ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪ আশ্বিন ১৪২৯

স্প্যানিশ লা লিগা, হ্যাটট্রিক করে জবাব রোনাল্ডোর

রিয়ালের সহজ, বার্সার ঘাম ঝরানো জয়

প্রকাশিত: ০৬:৪২, ৩১ অক্টোবর ২০১৬

রিয়ালের সহজ, বার্সার ঘাম ঝরানো জয়

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ স্প্যানিশ লা লিগায় সহজ জয়ে শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে রিয়াল মাদ্রিদ। তবে জয় পেতে ঘাম ঝরাতে হয়েছে বার্সিলোনাকে। এ্যাওয়ে ম্যাচে রিয়াল ৪-১ গোলে হারিয়েছে স্বাগতিক আলাভেসকে। গ্যালাক্টিকোদের হয়ে হ্যাটট্রিক করে সমালোচনার জবাব দেন সি আর সেভেন। এমএসএন ত্রয়ী থাকলেও বার্সাকে জয় পেতে সংগ্রাম করতে হয়েছে। রাফিনহার একমাত্র গোলে কাতালানরা ১-০ গোলে হারায় গ্রানাডাকে। এ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ ৪-২ গোলে মালাগাকে পরাজিত করে। স্পোর্টিং গিজন ও সেভিয়ার মধ্যকার ম্যাচ ১-১ গোলে ড্র হয়। ১০টি করে ম্যাচ শেষে ২৪ পয়েন্ট নিয়ে সবার ওপরে রিয়াল। ২২ পয়েন্ট নিয়ে বার্সা দুইয়ে ও ২১ পয়েন্ট নিয়ে এ্যাটলেটিকো তিনে। লা লিগার চলমান মৌসুমটা মোটেও ভাল যাচ্ছে না রোনাল্ডোর। ছয় ম্যাচে করতে পেরেছিলেন মাত্র দুটি গোল। কয়েকটি ম্যাচে গোল না পাওয়ায় নাকি খুব রেগে ছিলেন পর্তুগীজ এই তারকা। পরশু রাতে অবশেষে গোলখরা কাটিয়েছেন তিনি, তাও আবার হ্যাটট্রিক করে। প্রতিপক্ষের মাঠে শুরুতেই অবশ্য পিছিয়ে পড়ে রিয়াল। সাত মিনিটে রিয়ালের জালে বল জড়ান ডেভারসন। ১৭ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে খেলায় সমতা ফেরান রোনাল্ডো। ৩৩ মিনিটে আরেকটি গোল করে রিয়ালকে এগিয়ে নেন পর্তুগীজ তারকা। বিরতির পর হ্যাটট্রিকটা ৭৯ মিনিটেই করতে পারতেন। কিন্তু এবার রোনাল্ডোর পেনাল্টি রুখে দেন আলাভেসের গোলরক্ষক। হ্যাটট্রিকের দেখা পেতে রোনাল্ডোকে অপেক্ষা করতে হয় ৮৮ মিনিট পর্যন্ত। বিজয়ী দলের হয়ে ৮৪ মিনিটে অপর গোলটি করেন আলভারো মোরাটা। এই জয়ে ২৬ ম্যাচ অপরাজিত থাকল রিয়াল। হ্যাটট্রিক করে লা লিগার সর্বোচ্চ গোলদাতার লড়াইয়েও ফিরে এসেছেন রোনাল্ডো। এখন পর্যন্ত করেছেন পাঁচ গোল। সাতটি করে গোল করে প্রথম ও দ্বিতীয় স্থানে আছেন লুইস সুয়ারেজ ও লিওনেল মেসি। পয়েন্ট তালিকার তলানিতে থাকা গ্রানাডার বিরুদ্ধে বার্সিলোনা বড় ব্যবধানের জয় পাবে এমনটাই আশা ছিল সমর্থকদের। কিন্তু নিচের সারির ক্লাবটির বিরুদ্ধে কষ্ট করেই জিততে হয়েছে কাতালানদের। দ্বিতীয়ার্ধে রাফিনহার দর্শনীয় এক গোলের সুবাদে তিন পয়েন্টের স্বস্তি পায় লুইস এনরিকের দল। নিজেদের মাঠ ন্যুক্যাম্পে দাপুটে ফুটবল খেললেও গোলের দেখা পেতে বেশ কষ্টই হয়েছে মেসি-নেইমার-সুয়ারেজদের। প্রথমার্ধ কাটে গোলশূন্য অবস্থায়। দ্বিতীয়ার্ধের ৪৮ মিনিটে বার্সা পায় কাক্সিক্ষত গোল। এ সময় নেইমারের শট ফিরে আসে গোলপোস্টে লেগে। ফিরতি বলটা দারুণ এক বাইসাইকেল কিক করে জালে জড়িয়ে দেন রাফিনহা।