মঙ্গলবার ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

রাজস্ব আহরণে লক্ষ্যমাত্রা পূরণে চ্যালেঞ্জ বাড়বে

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ নতুন ভ্যাট আইন বাস্তবায়ন না হওয়ায় রাজস্ব আহরণে লক্ষ্যমাত্রা পূরণে চ্যালেঞ্জ বাড়বে। এমনকি সম্ভব হবে না উচ্চ লক্ষ্যমাত্রা অর্জন। তবে প্রশাসনিক কাঠামোর সংস্কার ও পুরনো ভ্যাট আইনের আধুনিকীকরণের মাধ্যমে এ চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করা সম্ভব। এমন মত অর্থনীতিবিদ আহসান এইচ মনসুরের। অন্যদিকে এনবিআরের সাবেক কর্মকর্তা মনে করেন, নতুন আইন বাস্তবায়ন না হওয়ায় খুব একটা নেতিবাচক প্রভাব পড়বে না রাজস্ব আহরণে। বাজেটে বরাদ্দকৃত অর্থের সিংহভাগই আসে রাজস্ব আহরণের মাধ্যমে। আর প্রতিবছরই নির্ধারণ করা হয় সেই লক্ষ্যমাত্রা। স্বাধীনতার পর সর্বপ্রথম ৭৮৬ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করা হলেও এখন তা ছাড়িয়ে গেছে ৪ লাখ ২শ’ কোটি টাকা। এতে বেড়েছে রাজস্ব আহরণের লক্ষ্যমাত্রাও। গত অর্থবছরে সংশোধিত লক্ষ্যমাত্রা ছিল ১ লাখ ৮৫ হাজার কোটি টাকা। আর ২০১৭-১৮ অর্থবছরের জন্য এ লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ২ লাখ ৮৭ হাজার ৯৯০ কোটি টাকা। বড় অঙ্কের এই রাজস্ব আহরণের অন্যতম একটি ক্ষেত্র হওয়ার কথা ছিল ২০১২ সালের ভ্যাট আইন। নানা সমালোচনার মুখে যেটি বাস্তবায়ন হচ্ছে না এ অর্থবছরেও। অর্থনীতিবিদরা মনে করেন, এর ফলে রাজস্ব আহরণে নেতিবাচক প্রভাব পড়বে।

জিএসটি ভারতের অর্থনীতির জন্য বড় ধাক্কা

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ গোটা ভারতকে জিএসটি বা এক কর নীতির আওতায় নিয়ে এসেছে মোদি সরকার। নতুন এই কর নীতিতে দাম অপরিবর্তিত থাকছে চাল, ডাল, সাবান ও ওষুধের মতো নিত্যপণ্যের। তবে, উচ্চ করের আওতায় পড়ছে কম ও মাঝারি দামের গাড়ি এবং গহনা। গেল বছর ৫০০ ও ১০০০ রুপীর নোট বাতিলের পর ভারতের অর্থনীতির জন্য বড় ধাক্কা বলছেন বিশ্লেষকরা। জিএসটি না মানার ঘোষণা দিয়ে পশ্চিমবঙ্গ ও কাশ্মিরে বনধ ডেকেছেন ব্যবসায়ীরা। কয়েক দশকের মধ্যে ভারতের অর্থনীতির বড় সংস্কার বলা হচ্ছে ‘গুডস এ্যান্ড সার্ভিসেস ট্যাক্স’ বা ‘পণ্য পরিষেবা করকে’।

জিএসটি নামে মোদি সরকারের নতুন এই ট্যাক্সনীতিতে কম ও মাঝারি দামের গাড়ি, টিভি-ফ্রিজ ও গহনার ক্ষেত্রে বসবে ১৮ ভাগ কর। সব মিলে ভারতের ৮০ ভাগ পণ্যকেই করের আওতায় আনা হচ্ছে। তবে, চাল-ডালসহ নিত্য পণ্য, স্মার্টফোন এবং ওষুধের ক্ষেত্রে করের হার কম থাকায় দাম অপরিবর্তিতই থাকছে।

শীর্ষ সংবাদ:
শীর্ষে যাবে রফতানিতে ॥ গার্মেন্টস শিল্পে ঈর্ষণীয় সাফল্য         ঢাকা-দিল্লী সম্পর্ক আস্থা ও শ্রদ্ধায় বিস্তৃত         ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার ১১ মাসের মাথায় সুচির কারাদণ্ড         বিশ্বজুড়ে শান্তির বার্তা ছড়িয়ে দিচ্ছেন শেখ হাসিনা         অভিযুক্ত কর্মকর্তাদের সচিব পদোন্নতি দেয়ার প্রক্রিয়া!         বিজয়ের মাস         জাওয়াদ দুর্বল হয়ে লঘুচাপে রূপ নিয়েছে         ৪৩ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে রিপোর্ট দিতে হাইকোর্টের নির্দেশ         অরাজকতা সৃষ্টির নীলনক্সা জামায়াতের         আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি অর্জনের সূচনা ৬ ডিসেম্বর         বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী ছিন্ন করা যাবে না         বন্ড সুবিধার অপব্যবহার, ২৭৫ কোটি ৩২ লাখ টাকার ভ্যাট ফাঁকি         বিএনপি রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতা সৃষ্টির চেষ্টা করছে         সমিতি সংগঠন খুলে ফায়দা লুটে নিচ্ছে বিশেষ শ্রেণী         তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মুরাদকে পদত্যাগের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর         দেশে টিকা উৎপাদনে দুই-চার দিনের মধ্যেই চুক্তি : স্বাস্থ্যমন্ত্রী         সমাপনী পরীক্ষা না থাকলেও বৃত্তি ও সনদের ব্যবস্থা থাকবে : শিক্ষামন্ত্রী         চরফ্যাশনে ট্রলার ডুবি ॥ ২১ মাঝি-মাল্লা নিখোঁজ         পেট্রোবাংলার নতুন চেয়ারম্যান নাজমুল আহসান         আড়াইহাজারে আগুনে দুই শিশুসহ একই পরিবারের চারজন দগ্ধ