মঙ্গলবার ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৪ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা

চাঁপাইয়ে ৮ কোটি টাকা ব্যয়ে দুটি প্রকল্পের কাজ এগিয়ে চলছে

ডি.এম তালেবুন নবী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ॥ একই সময়ে দুটি মহা উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ শুরু হয়েছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের এই দুটি প্রকল্পে ব্যয় হবে ৭ কোটি ৯০ লাখ ৮৪ হাজার ৯২০ টাকা। এর মধ্যে প্রথম প্রকল্পটি হচ্ছে জেলা কারা অভ্যন্তরের ৬ তলা বন্দী ব্যারাক। এতে ব্যয় হবে ৪ কোটি ৫০ লাখ টাকা। এর ভিত্তিপ্রস্তুর গত মাসের শেষ সপ্তাহে দেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল ওদুদ বিশ্বাস। অপরটি হচ্ছে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পুলিশ অফিসার্স মেস নির্মাণ কাজ। এই প্রকল্পের বরাদ্দ অর্থ হচ্ছে ৩ কোটি ৪০ লাখ ৮৪ হাজার ৯২০ টাকা। জেলা শহরের পুলিশ ফাঁড়ি চত্বরের আম বাগানের মধ্যে ৬তলা ভিতবিশিষ্ট ৩তলা পুলিশ অফিসার্স মেস নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজি খুরশীদ হোসেন। গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী জনকণ্ঠকে জানান, তিন তলা ভবনে ৪টি ভিআইপি কক্ষসহ মোট ১২টি কক্ষ থাকবে। বাংলাদেশ সরকারের নিজস্ব অর্থায়নে প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে গণপূর্ত বিভাগ। এর নির্মাণ কাজ ১৫ মাসের মধ্যে সম্পন্ন হবে। দীর্ঘদিন ধরে এই ধরনের একটি ভবন বা প্রকল্পের অভাব অনুভব করে আসছিল পুলিশ। এক কথায় এটি পুলিশ সার্কিট হাউস হিসেবে চিহ্নিত হয়ে থাকবে। ভিত্তিপ্রস্তর অনুষ্ঠানে জেলা পুলিশ সুপার টি.এম মোজাহিদুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহবুব আলম খান, ওয়ারেশ আলী মিঞা ও সদর থানার ওসি সাবের রেজা চৌধুরী, জোবায়ের আহম্মেদ (তদন্ত) উপস্থিত ছিলেন। অপর দিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ কারাগারের ছয় তলা বন্দী ব্যারাকের ভিত্তিপ্রস্তর অনুষ্ঠানে কারা পরিদর্শক বোর্ডের সভাপতি জেলা প্রশাসক মাহমুদুল হাসান ও পরিদর্শক বোর্ডের অন্যতম সদস্য জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান রুহুল আমিন, কারাগার সুপার শফিকুল ইসলাম খান ও গণপূর্ত নির্বাহী প্রকৌশলী মাসুদ রানা উপস্থিত ছিলেন। সূত্র বলছে ঢাকা নির্মাণ প্রতিষ্ঠান খান এ্যান্ড সন্স বিডি লিমিটেড আধুনিক মানের বন্দী ব্যারাকটি নির্মাণে সময় নেবে মাত্র ১৮ মাস। এই নতুন ব্যারাকে ২৫০ জন বন্দী আরামে থাকতে পারবেন। উল্লেখ্য, গত মাসের (সেপ্টেম্বর) ৪র্থ সপ্তাহে এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে দুটি উন্নয়ন প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তুর দেয়া হয়েছে।

শীর্ষ সংবাদ: