ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ০৯ আগস্ট ২০২২, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯

পরীক্ষামূলক

আফগানিস্তানকে ধসিয়ে সেমিতে বাংলাদেশ সাফ মহিলা ফুটবলে সাবিনার হ্যাটট্রিক

প্রকাশিত: ০৫:৩৬, ৩০ ডিসেম্বর ২০১৬

আফগানিস্তানকে ধসিয়ে সেমিতে বাংলাদেশ  সাফ মহিলা ফুটবলে সাবিনার হ্যাটট্রিক

রুমেল খান ॥ ক্ষীণ একটা সংশয় ছিল জেতার প্রশ্নে। তবে তা সংশয়ই থেকে গেছে। বাস্তবে আর রূপ নিতে পারেনি। বলতে গেলে রূপ নেয়ার কোন সুযোগই দেননি সাবিনা খাতুন। তার একারই করা হ্যাটট্রিকসহ পাঁচ গোলের সুবাদে কাবুলিওয়ালার দেশ আফগানিস্তানকে ৬-০ গোলে শোচনীয়ভাবে বিধ্বস্ত করে ‘সাফ মহিলা চ্যাম্পিয়নশিপ’-এর চতুর্থ আসরের সেমিফাইনালে নাম লেখানো নিশ্চিত করল বাংলাদেশ। বৃহস্পতিবার ভারতের শিলিগুড়ির কাঞ্চনজঙ্ঘা স্টেডিয়ামে ‘বি’ গ্রুপের ম্যাচে বাংলাদেশ খেলার প্রথমার্ধেই এগিয়ে ছিল ৪-০ গোলে। ম্যাচের আগের দিনই আফগানদের বিপক্ষে অলআউট ফুটবল খেলার ঘোষণা দিয়েছিলেন বাংলাদেশ দলের কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন। ম্যাচের সেরা একাদশে তা ছিল স্পষ্ট। তিন ফরোয়ার্ডের সঙ্গে আফগানদের চেপে ধরতে মাঠে নামানো হয় তিন মিডফিল্ডারকে। আর নিজেদের রক্ষণভাগ সামলে রাখার জন্য চার ডিফেন্ডারকে মাঠে নামান ছোটন। বলাই বাহুল্য, তার এই রণকৌশল ছিল শতভাগ সফল। দুই বছর আগে পাকিস্তানের ইসলামাবাদের জিন্নাহ্ স্টেডিয়াম এই আসরেই আফগানিস্তানকে ৬-১ গোলে হারিয়েছিল বাংলাদেশ। ৬ মিনিটে কাউন্টার এ্যাটাকে গোল পায় লাল-সবুজ শিবির। সাবিনার থ্রু থেকে বল পেয়ে সিরাত জাহান স্বপ্না প্রতিপক্ষের এক ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে বক্সে ঢোকেন। তার নেয়া শটটি আগুয়ান গোলরক্ষক দুরানি হাসান ঠিকঠাক ধরতে পারেননি। ফসকে যায়। সেই বল বক্সের ডান পাশে দাঁড়িয়ে থাকা অধিনায়ক সাবিনা খাতুন ফাঁকা পোস্টে আলতো টোকায় জালে জড়ান (১-০)। ১৪ মিনিটে মাঝমাঠ থেকে কৃষ্ণার থেকে বল পেয়ে বাঁ দিক থেকে দারুণ এক ক্ষিপ্রগতির শটে লক্ষ্যভেদ করেন সাবিনা (২-০)। ৪০ মিনিটে বাঁ দিক দিয়ে আক্রমণে যাওয়া কৃষ্ণা রানী সরকার তীব্র শট নেন। কিন্তু গোলরক্ষক দুরানি হাসান ফিস্ট করেন। ডান দিকে থাকা সাবিনা বল পেয়ে যান এবং ঠা-া মাথায় নিজের হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন (৩-০)। ৪৪ মিনিটে বক্সের ভেতরে জটলার মধ্যে এক ডিফেন্ডারের পায়ের ফাঁকা দিয়ে আলতো টোকায় বল বের করেন কৃষ্ণা। সামনেই দাঁড়িয়ে থাকা সুযোগসন্ধানী সাবিনা আবারও ডান পায়ের শটে বল জালে জড়ান (৪-০)। এরপর ৪৮ মিনিটে সাবিনা এবং ৮৩ মিনিটে গোল করলে ম্যাচের স্কোরলাইন দাঁড়ায় ৬-০। শেষে ওই স্কোরেই খেলা শেষ হলে বিজয়ের উল্লাসে ফেটে পড়ে ছোটনের শিষ্যারা। ‘বি’ গ্রুপে একটি দল কম (৩টি)। কাজেই প্রতিটি দল খেলবে মাত্র দুটি করে ম্যাচ। একটি ম্যাচ জিততে পারলেই কেল্লাফতে, পৌঁছানো যাবে কাক্সিক্ষত সেমিফাইনালে, যেটা বাংলাদেশ দলের প্রাথমিক লক্ষ্য ছিল। স্বাগতিক ভারত তাদের প্রথম ম্যাচে ৫-১ গোলে আফগানিস্তানকে হারায়। বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ আফগানিস্তানকে হারানোয় ভারত-বাংলাদেশ একসঙ্গে সেমিতে নাম লেখায় এবং রিক্তহস্তে বিদায় ঘটে আফগানদের। এই মুহূর্তে ভারতকে পেছনে ফেলে ‘বি’ গ্রুপে বাংলাদেশই আছে এক নম্বরে। এখন আগামী শনিবার একই ভেন্যুতে বাংলাদেশ মুখোমুখি হবে ভারতের। সেই ম্যাচে বাংলাদেশ কমপক্ষে ড্র করলেই গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হতে পারবে। বাফুফে এবারের মহিলা সাফটাকে তারা নিয়েছে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের প্রস্তুতি হিসেবে। আগামী বছর সেপ্টেম্বরে থাইল্যান্ডে অনুর্ধ ১৬ দলের মেয়েরা খেলবে এএফসি অনুর্ধ ১৬ চ্যাম্পিয়নশিপের মূলপর্বে। সেখানে শীর্ষ তিন দলের মধ্যে থাকতে পারলে উরুগুয়েতে অনুষ্ঠিতব্য ২০১৮ সালের ফিফা অনুর্ধ ১৭ মহিলা বিশ্বকাপের মূলপর্বে খেলতে পারবে বাংলাদেশের মেয়েরা।
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২