মঙ্গলবার ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৪ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

ইতিহাসের পাতায় জো রুট

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে অধিনায়ক হিসেবে নিজের প্রথম ম্যাচে ডাবল সেঞ্চুরির নজির মাত্র দুটি। ১০ রানের জন্য দুই কিংবদন্তি গ্রাহাম ডাউলিং (নিউজিল্যান্ড) ও শিবনারায়ণ চন্দরপলের (ওয়েস্ট ইন্ডিজ) পাশে বসতে পারলেন না জো রুট। তাতে কি? ১৯০ রানে আউট হওয়ার আগে সাদা পোশাকে নেতৃত্বের অভিষেকে ইংলিশম্যান হিসেবে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রানের রেকর্ডটা ঠিকই নিজের করে নিয়েছেন স্টাইলিশ এই ব্যাটসম্যান। যার ওপর ভর করে প্রবল প্রতিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে লর্ডস টেস্টের দ্বিতীয়দিনে প্রথম ইনিংসে ৪৫৮/১০ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়েছে ইংল্যান্ড। বাকি ৫ উইকেট হারিয়ে এদিন আর ১০১ রান যোগ করে স্বাগতিকরা। হাফ সেঞ্চুরি পেয়েছেন বেন স্টোকস, মঈন আলি ও স্টুয়ার্ট ব্রড। প্রোটিয়াদের হয়ে ১০ উইকেট ভাগাভাগি করে নিয়েছেন তিন পেসার ভারনন ফিল্যান্ডার, কাগিসো রাবাদা আর মরনে মরকেল।

টেস্টে অধিনায়কত্বের অভিষেকে সর্বোচ্চ রানের ইনিংসটি গ্রাহাম ডাউলিংয়ের। ১৯৬৮ সালে ভারতের বিপক্ষে ২৩৯ রানের ওই ইনিংসের পর গত পঞ্চাশ বছরে কেউই তাকে টপকাতে পারেননি। কাছাকাছি গিয়েছিলেন চন্দরপল (২০৩*)। বাংলাদেশ ও ভারত সফরের ব্যর্থতা মাথায় নিয়ে বছরের শুরুতেই টেস্টের নেতৃত্ব ছাড়েন এ্যালিস্টার কুক। রুটকে তার পরপরই মনোনীত করা হয়। ঐতিহাসিক লর্ডসে অধিনায়ক জীবনের প্রথম ইনিংসটাকেই স্মরণীয় করে রাখলেন তুখোড় এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। ২৭ চার ও ১ ছক্কায় ২৩৪ বলে খেললেন ১৯০ রানের ক্ল্যাসিক্যাল ইনিংস। অভিষেক ম্যাচে সেঞ্চুরি করাটা যেন নিজেদের সম্পতি বানিয়ে ফেলেছেন ইংলিশ অধিনায়করা। রুটের ইনিংসে ইংল্যান্ডের একটি রেকর্ড অক্ষুণœ থাকল। এ নিয়ে টানা চার ইংলিশ অধিনায়ক সেঞ্চুরি দিয়ে তাঁদের অধিনায়কত্ব শুরু করলেন। এ্যালিস্টার কুক (১৭৩), কেভিন পিটারসেন (১০০) ও এ্যান্ড্রু স্ট্রস (১২৮) প্রত্যেকেই নিজেদের অধিনায়কত্বের শুরু তিন অঙ্কের ইনিংস দিয়ে।

কে বলবে গত একযুগে যে কীর্তির চারজন একই দেশের, সেটাই এর আগের ১৩০ বছরে করতে পেরেছেন বিশ্বের মাত্র দু’জন। ১৮৯৭ সালে আর্চি ম্যাকলারেন অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ১০৯ করার পর অধিনায়কত্বের অভিষেকে সেঞ্চুরি দেখতে প্রায় এক শতাব্দী অপেক্ষা করতে হয়েছে ইংল্যান্ডকে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ১৯৯০ সালে এ্যালান ল্যাম্বের সেঞ্চুরিতে খরা কেটেছিল। ইংল্যান্ডের ভাগ্য ভাল রুট দূর অতীত নয়, সাম্প্রতিক রেকর্ডেই চোখ রেখেছিলেন। নাহলে লর্ডস টেস্টের শুরুর দিনেই বড় বিপাকে পড়তে হতো দলকে। মাত্র ৪৯ রানেই সাজঘরে প্রথম তিন ব্যাটসম্যান। ৭৬ রান হতে না হতেই সে পথ ধরেন জনি বেয়ারস্টো। প্রিয় সঙ্গী বেন স্টোকসকে পেয়ে যেন একটু স্বস্তি রুটের। পঞ্চম উইকেট জুটিতে ১১৪ রান যোগ করার পরই অলস এক শট খেলে ফেরেন সময়ের বড় তারকা স্টোকস (৫৬)। তবে মঈন আলি উইকেটে আসার পরই দিনের সেরা সময় পার করে ইংলিশরা। ১৬৭ রানের ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে ম্যাচের নাগাল নিয়ে নেয় স্বাগতিকরা।

৫৪ টেস্টে রুটের এটি ১২তম সেঞ্চুরি। মজার বিষয় সদ্যজাত সন্তান ও স্ত্রীর অসুস্থতার জন্য এই টেস্টে নেই ফ্যাফ ডুপ্লেসিস। তাই দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে অধিনায়ক হিসেবে অভিষেক হয়েছে ডিন এলগারের। একই ম্যাচে দুই বড় দলের দুই নতুন অধিনায়ক। ফল যাই হোক, যার শুরুটা রাঙিয়ে দিলেন জোসেফ এডওয়ার্ড রুট। জো রুট নামেই যিনি সমধিক পরিচিত।

শীর্ষ সংবাদ:
নিয়মানুযায়ী দিনের ভোট দিনেই হবে ॥ সিইসি         ২৫ জুন পদ্মা সেতুর উদ্বোধন         কাশ্মীরে শুটিং করতে গিয়ে দুর্ঘটনায় আহত সামান্থা ও বিজয়         পিএইচডিতে ইনক্রিমেন্ট স্থগিতাদেশ প্রত্যাহারের দাবি ইবি শিক্ষক সমিতির         মুশফিক অপরাজিত ১৭৫, বাংলাদেশ অলআউট ৩৬৫         নাইজেরিয়ায় জঙ্গী হামলায় ৫০ জন নিহত         দ্বিতীয় দিনের লাঞ্চ বিরতিতে বাংলাদেশ ৩৬১/৯, মুশফিক ১৭১         কুমিল্লার নাশকতার মামলায় স্থায়ী জামিন খালেদার         সার্বিয়ান পররাষ্ট্রমন্ত্রী আজ ঢাকায় আসছেন         আত্মসমর্পণ করে জামিন চাইলেন সম্রাট         বাংলাদেশে কোনো মাঙ্কিপক্স রোগী শনাক্ত হয়নি ॥ উপাচার্য         ছাত্রলীগ-ছাত্রদলের সংঘর্ষে উত্তপ্ত ঢাবি, আহত ৩০         হাইকোর্টের সাজার বিরুদ্ধে হাজী সেলিমের আপিল