ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ২৯ জুন ২০২২, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯

পরীক্ষা মূলক

খেলা

দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে সিরিজ জিতবে ভারত ॥ কোহালি

প্রকাশিত: ১৯:৩১, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭

দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে সিরিজ জিতবে ভারত ॥ কোহালি

অনলাইন ডেস্ক ॥ দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রথম বার সিরিজ জেতার ক্ষমতা তাঁর ভারতীয় দলের আছে বলে মনে করছেন বিরাট কোহালি। কেপ টাউনে নামার পর তাঁর প্রথম সাংবাদিক সম্মেলনেই ভারত অধিনায়ক বলে দিলেন, ‘‘বিশ্বের যে কোনও পরিবেশে টেস্ট জেতার মতো বোলিং আক্রমণ এবং ভারসাম্য আমাদের দলে রয়েছে।’’ কেপ টাউনে ৫ জানুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজের প্রথম টেস্ট। কোহালি যদিও ইতিহাস সৃষ্টি নিয়ে মাথা ঘামাতে চান না। বলে দিচ্ছেন, ‘‘আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে সেশনগুলো জেতা, আমরা বর্তমানের উপর মনোনিবেশ করতে চাই। আমাদের নিজেদের দক্ষতার একশো শতাংশ কী করে প্রকাশ করা যায়, সেটা নিয়েই ভাবছি। কোনও একটা নির্দিষ্ট দেশে এসে ইতিহাস সৃষ্টি করাটা আমাদের লক্ষ্য নয়।’’ ২০১৩-’১৪ মরসুমে কোহালিরা শেষ বার দক্ষিণ আফ্রিকায় খেলে গিয়েছেন। সেই দলের সতেরো জনের মধ্যে তেরো জন এ বারেও আছেন। অভিজ্ঞতার দিক থেকে তাই আশ্বস্ত দেখাচ্ছে ভারত অধিনায়ককে। ‘‘আমাদের অনেকেই এখানে খেলেছে। কিন্তু আসল তফাতটা হচ্ছে তখন কতগুলো ম্যাচ খেলে এসেছিলাম আর এখন আরও কত বেশি ম্যাচ খেলে এখানে এসেছি। এখন নিজেদের খেলাটা আরও অনেক ভাল ভাবে বুঝি আমরা। নিজেদের দক্ষতার উপর অনেক বেশি বিশ্বাস এসে গিয়েছে আমাদের।’’ কোহালি পরিষ্কার করে এটাও বলে দিয়েছেন যে, প্রস্তুতি ম্যাচ বাতিল করে ঠিকই করেছে ভারতীয় দল। ‘‘দু’টো দিন নষ্ট করার কোনও মানে হয় না। প্রস্তুতি ম্যাচে নেমে হাফ সেঞ্চুরি করা যেতে পারে হয়তো। কিন্তু সেই হাফ সেঞ্চুরির কোনও মানে নেই।’’ অধিনায়ক মনে করছেন, তার চেয়ে নিজেদের ছেলেদের নিয়ে দিনে দু’টো করে প্র্যাকটিস সেশন করা ভাল। শনিবার দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রথম প্র্যাক্টিসে নেমেই দু’টো সেশন করেছেন তাঁরা। কোহালি বলছেন, ‘‘প্রস্তুতি ম্যাচ খেললে, যে-রকম পিচ দেবে তাতেই খেলতে হবে। নিজেদের মতো প্র্যাক্টিস করলে পিচে জল ঢেলে নিজেদের খুশি মতো পরিস্থিতি তৈরি করে অনুশীলন করা যায়।’’ দক্ষিণ আফ্রিকার শক্ত, দ্রুতগামী, বাউন্সি পিচে তাঁদের পরীক্ষা নেবে সে দেশের পেসাররা, মানছেন কোহালি। একই সঙ্গে জানিয়ে দিতে ভুলছেন না যে, তাঁরাও তৈরি হয়ে নামবেন। ‘‘৫ জানুয়ারি টেস্টের আগে আমরা তৈরি হয়ে যাব,’’ বলে দিচ্ছেন তিনি। আসন্ন সিরিজের সেরা আকর্ষণ হিসেবে ফের তাঁর সঙ্গে এ বি ডিভিলিয়ার্সের দ্বৈরথকে তুলে ধরা শুরু হয়ে গিয়েছে। কোহালি যেটা মানছেন না। বলে দিচ্ছেন, ‘‘এমন নয় যে, এই সিরিজে শুধু এই দু’জনই খেলছে। আমরা যেমন এ বি-কে আউট করতে চাইব, তেমনই ওরা আমাকে বা পূজারাকে বা রাহানের উইকেট তোলার চেষ্টা করবে।’’ রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরে এ বি এবং তিনি সতীর্থ। সে কথা মনে করিয়ে দিয়ে কোহালি যোগ করেন, ‘‘এ বি আমার দারুণ বন্ধু। যে ভাবে ও ক্রিকেট খেলে সেটাকে আমি খুব সম্মান করি। তেমনই সম্মান করি এ বি মানুষটাকে।’’ একই সঙ্গে মনে করিয়ে দিতে ভুলছেন না যে, এ বি অনেক দিন পরে টেস্ট ক্রিকেটে ফিরছেন। তাঁর সঙ্গে এ বি-র দ্বৈরথের উপর সিরিজের ভাগ্য নির্ভর করে আছে বলে মনে করছেন না কোহালি। তাঁর কথায়, ‘‘বাইরে যতই মশলা তৈরি করা হোক, মাঠের মধ্যে যে দল ধারাবাহিক ভাবে, দীর্ঘ সময় ধরে ভাল ক্রিকেট খেলবে, তাদেরই সিরিজ জেতার সম্ভাবনা বেশি থাকবে।’’ তাঁদের গ্রুপের মধ্যে কঠিন প্রতিপক্ষ এবং চ্যালেঞ্জের সামনে ভাল করতে চাওয়ার খিদে রয়েছে, বলেও মন্তব্য করেন ভারত অধিনায়ক। ‘‘প্রত্যেকে এই চ্যালেঞ্জকে সুযোগ হিসেবে দেখছে। সেটা খুবই উত্তেজিত হওয়ার মতো ব্যাপার,’’ বলছেন কোহালি। সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা