মঙ্গলবার ১২ মাঘ ১৪২৮, ২৫ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

গৌতম সাহা-তালগাছ রোপণই যার নেশা

বিশ্বজিৎ মনি, নওগাঁ ॥ কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত ‘তাল গাছ’ কবিতায় শিশুকালে আমরা প্রায় সকলেই পড়েছি, ‘তাল গাছ এক পায়ে দাঁড়িয়ে সব গাছ ছাড়িয়ে উঁকি মারে আকাশে।’ কিন্তু কালের বিবর্তনে সেই তাল গাছ প্রায় হারিয়ে যেতে বসেছে। এর মাঝেও কিছু উৎসাহী প্রকৃতিপ্রেমী মানুষ এই তাল গাছ লাগিয়ে বিভিন্ন রাস্তার দুই ধারে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের শোভাবর্ধন কল্পে কাজ করে গেছেন বা যাচ্ছেন। তেমনী নওগাঁ জেলার নিয়ামতপুর উপজেলার হাজিনগরের মজুমদার মোড় থেকে ঘুঘু ডাঙ্গা পর্যন্ত প্রায় এক কিমি. রাস্তার দুই ধারে শত শত তাল গাছ দাঁড়িয়ে প্রকৃতি প্রেমীদের হাতছানি দিচ্ছে। সেই আশির দশকে উপজেলার হাজিনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বর্তমান নওগাঁ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি গাছগুলো রোপণ করেছিলেন। আজ সেই তাল গাছগুলো ৫০ থেকে ৬০ ফুট লম্বা হয়ে কালের সাক্ষী হয়ে রাস্তার দুই ধারে শোভাবর্ধন করে আসছে। এদিকে সাধন চন্দ্র মজুমদারের তালগাছ লাগানো এবং বর্তমানে রাস্তার দুই পাশে শোভাবর্ধন করায় উদ্বুদ্ধ হয়ে গত প্রায় ৫ বছর আগে থেকে পোরশা উপজেলার মশিদপুর ইউনিয়নের ভবানীপুর গ্রামের নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তান গৌতম কুমার সাহা চরমভাবে আকৃষ্ট হয়ে পড়েছেন।

যদিও শিশুকাল থেকেই বিভিন্ন গাছ রোপণ করাই ছিল তার নেশা। বর্তমানে পেশায় তিনি একজন কৃষক। বর্তমানে পরিবারের দেখাশুনা, সমাজ সেবা ও তালাগাছ রোপণ আর পরিচর্যা করেই দিন কাটান তিনি। এজন্যই এলাকায় গিয়ে তালগাছের কথা বললেই একবাক্যে সকলেই গৌতমের কথাই বলে।

সরজমিনে তার গ্রামে গিয়ে কথা হয় গৌতমের সঙ্গে। প্রথমেই ভবানীপুর রাস্তার পাশে তার লাগানো তাল গাছগুলো দেখান তিনি। গৌতম জানান, তালগাছ যখন বিলুপ্তির পথে তখন হঠাৎ করেই বছর পাঁচেক আগে রাস্তার পাশে ও সরকারী খাস পতিত জমিতে তার ইচ্ছা হয় তালগাছ লাগানোর।

এতে জনগণের যেমন উপকার হবে, তেমনই দেশেরও উন্নয়ন হবে। কথাগুলো মাথায় রেখে নিজ উদ্যোগে লেগে যান তালগাছ রোপণ করতে। এ পর্যন্ত তিনি ১৫ হাজার তালগাছ রোপণ করেছেন বলে জানান। তিনি জানান, প্রতিটি তালবীজ (তালের আঁটি) ৫০ পয়সা দামে কিনে নিয়ে এবং কিছু বিভিন্ন স্থান থেকে সংগ্রহ করে মশিদপুর ইউনিয়নের সুড়িপুকুর থেকে ছাতোয়া ৯ কিমি., কোলাপাড়া-ভবানীপুর হয়ে শরিয়ালা ৩ কিমি. রাস্তার পাশে এবং শিশা-মাটিন্দর খাড়ির পাশে প্রায় ৫ কিমি. জুড়ে তালগাছ রোপণ করেছেন। তিনি নিজেই এগুলোর পরিচর্যা করেন বলে জানান। তিনি আরও জানান, তালগাছগুলো বড় হলে কি হবে জানি না।

কিন্তু তিনি বেঁচে থাকা পর্যন্ত রোপণ করেই যাবেন। শুধু তার ইউনিয়নেই নয় ভবিষ্যতে গোটা উপজেলায় তালগাছ রোপণের কথা চিন্তা করছেন তিনি। এ বিষয়ে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা তাকে বিভিন্নভাবে উৎসাহ, পরামর্শ ও সহযোগিতা করেছেন।

শীর্ষ সংবাদ:
৪০২ দিন পর খেলতে নামলেন মাশরাফি         ইউক্রেন বিষয়ে পশ্চিমা নেতাদের সঙ্গে আলোচনা ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর         প্রথমবারের মত দক্ষিণ কোরিয়ায় দৈনিক সংক্রমণ ৮ হাজার ছাড়িয়েছে         ভারতে গাড়ি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ৭ মেডিকেল শিক্ষার্থী নিহত         ওমিক্রনে শিশুদের ঝুঁকি বাড়ছে         ‘জাতিসংঘে চিঠি শান্তিরক্ষা মিশনে প্রভাব ফেলবে না’         রাজশাহীতে করোনায় ৩ জনের মৃত্যু, শনাক্তের হার ৫৫.৭৮%         ক্যামেরুনের স্টেডিয়ামে খেলা চলাকালে হুড়োহুড়িতে ছয় দর্শকের মৃত্যু         এবার র‌্যাবকে নিষিদ্ধ করতে ইইউতে চিঠি         ‘দুর্নীতিগ্রস্ত’ দেশের তালিকায় বাংলাদেশ ১৩তম         গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় মারা গেছেন ৫ হাজার ৯২২ জন         ইন্দোনেশিয়ায় জাতিগত সংঘাতে ১৯ জন নিহত         কমতে পারে রাতের তাপমাত্রা         আজ বাংলাদেশ-রাশিয়া সম্পর্কের ৫০ বছর         আগুন যেন অপ্রতিরোধ্য ॥ একের পর এক দুর্ঘটনা ঘটেই চলেছে         শাবি ভিসির পদত্যাগ দাবিতে আন্দোলন অব্যাহত         উলন বিদ্যুত উপকেন্দ্র পুড়ে ছাই         ইসি গঠনের বিলে দুই পরিবর্তনের সুপারিশ         খাদ্য মজুদ ২০ লাখ টন ছাড়িয়েছে         কিউকমের ২০ গ্রাহক ফেরত পেলেন আটকে থাকা টাকা