রবিবার ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৯ আগস্ট ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

ঠাকুরগাঁওয়ে গৃহবধুর মৃত্যু নিয়ে ‘নাটক’

ঠাকুরগাঁওয়ে গৃহবধুর মৃত্যু নিয়ে ‘নাটক’

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঠাকুরগাঁও ॥ জেলার সীমান্তবর্তী হরিপুর উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নের খোলড়া গ্রামে সপ্তাহখানেক আগে মৌসুমী আক্তার (১৯) নামে এক গৃহবধুর গলায় ফাঁস দিয়ে মৃত্যূর ঘটনা নিয়ে এলাকায় নানান ধরনের নাটক শুরু হয়েছে।

হরিপুর থানার ওসি রুহুল কুদ্দুস বলেন, গৃহবধু মৌসুমী আক্তার (১৯) এর মৃত্যুর ঘটনায় তাঁর চাচা আব্দুল হাই গত বৃহস্পতিবার (২৮ ডিসেম্বর) দুপুরে বাদী হয়ে ‘আত্মহত্যা প্ররোচনা’ অভিযোগ এনে একটি মামলা দায়ের করেছেন। সে মামলায় কাজী আবুল কালাম আজাদ, মৌসুমীর স্বামী জাহাঙ্গীর আলম সহ ১০ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরো ৩ জনকে আসামী করা হয়।

ইতোমধ্যে পুলিশ অভিযুক্ত কাজী আবুল কালাম আজাদকে গ্রেপ্তার করে জেলা কারাগারে পাঠিয়েছেন। ওই মৃত্যূ নিয়ে এরআগে গত বৃহস্পতিবার (২১ ডিসেম্বর) গৃহবধু মৌসুমী আক্তারের মা দুখী থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, বছর খানের আগে হরিপুর উপজেলার আমগাঁও ইউনিয়নের প্রয়াত হবিবর রহমানের মেয়ে মৌসুমী আক্তারের সাথে খোলড়া গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের বিয়ে হয়। ট্রাকের হেলপারের কাজ করায় জাহাঙ্গীর আলম প্রায় সময় ঠাকুরগাঁওয়ের বাহিরে থাকতেন। এ সুযোগে জাহাঙ্গীর আলমের ছোট ভাই হাসিবুল ইসলামের সঙ্গে গৃহবধু মৌসুমী আক্তারের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ১৪ ডিসেম্বর রাতে হাসিবুল ইসলাম ও গৃহবধু মৌসুমী আক্তারকে আপত্তিকর অবস্থায় আটক করে স্বামী জাহাঙ্গীর আলম। এরপর ওই রাতেই স্থানীয় মাতব্বরদের নিয়ে জাহাঙ্গীর আলমের বাড়িতেই শালিস বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে স্থানীয় কাজী আবুল কাজাল আজাদ ছাড়াও গ্রাম্য মাতব্বর আব্দুল কাদের, সাবেক ইউপি সদস্য জামালসহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে গ্রামের মাতব্বরগন গৃহবধু মৌসুমিকে অশ্লীল ভাষায় নানা ধরনের কটুক্তি করেন। এসময় গৃহবধু মৌসুমী তাঁর স্বামী জাহাঙ্গীর আলমের কাছে ক্ষমা চায় এবং পুনরায় উভয়ে সংসার জীবনে ফিরে যাবেন বলে সম্মতি দেয়।

পরদিন শুক্রবার (১৫ ডিসেম্বর) গৃহবধু মৌসুমী তাঁর মায়ের কাছে চলে যায়। এরপর রবিবার (১৭ ডিসেম্বর) স্ত্রীকে ফেরৎ আনতে স্বামী জাহাঙ্গীর আলম শ্বশুর বাড়িতে যায়। সেখানে তিনদিন থাকার পর বুধবার (২০ ডিসেম্বর) জাহাঙ্গীর আলম তাঁর স্ত্রী মৌসুমীকে নিয়ে নিজ বাড়িতে চলে আসে। পরদিন বৃহস্পতিবার (২১ ডিসেম্বর) বিকেলে গৃহবধু তাঁর স্বামীর বাড়িতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। শুক্রবার সরেজমিনে গিয়ে এ ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায়।

স্থানীয় বাসিন্দা মরিয়ম বেগম জানান, হাসিবুল ইসলাম ও মৌসুমী আক্তারকে আপত্তিকর অবস্থায় আটক করা হয়েছিল। রাতে উভয়কে নিয়ে শালিস বৈঠক হয়। বৈঠকে ‘ইসলামী শরিয়ামতে’ দোররা মারার বিষয়ে কথা হলে গৃহবধু মৌসুমী তাঁর স্বামী জাহাঙ্গীর আলম সহ সকলের কাছে ক্ষমা চায়। এরপর সবাই মিলে মৌসুমীকে মাপ করে দেয়। এখানে মৌসুমীকে দোররা বা মারপিটের ঘটনা ঘটেনি।

মামলার বাদী আব্দুল হাই জানান, যারা শালিস বৈঠক করেছিলেন তারা আমার ভাতিজী মৌসুমী আক্তারকে নানা ধরনের অশ্লীল কথা বলে কটুক্তি করেছিলেন। পুনরায় স্বামীর বাড়িতে ফেরৎ আসার পর উক্ত বৈঠককারীরা আবারো অশ্লীল কথাবার্তা বললে আমার ভাতিজী মৌসুমী আক্তার মনের দু:খ্যে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

স্বামী জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আমার স্ত্রী ও ছোট ভাইকে আপত্তিকর অবস্থায় আমি নিজেই আটক করেছি; এরপর আমি নিজে ওই দুইজনকে দুই-চারটা চরথাপ্পর দিয়েছিলাম। শালিসে আমার স্ত্রীকে কোন দোররা মারা হয়নি। কিছু ব্যক্তি মিথ্যা দোররা মারার বিষয়টি এলাকায় ছড়াচ্ছে।

হরিপুর থানার ওসি রুহুল কুদ্দস বলেন, স্থানীয় কিছু ব্যক্তি আত্মহত্যার বিষয়টিকে অন্য দিকে নিয়ে যাওয়ার জন্য এলাকায় বিভিন্ন ধরনের কথা ছাড়াচ্ছে। গৃহবধু আত্মহত্যা করেছে; তাকে হত্যা করা হয়নি। সুরতহাল রিপোর্ট করার সময়ও গৃহবধুর শরীরে কোন ধরনের আঘাতের চি‎হ্ন পাওয়া যায়নি। তারপরও আমরা গৃহবধু মৌসুমী আক্তারের ময়নাতদন্ত করেছি। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পাওয়া গেলে অনেক বিষয় পরিস্কার হয়ে যাবে।

তিনি আরও বলেন, এ পর্যন্ত ওই ঘটনায় আমরা একজন আসামীকে গ্রেপ্তার করেছি, খুব শীঘ্রই অন্য আসামীদেরও গ্রেপ্তার করা হবে।

করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
১৯৫৬৪৫৮৪
আক্রান্ত
২৫৫১১৩
সুস্থ
১২৫৬০২৯৬
সুস্থ
১৪৬৬০৪
শীর্ষ সংবাদ:
প্রাণ ভিক্ষা চাননি ॥ খুনীদের কাছে         রাজধানী ও আশপাশের এলাকায় কমতে শুরু করেছে পানি         রাঘব বোয়ালরা অধরাই ॥ মানব পাচার         গ্যাসক্ষেত্র কিনে নেয়ার সাহসী সিদ্ধান্ত বঙ্গবন্ধুই নিয়েছিলেন         প্রদীপের প্রাইভেট বাহিনীর তাণ্ডব ওপেন-সিক্রেট         রুশ ভ্যাকসিন আসছে আর মাত্র ৩ দিন পর         বার বার আহ্বান সত্ত্বেও করোনা টেস্টে মানুষের সাড়া মিলছে না         করোনায় আরও ৩২ জনের মৃত্যু         কাল লন্ডন-সিলেট রুটে বিমানের ফ্লাইট চালু হচ্ছে         কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কারিকুলাম আধুনিক করতে হবে         চুয়াডাঙ্গা ও ময়মনসিংহে বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঝরল ১৩ প্রাণ         স্রোতে শিমুলিয়ার দুটি ঘাট বিলীন ॥ ফেরি চলাচলে অচলাবস্থা, দুর্ভোগ         কাঁচা চামড়া রফতানি নিয়ে দোটানায় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়         ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় সড়ক দুর্ঘটনায় ৭ জনের মৃত্যু         মুজিববর্ষে বঙ্গবন্ধুর খুনীর একজনকে দেশে আনার প্রক্রিয়া চলছে ॥ পররাষ্ট্রমন্ত্রী         দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ২৬১১ জনের করোনা শনাক্ত, নতুন মৃত্যু ৩২         মির্জাপুরে দুই মোটরসাইকেল আরোহীর গলাকাটা লাশ উদ্ধার         কাল থেকে শুরু হচ্ছে একাদশে ভর্তি আবেদন         বঙ্গমাতা ছিলেন জাতির পিতার যোগ্য ও বিশ্বস্ত সহচর ॥ প্রধানমন্ত্রী         বঙ্গমাতা ছিলেন বঙ্গবন্ধুর সার্বক্ষণিক রাজনৈতিক সহযোদ্ধা॥ সেতুমন্ত্রী        
//--BID Records