ষ সংবাদ:
করোনা ভাইরাসে আরও ১৭ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৯৬১৪         রবিবার থেকে ভার্চুয়ালিও চলবে সব অধস্তন আদালত         করোনা টেস্ট ॥ চাপ বাড়ছে হাসপাতালে         বর্তমানে মজুদ রয়েছে ৯ কোটি টিকা ॥ তথ্যমন্ত্রী         দেখানোর জন্য নয়, নিজের স্বার্থেই পরতে হবে মাস্ক         বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে সশরীরে চলবে পরীক্ষা, খোলা থাকবে হল         মোবাইল ব্যাংকিংয়ে লেনদেন ৯০ হাজার কোটি টাকা         অতিরিক্ত আইজিপি হলেন ৭ কর্মকর্তা         রাজধানীতে জাল টাকাসহ গ্রেফতার ১         রাজধানীতে ৯ কেজি গাঁজাসহ আটক ১         প্রতারকের খপ্পরে পড়ে ১৮ দিনের সন্তান বিক্রি         ইয়েমেনের কারাগারে সৌদি হামলায় নিহত ৭০         ৩ বিভাগে বৃষ্টির পূ্র্বাভাস         মুম্বাইয়ে বহুতল ভবনে আগুন, নিহত ৭         নীলক্ষেত থেকে সরে গেলেন শিক্ষার্থীরা         মা হলেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া