বুধবার ৮ আশ্বিন ১৪২৭, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

ত্রিপুরা থেকে ৫০০ মেগাওয়াট বিদ্যুত আমদানির প্রস্তুতি

  • ব্যয় হবে ২৫২ কোটি টাকা

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ দেশের পূর্বাঞ্চলের ক্রমবর্ধমান চাহিদা মেটাতে ভারতের ত্রিপুরা থেকে ৫০০ মেগাওয়াট বিদ্যুত আমদানির প্রস্তুতি নিচ্ছে বিদ্যুত, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়। এজন্য ত্রিপুরার সূর্যমণিনগর থেকে কুমিল্লা পর্যন্ত এইচভিডিসি ব্যাক টু ব্যাক স্টেশন নির্মাণ প্রকল্প প্রস্তাব করা হয়েছে পরিকল্পনা কমিশনে।

এক হাজার ৩৪২ কোটি ২৬ লাখ টাকার এই প্রকল্পের নাম ‘সূর্যমণিনগর (ত্রিপুরা, ভারত) থেকে কুমিল্লা উত্তরে (বাংলাদেশ) বিদ্যুত সরবরাহের জন্য কুমিল্লা উত্তরে ৫০০ মেগাওয়াট এইচভিডিসি ব্যাক টু ব্যাক স্টেশন নির্মাণ’। প্রকল্প ব্যয়ের ২৫২ কোটি ৫১ লাখ টাকা আসবে সরকারের নিজস্ব তহবিল থেকে এবং ১ হাজার ১৯ কোটি ৭৯ লাখ টাকা আসবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের (এডিবি) ঋণ থেকে। বাকি ৬৯ কোটি ৯৬ লাখ টাকা ব্যয় করা হবে বাস্তবায়নকারী সংস্থার নিজস্ব তহবিল থেকে।

এ প্রসঙ্গে পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি বাংলাদেশের (পিজিসিবি) সাব ডিভিশনাল ইঞ্জিনিয়ার দীপায়ন ভদ্র বলেন, ‘প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে ত্রিপুরা ও আসাম থেকে বিদ্যুত আমদানি করা সম্ভব হবে। ফলে দেশের বিদ্যুতের চাহিদা পূরণে তা বিশেষ ভূমিকা রাখবে। জাতীয় বিবেচনায় প্রকল্পটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।’

বিদ্যুত, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, বিদ্যুত সেক্টরে ভারত-বাংলাদেশ আঞ্চলিক সহযোগিতার জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপের (জে ডব্লিউ জি) ১২তম বৈঠক ২০১৬ সালের ১০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হয়। ওই বৈঠকে সূর্যমণিনগর থেকে ৫০০ মেগাওয়াট বিদ্যুত কুমিল্লা দিয়ে সরবরাহের বিষয়ে আলোচনা হয়। পরদিন ১১ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত ১২তম জয়েন্ট স্টিয়ারিং কমিটির (জেএসসি) বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়, জয়েন্ট টেকনিক্যাল টিম (জেটিটি) সম্ভাব্যতা জরিপ করে একটি ডিটেইল প্রজেক্ট রিপোর্ট (ডিপিআর) তৈরি করে জেডব্লিউজি’র বৈঠকে উপস্থাপন করবে। ২০১৭ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত ১৩তম জেডব্লিউজি বৈঠকে জেটিটি একটি প্রজেক্ট রিপোর্ট দাখিল করে এবং ২০১৭ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত ১৩তম জেএসসি বৈঠকে এই প্রকল্পটি এগিয়ে নিতে একমত জানানো হয়। প্রজেক্ট রিপোর্টের ভিত্তিতে এই প্রকল্পটির কার্যপরিধি নির্ধারণ করা হয়েছে।

রিপোর্ট অনুযায়ী, বর্তমানে ৪০০ কেভি ডাবল সার্কিট সঞ্চালন লাইনের মাধ্যমে ত্রিপুরার সূর্যমণিনগর থেকে কুমিল্লা (দক্ষিণ) উপকেন্দ্রের মাধ্যমে রেডিয়াল মোডে বাংলাদেশ ১৬০ মেগাওয়াট বিদ্যুত আমদানি করা হচ্ছে। এই লাইনের মাধ্যমেই সূর্যমণিনগর থেকে এই প্রকল্পের আওতায় নির্মিতব্য (উত্তর) এইচভিডিসি ব্যাক টু ব্যাক স্টেশন দিয়ে ৫০০ মেগাওয়াট বিদ্যুত আমদানি করা হবে।

পরিকল্পনা কমিশন সূত্র জানায়, প্রকল্পটির প্রস্তাব পাওয়ার পর গত ২৬ ফেব্রুয়ারি পরিকল্পনা কমিশনে প্রকল্প মূল্যায়ন কমিটির (পিইসি) সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ওই সভায় বিভিন্ন সুপারিশ প্রতিপালন করে পুনর্গঠিত উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাব (ডিপিপি) গত ২ এপ্রিল বিদ্যুত, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো হয়। এরপর ৮ মে পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল প্রকল্পের সারসংক্ষেপ অনুমোদন করেন। বর্তমানে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) বৈঠকে উপস্থাপনের জন্য প্রস্তুতি চূড়ান্ত করা হচ্ছে। অনুমোদন পেলে চলতি বছর থেকে ২০২১ সালের জুনের মধ্যে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি অব বাংলাদেশ (পিজিসিবি)।

এ প্রসঙ্গে প্রকল্পটির দায়িত্বপ্রাপ্ত পরিকল্পনা কমিশনের শিল্প ও শক্তি বিভবাগের সদস্য শামীমা নার্গিস বলেন, প্রকল্পটির সফল বাস্তবায়নের ফলে ত্রিপুরা ও আসাম থেকে ৫০০ মেগাওয়াট বিদ্যুত আমদানির জন্য প্রয়োজনীয় অবকাঠামো নিশ্চিত করা যাবে। এছাড়া, দেশের পূর্বাঞ্চলের ক্রমবর্ধমান বিদ্যুতের চাহিদা পূরণও সম্ভব হবে। এ বিবেচনায় প্রকল্পটি একনেকে উপস্থাপনের সুপারিশ করেছে পরিকল্পনা কমিশন।

করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
৩১৫০৭৬৮৫
আক্রান্ত
৩৫২১৭৮
সুস্থ
২৩১৩৪৭১২
সুস্থ
২৬০৭৯০
শীর্ষ সংবাদ:
প্রতিরোধের প্রস্তুতি ॥ শীতে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের আশঙ্কা         বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় বাস্তবসম্মত রোডম্যাপ চাই         সাউদিয়ার টিকেট নিয়ে হাহাকার- ক্ষোভ প্রবাসীদের         স্বাস্থ্যখাত যেন লুটপাটের সোনার খনি         নেদারল্যান্ডস-নিউজিল্যান্ড থেকে পেঁয়াজ আসছে         করোনায় দেশে মৃত্যু পাঁচ হাজার ছাড়িয়েছে         জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দিনরাত কাজ করছেন প্রধানমন্ত্রী         ৮ বিভাগে ৭১ উপজেলায় প্রশিক্ষণ কেন্দ্র স্থাপন করা হচ্ছে         শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার আগে এইচএসসি পরীক্ষা হচ্ছে না         কুকুর নিধন কিংবা অপসারণ করবে না উত্তর সিটি         জলবায়ু পরিবর্তনে ঠিক থাকছে না শরতের আবহাওয়া         স্ত্রীর কথায় হাতি কিনলেন দরিদ্র কৃষক         অবশেষে কালুরঘাটে সড়ক-রেল সেতু নির্মাণ হচ্ছে         জার্মানির সঙ্গে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বৃদ্ধিতে কাজ করতে হবে : স্পিকার         অর্থনীতি সচল রেখে করোনার দ্বিতীয় ওয়েভ মোকাবিলা করা হবে : মন্ত্রিপরিষদ সচিব         ৫৪ হাজার রোহিঙ্গাকে ফেরত দিতে চায় সৌদি : পররাষ্ট্রমন্ত্রী         শ্রমিকের বেতন নিয়ে তালবাহানা মানা হবে না : সাকি         আইন অনুযায়ী নুরের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         বাড়ির পাশ দিয়ে রাস্তা নেয়ার জন্য বাড়তি সড়ক না নির্মাণের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর         কারা ডিআইজি বজলুরের সম্পতি ক্রোক ও ব্যাংক হিসাব ফ্রিজের নির্দেশ