ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

বরিশালে নবীন-প্রবীনের লড়াই

প্রকাশিত: ০০:৩৫, ২৬ জুলাই ২০১৮

বরিশালে নবীন-প্রবীনের লড়াই

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ আর মাত্র দুইদিন পরেই অনুষ্ঠিত হবে সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। আজ শেষ হচ্ছে প্রচার-প্রচারনা। তাই প্রচারণায় মহাব্যস্ত সময় পার করছেন মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা। বরিশাল সিটিতে এবার ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ও রাজপথের বিরোধী দল বিএনপি ছাড়াও মেয়র পদে প্রার্থী দিয়েছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ, বাসদ ও সিপিবি। কেন্দ্র থেকে আওয়ামী লীগ প্রার্থীকে সমর্থন দিয়েছে জাপা চেয়ারম্যান। এছাড়া নৌকার বিজয়ের লক্ষ্যে জাপার বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) মেয়র প্রার্থীও সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে আওয়ামী লীগ প্রার্থীকে সমর্থন দিয়েছেন। সূত্রমতে, নির্বাচনে বিএনপি চাচ্ছে অভিজ্ঞ (প্রবীণ) প্রার্থী মজিবর রহমান সরোয়ারকে দিয়ে বরিশাল নগরীতে দলের ক্ষমতা দীর্ঘায়িত করতে। অন্যদিকে আওয়ামী লীগ চাচ্ছে তরুন (নবীন) প্রার্থী সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহর মাধ্যমে নিজেদের হারানো নগর পিতার চেয়ার পুনরুদ্ধার করতে। বরিশালে মূল প্রতিদ্বন্ধিতা হবে নৌকা ও ধানের শীষ মার্কায়। অন্য প্রার্থীদের মধ্যে বেশ সুবিধাজনক অবস্থানে থাকা ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ অর্থাৎ চরমোনাই পীরের হাতপাখা মার্কার মেয়র প্রার্থী ওবায়দুর রহমান মাহবুব ভোট কাটবে ধানের শীষের। সবমিলিয়ে ৩০ জুলাইর নির্বাচনে বরিশালে নবীন-প্রবীনের লড়াই হবে। আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা মার্কার মেয়র প্রার্থী সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ’র পারিবারিক পরিচয়ের সাথে সাথে অতীতে আওয়ামী লীগ দলীয় মেয়র শওকত হোসেন হিরনের সময়কার বরিশাল নগরীতে ব্যাপক উন্নয়নের বিষয়টি ভোটারদের মুখে মুখে উঠে এসেছে। ভোটাররা মনে করছেন, আগামীর উন্নত বরিশাল গড়তে তরুন নেতৃত্বের কোন বিকল্প নেই। অন্যদিকে বিএনপির প্রার্থী কেন্দ্রীয় যুগ্ন মহাসচিব মজিবর রহমান সরোয়ারের এ নির্বাচন এখন অস্তিত্বের লড়াই হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে বরিশালে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর পক্ষে সর্বত্র গণজোয়ার উঠলেও নৌকার বিজয় ঠেকাতে কৌশলী অভিজ্ঞ প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থী নিরবে আওয়ামী লীগ নামধারী (সদ্য যোগদান করা) বৃহত একটি গ্রুপকে ম্যানেজ করেছে। যারা ভোটের দিন বুকে নৌকার ব্যাজ লাগিয়ে ধানের শীষে ভোট দেয়ার কৌশল এটেছে। এমন কথা নগরীর সর্বত্র চাউড় হয়েছে। এ ব্যাপারে জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রইচ সেরনিয়াবাত জনকন্ঠকে বলেন, সাধারণ ভোটারদের আশঙ্কাকে উড়িয়ে না দিয়ে বরং কাজে লাগিয়ে আমরা প্রস্তুত হয়েছি। ইতোমধ্যে আমরা চিহ্নিত করেছি কারা এটা করতে পারে। সেভাবেই প্রস্তুতি নিয়েছি। ফলে এবার আর ওইসব সুবিধাবাদীরা কোন সুযোগ পাবেনা। তিনি আরও বলেন, বিএনপির সকল ষড়যন্ত্রকে উপেক্ষা করে এখন বরিশালবাসীকে বেঁছে নিতে হবে তারা কি নগরীর উন্নয়ন চান, নাকি বিএনপির বর্তমান মেয়রের সময়কার গত পাঁচ বছরের মতো অবহেলিত থাকতে চান। উন্নয়ন চাইলে নির্বিঘেœ ৩০ জুলাইয়ের নির্বাচনে ভোট কেন্দ্রে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের প্রতীক নৌকার মার্কাকে বিজয়ী করার জন্য তিনি (রইচ সেরনিয়াবাত) সর্বস্তরের ভোটারদের প্রতি আহবান করেন। অপরদিকে প্রচারনার শুরু থেকে বরিশালে অবস্থান নেয়া কেন্দ্রীয় যুবলীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির অন্যতম সদস্য ও কেন্দ্রীয় যুবলীগের সহসম্পাদক মোঃ মিজানুর রহমান বৃহস্পতিবার সকালে বৃষ্টির মাঝেও নৌকা মার্কার সমর্থনে প্রচারনাকালে জনকন্ঠকে বলেন, বরিশালে নৌকার গণজোয়ার দেখে পরাজয় নিশ্চিত জেনে নির্বাচন বয়কটের পথ খুঁজছে বিএনপি। এজন্য তাদের লেভেল প্লেয়িং ফিল্ডসহ মিথ্যা অপপ্রচারের শেষ নেই। লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড না থাকলে তারা প্রচার-প্রচারনা চালাচ্ছেন কিভাবে। সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহকে সমর্থন দিয়ে নৌকার শতভাগ বিজয় নিশ্চিতে নেতাকর্মীদের নিয়ে মাঠে কাজ করার ঘোষণা দিয়েছেন হরিণ প্রতীকের স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী বশীর আহমেদ ঝুনু। বুধবার সন্ধ্যায় নগরীর দক্ষিণ আলেকান্দার নিজ বাসায় এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে তিনি এ ঘোষণা দিয়েছেন।
monarchmart
monarchmart