বুধবার ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৫ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

ট্রাম্পের আলটিমেটাম

  • প্রতিনিধি পরিষদ স্বাস্থ্য নীতি অনুমোদন না করলে ‘ওবামাকেয়ার’ পুনঃপ্রবর্তনের হুমকি

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ‘ওবামাকেয়ার’ বাতিল করে বিতর্কিত নতুন স্বাস্থ্যনীতি অনুমোদনের জন্য রিপাবলিকানদের আলটিমেটাম দিয়েছেন। নতুন স্বাস্থ্যনীতিতে অনুমোদন না দিলে সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার স্বাস্থ্যনীতি ‘ওবামাকেয়ার’ পুনরায় প্রবর্তন করে কর পুনর্গঠনের দিকে এগিয়ে যাবেন বলে হুমকি দিয়েছেন ট্রাম্প। আর এ জন্য বৃহস্পতিবার স্থগিত হওয়া ভোট ওয়াশিংটনের স্থানীয় সময় শুক্রবার আয়োজনের জন্য রিপাবলিকানদের প্রতি বার্তা পাঠিয়েছিলেন ট্রাম্প। তবে নির্ধারিত সময়ে এই ভোট অনুষ্ঠিত হবে কিনা জানা যায়নি। খবর বিবিসির।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত ট্রাম্পের স্বাস্থ্যনীতি অনুমোদনের বিষয়টি অনিশ্চিত হয়ে পড়ে। ফলে নির্বাচনি প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে প্রথম বড় ধরনের শঙ্কায় পড়লেন ট্রাম্প। হাউস স্পীকার পল রায়ান বলেন, ‘আমরা দেশবাসীকে কথা দিয়েছি যে আমরা আইন প্রতিষ্ঠা করব। আর শুক্রবার হবে তার প্রথম ধাপ।’ তবে ট্রাম্পের স্বাস্থ্যনীতি অনুমোদনের জন্য পর্যাপ্ত সমর্থন রয়েছে কিনা এমন প্রশ্ন এড়িয়ে গেছেন রায়ান। বারাক ওবামার স্বাস্থ্যনীতির এক বছর পূর্তিতে নতুন স্বাস্থনীতি নিয়ে ভোট হওয়ার কথা ছিল। এটা ট্রাম্পের প্রথম সাংবিধানিক জয়ও হতে পারত। ট্রাম্প ও অন্যান্য রিপাবলিকান নেতারা ওবামাকেয়ারকে প্রতিস্থাপন করার চেষ্টা করছেন। কিন্তু বৃহস্পতিবার রিপাবলিকান নেতাদের ভোট নিয়ে একমত করতে ব্যর্থ হয়েছেন ট্রাম্প। ‘ওবামাকেয়ার’-এ গুরুত্বপূর্ণ সংস্কার এনে ‘আমেরিকান হেলথ কেয়ার এ্যাক্ট’- নামের স্বাস্থ্য বিল উত্থাপন করেছে ট্রাম্প প্রশাসন। কিন্তু বৃহস্পতিবার আমেরিকান হেলথ কেয়ার এ্যাক্টের পক্ষে সব রিপাবলিকানদের সমর্থন নিশ্চিত করতে পারেননি ট্রাম্প। এরপর স্বাস্থ্যনীতির ওপর বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত ভোট স্থগিত করতে বাধ্য হন রায়ানসহ হাউস অফ রিপ্রেজেন্টেটিভের নেতারা। সাংবাদিকদের ট্রাম্প জানিয়েছিলেন, ভোটের বিষয়টি প্রতিন্দ্বদ্বিতাপূর্ণ হবে। তবে তিনি আশাবাদী। পরে ভোটের বিষয়টি স্থগিত হয়ে যাওয়ার পর ট্রাম্প তার শীর্ষ সহযোগীদের নিয়ে ক্যাপিটল হিলে আলোচনায় বসেন। নিউইয়র্কের হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভ ক্রিস কলিনস জানান, ট্রাম্প ভোট চান। তিনি বলেন, প্রেসিডেন্ট বলেছেন তিনি চান শুক্রবার ভোট অনুষ্ঠিত হোক। যেভাবেই হোক না কেন। আমরা সামনে এগিয়ে যেতে চাই। এই নীতি পাস হলেও রিপাবলিকান নিয়ন্ত্রিত প্রতিনিধি পরিষদে বিভক্তি থেকে যাবে। ৮ এপ্রিলের মধ্যে নতুন এই স্বাস্থ্যনীতি অনুমোদনে আশাবাদী সিনেটররা। তবে হাউসে রিপাবলিকান সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকলেও এটা পাস করা খুব সহজ হবে না। মার্কিন সংবাদমাধ্যম এনবিসি নিউজ জানায়, অন্তত ৩০ রিপাবলিকান এই নীতির বিপক্ষে ভোট দেয়ার পরিকল্পনা করেছেন। ওবামার স্বাস্থ্যনীতি অনুযায়ী, নিম্ন আয়ের মার্কিন জনগণ, কর্মজীবী ও বেকার উভয়েই ওই স্বাস্থ্যসেবার আওতাভুক্ত ছিলেন।

ওবামা প্রশাসনের সময়কার স্বাস্থ্যবিলে অঙ্গরাজ্যগুলো কর্মজীবী ও কাজ খুঁজতে থাকা মার্কিন জনগণের জন্যই স্বাস্থ্যসেবার আবেদন করতে পারত। তবে অঙ্গরাজ্যগুলো স্বাস্থ্যসেবা পেতে কাজের বাধ্যবাধকতা আরোপ করতে রাজি হয়নি। তবে বেশ কয়েকজন রিপাবলিকান গবর্নর কর্মক্ষম জনগণ, যাদের শিশু সন্তান নেই, অথবা নিঃসন্তান, তাদের জন্য কাজ করার বাধ্যবাধকতা আরোপের ক্ষমতা অঙ্গরাজ্যগুলোকে দেয়ার দাবি জানিয়ে আসছেন। ট্রাম্পের প্রস্তাবিত স্বাস্থ্যনীতিতে অঙ্গরাজ্যগুলো নিজেদের সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষমতা দেয়া হবে। রিপ্রেজেন্টেটিভ জেফ ফর্টেনবেরি বলেন, এই নীতিতে অঙ্গরাজ্যগুলো মাতৃত্ব বিষয়ে ও মানসিক স্বাস্থ্য চিকিৎসায় আরও বেশি বরাদ্দ পাবে।

শীর্ষ সংবাদ:
স্বপ্ন পূরণে ভাগ্য বদল ॥ পদ্মা সেতু নামেই ২৫ জুন উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী         রোহিঙ্গারা অপরাধে জড়াচ্ছে প্রত্যাবাসন অনিশ্চয়তায়         ১৩৫ বিলাসবহুল পণ্যে ২০ ভাগ নিয়ন্ত্রণমূলক শুল্ক আরোপ         আমি ত্রাস সঞ্চারি ভুবনে সহসা সঞ্চারি ভূমিকম্প...         দিনের ভোট দিনেই হবে, রাতে হবে না ॥ সিইসি         সম্রাটকে জামিন না দিয়ে কারাগারে পাঠালেন আদালত         হাতিরঝিলের পানির ক্ষতি করা যাবে না ॥ হাইকোর্ট         এগিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে লড়ছে দুদল         মাঙ্কিপক্সের প্রবেশ রোধে সর্বোচ্চ সতর্ক হতে হবে         ঢাবিতে ছাত্রলীগ ছাত্রদল সংঘর্ষ ॥ আহত ৩০         জামায়াতের সঙ্গেও সংলাপে বসবে বিএনপি ॥ ফখরুল         সিলেটে বন্যার পানি নামছে ধীরে, নানা সঙ্কট         জলাবদ্ধতা থেকে এবারের বর্ষায়ও মুক্তি মিলছে না চট্টগ্রামবাসীর         শেখ হাসিনা সরকার পাহাড়ে শান্তি ফিরিয়ে এনেছে ॥ কাদের         প্রত্যাবাসন নিয়ে রোহিঙ্গারা দীর্ঘ অনিশ্চয়তার কারণে হতাশ হয়ে পড়ছে : প্রধানমন্ত্রী         হাতিরঝিলে স্থাপনা উচ্ছেদসহ ওয়াটার ট্যাক্সি নিষিদ্ধে রায় প্রকাশ         মাদকাসক্ত সন্তানকে গ্রেফতারে বাবা-মা আসেন ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         নিয়মানুযায়ী দিনের ভোট দিনেই হবে ॥ সিইসি         রোহিঙ্গা শরণার্থীদের স্বেচ্ছায় প্রত্যাবাসনই স্থায়ী সমাধান         ২৫ জুন পদ্মা সেতুর উদ্বোধন