মঙ্গলবার ৭ আশ্বিন ১৪২৭, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

বরেন্দ্রে দ্রুত কমছে কৃষিজমি

  • বসতি, ইটভাঁটি ও পুকুর খননে ছয় বছরে কমেছে ৩০ হাজার হেক্টর

মামুন-অর-রশিদ, রাজশাহী ॥ রাজশাহীর বরেন্দ্র অঞ্চলে ফসলি জমিতে বসতি স্থাপন, ইটভাঁটি নির্মাণ, পুকুর খনন ও কল-কারখানা গড়ে তোলায় ক্রমেই কমে যাচ্ছে কৃষিজমি। শুধু রাজশাহী অঞ্চলেই গত ৬ বছরে কৃষিজমি কমেছে ৩০ হাজার হেক্টর। কয়েক বছর আগেও যেসব জমিতে চাষাবাদ হতো এখন সেগুলো বসতভিটায় রূপ নিয়েছে।

জানা গেছে, ২০১০ সালে শুধু রাজশাহী জেলায় ৮৩ হাজার ৫৭০ হেক্টর জমিতে চাষাবাদ হতো। মাত্র ছয় বছরের ব্যবধানে ২০১৬ সালে কমে দাঁড়িয়েছে ৭৩ হাজার ৩৩৫ হেক্টরে। রাজশাহী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের তথ্য অনুযায়ী জেলায় গত ৬ বছরে চাষাবাদ কমেছে ১০ হাজার হেক্টর জমি। জেলা কৃষি সম্প্রাসরণ অধিদফতরের তথ্য অনুযায়ী, রাজশাহী অঞ্চলে (রাজশাহী, নওগাঁ, নাটোর ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ) ২০১০ সালে আবাদি জমির পরিমাণ ছিল চার লাখ ৫০ হাজার হেক্টরের বেশি। ২০১৬ সালে কমে চার লাখ ২০ হাজার হেক্টরে এসে ঠেকেছে। আবাদি জমিতে ক্রমেই আবাসন, বাগান, শিল্প-কারখানা, রাস্তা-ঘাট স্থাপনের পাশাপাশি যত্রতত্র পুকুর খননের কারণে দিন দিন আবাদি জমির পরিমাণ কমছে। ভূমি মন্ত্রণালয়ের জাতীয় ভূমি জোনিং প্রকল্পের তথ্য অনুযায়ী, অপরিকল্পিত আবাসন, শিল্প-কারখানা, রাস্তাসহ অন্যান্য স্থাপনা নির্মাণের কারণে প্রতিদিন কমে যাচ্ছে প্রায় ২২০ হেক্টর কৃষিজমি। অপরিকল্পিত ব্যবহার অব্যাহত থাকলে মাথাপিছু আবাদি জমি ২০৫০ সালে ৬ দশমিক ২০ শতাংশে নেমে আসবে। রাজশাহীর তানোর, গোদাগাড়ী, চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল, নওগাঁর পোরশা, নিয়ামতপুর উপজেলার জায়গাগুলো অনেক উঁচু। এছাড়াও জমির দাম কম হওয়ায় বিশেষ করে নদী ভাঙ্গন এলাকার মানুষ এখন ওই এলাকায় এসে ফসলের জমি কিনে অপরিকল্পিতভাবে বাড়ি নির্মাণ করছে। এছাড়াও ওই সব এলাকায় কৃষকরা ধানের পাশাপাশি আম বাগানে ঝুঁকেছে।

রাজশাহী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক দেব দুলাল ঢালি জানান, প্রতি বছরই বেশকিছু পরিমাণ আবাদি জমিতে ঘর-বাড়ি নির্মাণ, ইটভাঁটি, রাস্তাঘাটসহ নানা কারণে অনাবাদির তালিকায় চলে যাচ্ছে। জনসংখ্যা বৃদ্ধির জন্য এ সংখ্যা আরও প্রকট হয়েছে।

করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
৩১৫০৭৬৮৫
আক্রান্ত
৩৫২১৭৮
সুস্থ
২৩১৩৪৭১২
সুস্থ
২৬০৭৯০
শীর্ষ সংবাদ:
প্রতিরোধের প্রস্তুতি ॥ শীতে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের আশঙ্কা         বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় বাস্তবসম্মত রোডম্যাপ চাই         সাউদিয়ার টিকেট নিয়ে হাহাকার- ক্ষোভ প্রবাসীদের         স্বাস্থ্যখাত যেন লুটপাটের সোনার খনি         নেদারল্যান্ডস-নিউজিল্যান্ড থেকে পেঁয়াজ আসছে         করোনায় দেশে মৃত্যু পাঁচ হাজার ছাড়িয়েছে         জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দিনরাত কাজ করছেন প্রধানমন্ত্রী         ৮ বিভাগে ৭১ উপজেলায় প্রশিক্ষণ কেন্দ্র স্থাপন করা হচ্ছে         শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার আগে এইচএসসি পরীক্ষা হচ্ছে না         কুকুর নিধন কিংবা অপসারণ করবে না উত্তর সিটি         জলবায়ু পরিবর্তনে ঠিক থাকছে না শরতের আবহাওয়া         স্ত্রীর কথায় হাতি কিনলেন দরিদ্র কৃষক         অবশেষে কালুরঘাটে সড়ক-রেল সেতু নির্মাণ হচ্ছে         জার্মানির সঙ্গে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বৃদ্ধিতে কাজ করতে হবে : স্পিকার         অর্থনীতি সচল রেখে করোনার দ্বিতীয় ওয়েভ মোকাবিলা করা হবে : মন্ত্রিপরিষদ সচিব         ৫৪ হাজার রোহিঙ্গাকে ফেরত দিতে চায় সৌদি : পররাষ্ট্রমন্ত্রী         শ্রমিকের বেতন নিয়ে তালবাহানা মানা হবে না : সাকি         আইন অনুযায়ী নুরের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         বাড়ির পাশ দিয়ে রাস্তা নেয়ার জন্য বাড়তি সড়ক না নির্মাণের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর         কারা ডিআইজি বজলুরের সম্পতি ক্রোক ও ব্যাংক হিসাব ফ্রিজের নির্দেশ