ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯

হাবিবুল আলম

যুক্তরাষ্ট্রে উচ্চশিক্ষা বাংলাদেশে বসেই এসিটি পরীক্ষা

প্রকাশিত: ০৫:১৯, ২৯ অক্টোবর ২০১৭

যুক্তরাষ্ট্রে উচ্চশিক্ষা বাংলাদেশে বসেই এসিটি পরীক্ষা

যুক্তরাষ্ট্রে এখন বাংলাদেশের অনেক শিক্ষার্থী পড়ছেন। জার্মানভিত্তিক টেস্টিং ও সার্টিফিকেশন প্রতিষ্ঠান টিইউভি এসইউডির তথ্যানুসারে, যুক্তরাষ্ট্রে অধ্যয়নরত স্নাতকোত্তর পর্যায়ের শিক্ষার্থীর দিক থেকে বাংলাদেশ বিশ্বে ১১তম। আর স্নাতক শিক্ষার্থীর সংখ্যায় ২৬তম। পরিসংখ্যান বিবেচনায় বাংলাদেশী শিক্ষার্থীদের ঈর্ষণীয় গন্তব্য নিঃসন্দেহে যুক্তরাষ্ট্র। যুক্তরাষ্ট্রসহ উত্তর আমেরিকার দেশগুলোর বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে তীব্র প্রতিযোগিতার মুখোমুখি হতে হয়। কাক্সিক্ষত বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি ও পূর্ণকালীন বৃত্তি পেতে ভাল ফলাফলের পাশাপাশি জিআরই, এসএটি, আইএলটিএস, টোফেল প্রভৃতি পরীক্ষায় ভাল করাও জরুরী। উচ্চ মাধ্যমিক ও স্নাতকপর্যায়ে ভর্তির ক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্রের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আমেরিকান কলেজ টেস্টিং বা এসিটি পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বর খুবই গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করা হয়। এসিটি পরীক্ষায় ভাল নম্বর পেলে যুক্তরাষ্ট্রের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তির সুযোগ অনেকটাই সহজ হয়ে যায়। এসিটি পরীক্ষায় ইংলিশ, ম্যাথ, রিডিং ও সোশ্যাল রিজনিংয়ের ওপর প্রশ্ন হয়। প্রতিটি ক্যাটাগরিতে সর্বোচ্চ নম্বর ৩৬। বিষয়ভেদে বহুমুখী নির্বাচনী প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার জন্য ৩৫-৬০ মিনিট সময় থাকে। যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এসিটি পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ করে মার্কিন অলাভজনক প্রতিষ্ঠান এসিটি ইনকরপোরেশন। কলেজ ও ক্যারিয়ার প্রস্তুতি এবং ভর্তি-সংক্রান্ত কাগজপত্র মূল্যায়নের কাজটি তারা ৬০ বছর ধরে করে আসছে। সম্প্রতি বাংলাদেশে নিজেদের কার্যক্রম শুরু করেছে এসিটি ইনকরপোরেশন। বাংলাদেশে এই আন্তর্জাতিক সংস্থার কার্যক্রম পরিচালনার দায়িত্ব পেয়েছে টিইউভি এসইউডি। ফলে এখন থেকে বাংলাদেশী শিক্ষার্থীরা দেশে বসেই এসিটি পরীক্ষা দিতে পারবেন। টিইউভি এসইউডি বাংলাদেশের প্রধান এজহিলান এন জানান, চলতি বছরের শেষ দিকে তাঁরা বাংলাদেশে এসিটি পরীক্ষার কার্যক্রম শুরু করার ব্যাপারে আশাবাদী। টিইউভি এসইউডি বাংলাদেশ অফিস থেকে জানানো হয়, দেশের বিভিন্ন স্থানে এসিটি পরীক্ষার কেন্দ্র করা হবে। পরীক্ষার প্রস্তুতির জন্য প্রয়োজনীয় সব শিক্ষাসামগ্রীসহ অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা তারা বাংলাদেশী শিক্ষার্থীদের দেবে। যুক্তরাষ্ট্রে উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে সার্টিফিকেটসহ ভর্তি-সংক্রান্ত কাগজপত্র মূল্যায়ন করে তা সংশিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে জমা দিতে হয়। বাংলাদেশী শিক্ষার্থীরা এসইউডি টিইউভি বাংলাদেশ অফিস থেকে এই সেবাও পাবেন।