শুক্রবার ৩ আশ্বিন ১৪২৭, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

উদ্বিগ্ন রিপাবলিকানরা

  • ক্ষমতা ছাড়ার আগে রাতারাতি বড় বড় সিদ্ধান্ত ওবামার

নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের দায়িত্ব নেয়ার মাত্র কয়েক সপ্তাহ আগে ওবামা প্রশাসন দ্রুত কয়েকটি বড় বড় সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এতে প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ক্ষমতা ছাড়ার আগে তার অভিপ্রায় মতো রাতারাতি নির্বাহী নির্দেশে কী কী পদক্ষেপ কার্যকর করতে চান, তা নিয়ে রিপাবলিকানদের উদ্বেগ নতুন করে জেগে ওঠেছে। খবর ফক্স নিউজের।

কেবল গত সপ্তাহেই ওবামা প্রশাসন আর্কটিক ও আটলান্টিক মহাসাগরে ভবিষ্যতে তেল ও গ্যাস ক্ষেত্রের ইজারা দান নিষিদ্ধ করেছেন। তিনি এক দিনেই রেকর্ড সংখ্যক ব্যক্তির শাস্তি মওকুফ ও হ্রাস করেছেন। তিনি মুসলিম প্রধান দেশগুলো থেকে আগত পুরুষ অভিবাসীদের প্রচ্ছন্ন তালিকা বাতিল করেছেন। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা ফক্স নিউজকে বলেন যে, গুয়ানতানামো বে কারাগার থেকে আরও ২২ বন্দীকে অন্যত্র সরিয়ে নেয়ার চেষ্টা চলছে। আর জাতিসংঘে নিযুক্ত ওবামার রাষ্ট্রদূত ইহুদী বসতি নির্মাণের নিন্দা করে নিরাপত্তা পরিষদে আনীত এক প্রস্তাব প্রসঙ্গে ভোটদান করা থেকে বিরত থেকে ইসরাইলকে তাক করে দেন। এতে প্রস্তাবটি পাস হয়। ওবামার ক্ষমতা ছাড়ার আরও এক মাস বাকি আছে। ফার্স্ট ফ্যামিলি যখন হাওয়াইতে অবকাশ কাটান, তখন সাম্প্রতিক ঘোষণাগুলো প্রচার করা হয়। কিন্তু এতেও ওবামা ওয়াশিংটনে ফিরে এসে কী করবেন তা অস্পষ্ট রয়ে যায়। যে কোন পদক্ষেপ প্রসঙ্গেই এ সম্ভাবনা রয়েছে যে, ট্রাম্প দায়িত্ব নেয়ার পর এসব পদক্ষেপের অনেক বাতিল করে দেবেন। ওবামা সম্পর্কে প্রতিনিধি পরিষদের সাবেক স্পীকার নিউট গিনগ্রিচ ফক্স নিউজ সানডেকে বলেন, তিনি চলতি সপ্তাহে যে কাজগুলো করেছেন, সেগুলো বাতিল করে দেয়া হবে। ওবামা মরিয়া হয়ে ওঠেছেন। কিন্তু ডেমোক্র্যাটরা বিদায়ী প্রেসিডেন্টকে আরও কিছু পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানাচ্ছেন। এগুলোর মধ্যে রয়েছেÑ

প্রতিনিধি পরিষদের ৬৪ জন ডেমোক্র্যাট সম্প্রতি ওবামাকে তার ডেফারড এ্যাকশন ফর চাইল্ডহুড এ্যারাইভ্যালস নির্দেশ রক্ষার জন্য তার ক্ষমা করার ক্ষমতাকে কাজে লাগানোর অনুরোধ করেছেন। এ নির্দেশ শিশু হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রে এসেছিলÑ এমন লাখ লাখ অবৈধ অভিভাসীকে বহিষ্কৃত হওয়ার হাত থেকে রক্ষা করেছিল। ওই নির্দেশ রক্ষার লক্ষ্য হলো তাদের বহিষ্কার করা ট্রাম্পের পক্ষে আরও কঠিন করে তোলা। হোয়াইট হাউস অসহিংস মাদক অপরাধী ও অন্যদের আরও বেশি সংখ্যায় ক্ষমা করার সম্ভাবনা তুলে ধরেছে। সাবেক প্রেসিডেন্ট জিমি কার্টার মধ্যপ্রাচ্য সম্পর্কে আরও পদক্ষেপ নিতে এবং ক্ষমতা ছাড়ার আগেই এক ফিলিস্তিনী রাষ্ট্রকে স্বীকৃতি দিতে ওবামার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

কার্টার নিউইয়র্ক টাইমস পত্রিকায় প্রকাশিত এক লেখায় এ আহ্বান জানান। হোয়াইট হাউস এসব পদক্ষেপের কোন কোনটি নিতে দ্বিধা প্রকাশ করেছে। মুখপাত্র এরিক সুলজ বলেন, ক্ষমার আবেদনগুলো পর্যালোচনার কাজ বিচার দফতরে চালু রয়েছে। প্রেসিডেন্ট এ কাজকে বিঘিœত করে এমন কোন কিছু করতে যাচ্ছেন না। আর কার্টারের আবেদন প্রসঙ্গে শুলজ বলেন, কার্টারের মতামত এখন নতুন বলে আমার মনে হয় না। কাজেই সে বিষয়ে আমাদের কোন নতুন অবস্থান ও মতামত আমার জানা নেই।

হোয়াইট হাউসের প্রেস সেক্রেটারি জোশ আর্নেস্টও সম্প্রতি বলেন, প্রেসিডেন্ট এ পর্যায়ে গ্রহণ করবেন এমন নির্বাহী পদক্ষেপের প্রক্রিয়া সম্ভবত নবেম্বরের নির্বাচনের পূর্বেই শুরু হয়েছিল। কংগ্রেসের রিপাবলিকান সদস্যরা নতুন নতুন নির্দেশ থামাতে বা পাল্টে দিতে কৃতসংকল্প। ৫ ডিসেম্বর লেখা এক চিঠিতে ১০ রিপাবলিকান সিনেটর ওবামাকে আর বাকি সময় দায়িত্ব পালনকালে আমেরিকান জনগণের ইচ্ছার প্রতি সম্মান দেখাতে এবং কোন নতুন অজরুরী বিধি জারি করা থেকে বিরত থাকতে আহ্বান জানান।

প্রতিনিধি পরিষদের মেজরিটি লিডার কেভিন ম্যাকার্থি কক্ষের অন্যান্য কমিটির চেয়ারম্যানের স্বাক্ষরিত ১৫ নবেম্বরের এক চিঠিতে ফেডারেল এজেন্সি প্রধানদের উদ্দেশে বলেন, কংগ্রেস যাতে আপনাদের কাজকর্ম পরীক্ষা করে দেখে এবং উপযুক্ত মনে হলে সেগুলো পাল্টে দেয়, তা নিশ্চিত করতে আমরা আমাদের সহকর্মীদের সঙ্গে মিলেমিশে কাজ করব। নবেম্বরে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে ওবামা তার মেয়াদ শেষের সপ্তাহগুলোতে বিধি প্রণয়ন চূড়ান্ত করা স্থগিত রাখতে রিপাবলিকানদের আহ্বান সম্পর্কিত এক প্রশ্নের জবাবে প্রশাসনের বিধি প্রণয়ন কার্যক্রম সমর্থন করেন। তিনি বলেন, আমরা যেসব বিধি জারি করেছি, সেগুলো নিয়ে অনেক দিন ধরেই কাজ করছিলাম। আমরা সেগুলো দিয়ে লোকজনকে চমকিত করছি না।

করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
৩০৩৭৯০৩১
আক্রান্ত
৩৪৫৮০৫
সুস্থ
২২০৬২০৯৫
সুস্থ
২৫২৩৩৫
শীর্ষ সংবাদ:
আল্লামা আহমদ শফী আর নেই         পেঁয়াজ ভর্তি ট্রলার ভিড়েছে টেকনাফে         অর্থনৈতিক উন্নয়ন বেগবানে ৩৪ হাজার কোটি টাকার ফান্ড ঘোষণা এডিবির         করোনা ভাইরাসে আরও ২২ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৫৪১         করোনা ভাইরাস ॥ বিশ্বব্যাপী মৃত্যু ছাড়াল সাড়ে ৯ লাখ, আক্রান্ত ৩ কোটির বেশি         অ্যাটর্নি জেনারেলের অবস্থার অবনতি, আইসিউতে স্থানান্তর         করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় কারিগরি কমিটির ৭ পরামর্শ         বঙ্গবন্ধু শুধু বাংলাদেশের নয় তিনি সারা বিশ্বের সম্পদ ॥ খাদ্যমন্ত্রী         ভিডিও কলে কথা বলে কিশোরীর ইচ্ছা পূরণ করলেন প্রধানমন্ত্রী         ২০২১ হবে আরও বেশি চ্যালেঞ্জিং হবে ॥ পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী         আইনের বাইরে এ শহরে কিছু করতে পারবেন না ॥ মেয়র আতিক         এইচএসসি পরীক্ষার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে ২৪ সেপ্টেম্বর         ফিফা র্যাংকিংয়ে আগের অবস্থানেই আছে বাংলাদেশ, একধাপ পেছালো ভারত         মোদীর মন্ত্রিসভা থেকে ইস্তফা দিলেন অকালি দলের নেত্রী হরসিমরত কউর         ভারতের এক শতাব্দী পুরনো সংসদ ভবন ভেঙ্গে নির্মাণ হবে নতুন ভবন         বাজারে করোনার ভ্যাকসিন আসার আগে অর্ধেক ‘বুকিং’ শেষ         গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রীর বক্তব্য দুর্নীতি আড়ালের ব্যর্থ চেষ্টা ॥ ন্যাপ         স্বেচ্ছায় সরে দাঁড়ালেন আল্লামা শাহ আহমদ শফী         এবার নোবেল পুরস্কারের জন্য মনোনয়ন পেয়েছেন নেতানিয়াহু         শিক্ষায় বিভক্তির ফল সামাজিক বিভক্তি ॥ রাশেদ খান মেনন