শনিবার ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৮ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজের লেনদেন শুরু আজ

  • জেড ক্যাটাগরিতেই থাকবে কোম্পানি

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ পুঁজিবাজারে দীর্ঘদিন ওভার দ্য কাউন্টার (ওটিসি) মার্কেটে লেনদেনের পর মূল মার্কেটে লেনদেন শুরু হতে যাচ্ছে বস্ত্র খাতের কোম্পানি আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের। আজ বৃহস্পতিবার থেকে মূল মার্কেটে লেনদেন করবে প্রতিষ্ঠানটি।

আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের টেডিং কোড হবে ‘অওখ’ এবং কোম্পানির কোড হবে ১৭৪৩৬। আর ওটিসি থেকে উঠে আসার কারণে জেড ক্যাটাগরি থেকে লেনদেন শুরু করবে কোম্পানিটি। শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ঘোষিত লভ্যাংশ বার্ষিক সাধারণ সভায় (এজিএম) অনুমোদন এবং তা বণ্টনের পর নিয়মানুযায়ী কোম্পানির ক্যাটাগরি পরিবর্তনের বিষয়টি সামনে আসবে।

জানা গেছে, গত ২০০৯ সালে অক্টোবর মাসে আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজ ওটিসি মার্কেটে চলে যায়। অবশ্য ওই সময়ে প্রতিষ্ঠানটির নাম ছিল সজিব নিটওয়্যার লিমিটেড। ওই বছরে জেড ক্যাটাগরির ৫১টি কোম্পানি নিয়ে চালু হয় ওটিসি মার্কেট। যেই তালিকায় ছিল প্রতিষ্ঠানটি।

২০১০ সালে আলিফ গ্রুপ প্রতিষ্ঠানটির উদ্যোক্তা পরিচালকদের শেয়ার কিনে এর মালিকানা নিয়ে নেন। এরপর নতুন নাম দেন আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড। নতুন মালিকানায় কোম্পানিটি ঘুরে দাঁড়াতে শুরু“করে। কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদ শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ২০১৪ সালে ১০% নগদ, ২০১৫ সালে ১২% বোনাস, ২০১৬ সালে ৩১% বোনাস এবং ২০১৭ সালে ১০% নগদ এবং ২৫% বোনাস লভ্যাংশ ঘোষণা করে। এই ধারাবাহিকতায় কোম্পানিটি মূল মার্কেটে লেনদেন করার জন্য প্রয়োজনীয় সব শর্ত পূরণ করে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) অনুমতি পায়।

মূলত লোকসানের পর লোকসান, নিয়মিত বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) না করা, সিকিউরিটিজ আইন পরিপালন না করা, বিনিয়োগকারীদের লভ্যাংশ দিতে না পারা কোম্পানিগুলো ছিল ওটিসি মার্কেটে। এরপর আরও ২৯টি কোম্পানিকে এই তালিকায় যুক্ত করা হয়। তবে পরবর্তীতে আর্থিক অবস্থা পরিবর্তন ও সিকিউরিটিজ আইন পরিপালন করা ১২টি কোম্পানিকে মূল মার্কেটে ফিরিয়ে আনা হয়।

এর আগে ডিএসইর পরিচালনা পর্ষদের ৮৮০তম সভায় কোম্পানিটিকে মূল মার্কেটে ফিরিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এরপর ডিএসই ম্যানজেমেন্ট মূল মার্কেটে লেনদেনের বৃহস্পতিবার তারিখ নির্ধারণ করে। মূল মার্কেটে লেনদেন করার জন্য প্রয়োজনীয় সব শর্ত পূরণ করে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) অনুমতি পায় কোম্পানিটি।

৩০ জুন, ২০১৭ সমাপ্ত হিসাব বছরে শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ৩৫ শতাংশ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজের পরিচালনা পর্ষদ। এর মধ্যে ২৫ শতাংশ বোনাস এবং ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ। আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪ টাকা ৩৭ পয়সা। আর শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদমূল্য (এনএভি) ২৪ টাকা ১৪ পয়সা।

১৯৯৫ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হওয়া কোম্পানিটির ৩ কোটি ৭৭ হাজার ৬০০ শেয়ারের মধ্যে বর্তমান পরিচালকদের কাছে ৭৬.৮৭ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের কাছে ৬.৩৩ শতাংশ এবং সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে ১৬.৮০ শতাংশ শেয়ার রয়েছে। উল্লেখ্য, নাম পরিবর্তনের আগে আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজের নাম ছিল সজিব নিটওয়্যার লিমিটেড। ২০০৯ সালে এই সজিব নিটওয়্যার মূল মার্কেট থেকে ওটিসিতে চলে যায়।

শীর্ষ সংবাদ:
আস্থা অর্জনই চ্যালেঞ্জ ॥ ইভিএম নিয়ে ব্যাপক পরীক্ষা-নিরীক্ষা ইসির         অগ্রাধিকার সুবিধা অব্যাহত রাখতে সহযোগিতা চাই         মাদক কারবারিদের চিহ্নিত করে ধরিয়ে দিন ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         টিকে থাকার ক্ষমতা হারাচ্ছে গাছ উপড়ে পড়ছে সামান্য ঝড়ে         প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ ॥ প্রচার শুরু         জনবল সঙ্কটে খুঁড়িয়ে চলছে নাটোর সদর হাসপাতাল         সন্তান জন্ম দিতে গিয়ে এখনও মারা যাচ্ছেন অনেক মা         ঢাকার ২ শতাধিক স্পটে হঠাৎ বেপরোয়া ছিনতাইকারী চক্র         জমে উঠেছে কেনাবেচা ভাল দাম পেয়ে কৃষকের মুখে হাসি         রোহিঙ্গাদের ফেরাতে এশিয়ার দেশগুলোর সহযোগিতা চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী         তারেক জিয়াকে দেশে ফেরাতে আলোচনা চলছে : তথ্যমন্ত্রী         আমাদের নিজস্ব পলিসি আছে এবং পলিসি অনুযায়ী দেশ চলে : এলজিআরডি মন্ত্রী         বিশ্বমানের ক্যানসার চিকিৎসা মিলবে গণস্বাস্থ্যে         নিষেধাজ্ঞা সরিয়ে বাংলাদেশে গম পাঠাবে ভারত         ভারত ও বাংলাদেশ দুই আদালতে পিকে হালদারের বিচার হবে ॥ দুদক কমিশনার         সীমান্তে মাদক ও মানবপাচার রোধে কাজ করছে বিজিবি ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         বিদেশে প্রশিক্ষণে গিয়ে পুলিশের ২ সদস্য লাপাত্তা         পি কে হালদারসহ ৫ জন ফের ১১ দিনের জেল হেফাজতে         করোনা : দেশে আজও মৃত্যু নেই, শনাক্ত ২৩         খাদ্য সংকট দূর করতে পুতিনের প্রস্তাব