বুধবার ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

নির্বাচনে অংশ নিতে ত্রিমুখী প্রস্তুতি জাপার

  • সম্ভাব্য প্রার্থীদের চিঠি দেয়া শুরু

রাজন ভট্টাচার্য ॥ আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে ত্রিমুখী প্রস্তুতি নিচ্ছে বিরোধী দল জাতীয় পার্টি! একদিকে এরশাদের নেতৃত্বাধীন নামসর্বস্ব ৫৮ দলীয় জোট নিয়ে এককভাবে নির্বাচনে অংশ নিতে চায় দলটি। সেইসঙ্গে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের সঙ্গে আসন ভাগাভাগি করে নির্বাচনে অংশ নেয়ারও প্রস্তুতি রয়েছে। আবার দলের পক্ষ থেকে তৃতীয় সারির সমমনা আরও বেশ কয়েকটি রাজনৈতিক দলকে সঙ্গে নিয়ে বৃহৎ রাজনৈতিক জোট গঠনের কথাও বারবার বলে আসছেন দলটির শীর্ষ নেতারা। তবে সবকিছুই নির্ভর করছে নির্বাচনে বিএনপির শেষ পর্যন্ত অংশ নেয়া, না নেয়া ও সর্বশেষ নির্বাচন পদ্ধতি কী হবে তার ওপর। এদিকে প্রায় ৩০০ আসনে প্রার্থী বাছাই চূড়ান্ত করেছে দলটি। প্রতি আসন থেকে তিনজন করে সম্ভাব্য প্রার্থী ঠিক করা হয়েছে। এরমধ্যে অন্তত ছয়জনের মনোনয়ন ঠিক করে আনুষ্ঠানিক চিঠি দেয়া হয়েছে দলের পক্ষ থেকে।

এসব বিষয়ে জানতে চাইলে সম্প্রতি এরশাদ বলেন, সবদিক মাথায় রেখেই আমরা নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছি। সময়ই বলে দেবে আমরা কিভাবে অংশ নেব। তবে এককভাবে নির্বাচনে অংশ নেয়ারও প্রস্তুতি রয়েছে। সে অনুযায়ী প্রার্থী বাছাইয়ের কাজও শেষ হয়েছে বলে জানান তিনি।

দলের নেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও ক্ষমতার কাছাকাছি থাকতে চান এরশাদ। রাজনীতির শেষ সময়ে তিনি কোন ঝুঁকি নিতে চান না। তার সবচেয়ে বড় ভয় মামলা ও দ-। তাই যে দল ক্ষমতায় আসবে তাদের সঙ্গে রাজনৈতিক জোট হবে এরশাদের।

সূত্র জানায়, ইতোমধ্যে আগামী নির্বাচনের জন্য আওয়ামী লীগের কাছে ১০০ আসন চেয়েছে জাতীয় পার্টি। সম্প্রতি দলের পক্ষ থেকে আসন ও প্রার্থীদের তালিকা তুলে দেয়া হয়েছে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের হাতে। যদিও এ বিষয়ে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত জাপাকে কোন সিদ্ধান্ত জানানো হয়নি। এর মধ্যে শরিক দলের জন্য রাখা হয়েছে ২০টি আসন। অপর একটি সূত্র বলছে, ২০টির কথা বলা হলেও মূলত শরিকদের জন্য চারটি আসন ছাড় দেবে জাপা।

দ্বিতীয়ত, বিএনপি নির্বাচনে অংশ না নিলে জাতীয় পার্টি আওয়ামী লীগের সঙ্গে সমঝোতা করে ৩০০ আসনে প্রার্থী দেবে। বিএনপি নির্বাচনে এলে আওয়ামী লীগের সঙ্গে আবারও মহাজোট গঠন করে নির্বাচনে অংশ নেবে জাপা। সঙ্গে থাকবে ১৪ দল। জাপা নেতারা জানিয়েছেন, ১৪ দলীয় জোটের পরিধি বাড়লেও রাজনৈতিক কারণে মহাজোটে যেতে আপত্তি নেই তাদের।

অপরদিকে বিকল্পধারা, গণফোরাম, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগসহ বেশ কয়েকটি রাজনৈতিক দলের সঙ্গে জাতীয় পার্টির জোট করার আলোচনা রয়েছে রাজনীতির মাঠে। সম্প্রতি এ ইস্যুতে একাধিক বৈঠকও হয়েছে। যদিও তৃতীয় রাজনৈতিক শক্তি গড়ার উদ্যম এখন চোখে পড়ছে না। জাপা নেতারা জানিয়েছেন, ৫৮ দলের সঙ্গে জাপার জোট হলেও এর মধ্যে নিবন্ধিত মাত্র দুটি দল। তাই তৃতীয় সারির দলগুলোকে ঐক্যবদ্ধ করতে পারলে রাজনীতির হিসাব-নিকাশ একেবারেই পাল্টে যাবে।

জানতে চাইলে পার্টির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার বলেন, জাতীয় পার্টি ৩০০ আসনে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছে। প্রার্থী বাছাইয়ে জনপ্রিয়তা, ক্লিন ইমেজ ও দলের জন্য ত্যাগী নেতাদের কথা ভাবা হচ্ছে। তিনি বলেন, আগামীতে প্রার্থী হতে হলে এসব পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে। উড়ে এসে জুড়ে বসার সুযোগ নেই। তিনি বলেন, আমাদের সামনে এখন একটাই লক্ষ্য তা হচ্ছে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভাল ফল অর্জনের মাধ্যমে জাতীয় পার্টিকে ক্ষমতায় নেয়া। তাই আমরা আগেভাগেই নির্বাচনের সর্বাত্মক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছি।

তিনি আরও বলেন, দলের নেতারা কে কোন আসন থেকে নির্বাচন করতে চান, পার্টি চেয়ারম্যান ইতোমধ্যে তা জানতে চেয়েছেন। সে অনুযায়ী তালিকা হয়েছে। তিনি জানান, জাতীয় পার্টির জাগরণ সৃষ্টি করতে নানামুখী কর্মসূচী নেয়া হয়েছে। এর মধ্যে লঞ্চমার্চ, ট্রেনমার্চ, বিভাগীয় মহাসমাবেশসহ ঢাকায় কেন্দ্রীয়ভাবে মহাসমাবেশের আয়োজন করা হবে।

জাপা নেতারা মনে করেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপক্ষে হলে প্রধান দুটি জোট যত শক্তিশালী হোক, হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে। সেক্ষেত্রে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাওয়ার লক্ষ্যে সংসদে ৪০ আসন নিয়ে বিরোধী দলে থাকা জাতীয় পার্টিকে নিয়ে শুরু হবে টানাটানি। অস্তিত্ব উদ্ধার-পুনরুদ্ধারের এ নির্বাচনে জাপার যে কোন আবদার পূরণে বড় দুই দল পিছপা হবে না। জাতীয় পার্টি সে সুযোগই খুঁজছে। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী নির্বাচনে জাতীয় পার্টি যে একটি বড় ফ্যাক্টর হবে, তা বুঝে এখন থেকেই দলটির সঙ্গে সখ্য গড়ে তুলছে অন্যান্য রাজনৈতিক দল।

পার্টির আরেকটি সূত্র জানায়, ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হতে নয়, শক্তিশালী বিরোধী দলের ভূমিকায় থাকার জন্যই ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সঙ্গে সমঝোতা করে নির্বাচনে অংশ নেয়ার কৌশল নিয়েছে জাতীয় পার্টি। এজন্য আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে জাতীয় পার্টি আওয়ামী লীগ ও বিএনপিকে ঘিরে তৈরি করেছে একটি নির্বাচনী রোডম্যাপ। এ রোডম্যাপ অনুযায়ী বিএনপি নির্বাচনে অংশ নিলে জাতীয় পার্টির নির্বাচনী কৌশল হবে এক রকম আর বিএনপি নির্বাচনে অংশ না নিলে কৌশল হবে অন্য রকম। এখন নির্বাচনী প্রচার চলবে এক রকম আবার নির্বাচনের সময় ঘনিয়ে এলে জাপার নির্বাচনী কর্মকৌশল হবে ভিন্ন। এসব মিলিয়ে জাতীয় পার্টি তৈরি করেছে একটি নির্বাচনী রোডম্যাপ।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, নির্বাচনের প্রস্তুতিসংক্রান্ত যাবতীয় বিষয় এরশাদ নিজেই তত্ত্বাবধান করছেন। এক্ষেত্রে তাকে সহায়তা করছেন পার্টির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার। ইতোমধ্যে দলের সংসদ সদস্যদের যার যার নির্বাচনী এলাকায় আরও বেশি সময় দেয়ার জন্য বলেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান। সংসদ সদস্যদের বাইরে দলের শীর্ষ নেতা এবং সম্ভাব্য প্রার্থীদেরও যার যার এলাকায় যাতায়াত বাড়াতে বলেছেন তিনি।

সম্ভাব্য প্রার্থীদের চিঠি ॥ আগামী নির্বাচনে বিভিন্ন আসনে সম্ভাব্য প্রার্থীদের দায়িত্ব দিয়ে আনুষ্ঠানিক চিঠি দেয়া শুরু করেছেন জাপাপ্রধান এরশাদ। পার্টির গঠনতন্ত্রের ২০/১/ক ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে দলের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য মোহাম্মদ মোহিবুল্লাহকে আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ২৯৫ কক্সবাজার-২ (মহেশখালী-কুতুবদিয়া) আসনের জাতীয় পার্টির প্রার্থী হিসেবে সার্বিক সাংগঠনিক দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছে।

সোমবার বনানীর এরশাদের কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে মহিবুল্লাহর হাতে চিঠি তুলে দেয়া হয়। এ সময় দলের কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদারসহ কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন। চিঠিতে বলা হয়, ‘উল্লিখিত আসনের অন্তর্গত উভয় উপজেলার জাতীয় পার্টিসহ সব অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের সর্বস্তরের কমিটিসমূহ গঠন-পুনর্গঠন বা শক্তিশালী করার ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। জাতীয় পার্টির জেলা কমিটি আপনাকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করবে।’ রাজশাহী-৩ (পবা-মোহনপুর) আসনের প্রার্থী হিসেবে রাজশাহী মহানগর জাপা সভাপতি শাহাবুদ্দিন বাচ্চুকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ (সদর-বিজয়নগর) আসনে জাপা চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা এ্যাডভোকেট রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়াকে এবং চাঁদপুর-২ (মতলব উত্তর/দক্ষিণ) আসনে দলের ভাইস চেয়ারম্যান এমরান হোসেন মিয়াকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। এছাড়াও আরও বেশ কয়েকজনকে নিজ এলাকার দায়িত্ব দিয়ে মনোনয়নের চিঠি দেয়া হয়েছে।

শীর্ষ সংবাদ:
ফেনী নদীতে চলছে মুহুরী সেতু নির্মাণ কাজ         মহিলা হোস্টেলসহ ৮ স্থাপনা উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী         জিয়ার শাসনামলে মুক্তিযোদ্ধাদের হত্যা করা হয়েছে নির্বিচারে ॥ দীপু মনি         ভিত্তিহীন অভিযোগে আবরারকে হত্যা ॥ পর্যবেক্ষণে বিচারক         পটুয়াখালীতে শুরু হলো মুক্তির বিজয় উৎসব         মধ্যাহ্ন বিরতিতে বাংলাদেশ         বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার হত্যা ॥ ২০ জনের মৃত্যুদণ্ড         আবরার হত্যা ॥ আসামিদের বিরুদ্ধে রায় পড়া শুরু         নীলফামারীতে ট্রেনে কাটা পড়ে একই পরিবারের ৩ শিশুসহ ৪ জন নিহত         জবি কেন্দ্রে দ্বিতীয় ডোজ টিকা পেল ১৪০৬ জন শিক্ষার্থী         আজ শায়েস্তাগঞ্জ ও আজমিরীগঞ্জ পাকসেনা মুক্ত হয়েছিল         ডাক্তার মুরাদের এমপি পদের বৈধতা নিয়ে রিট         বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার হত্যা ॥ মামলার ২২ আসামি আদালতে         পটুয়াখালী মুক্ত দিবস আজ         মুরাদের বিতর্কিত ১৫ অডিও-ভিডিও অপসারণ         গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় মারা গেছেন ৭ হাজার ৫৯৯ জন         জাতিসংঘ মহাসচিব আইসোলেশনে         ট্রেনে কাটা পড়ে নীলফারীতে ৪ জনের মৃত্যু         ২১৩ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ         মুরাদের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করে প্রজ্ঞাপন জারি