বৃহস্পতিবার ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০২ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

ঘৃণার বদলে সহযোগিতা

সাগর কোড়াইয়া

জীবনের শুদ্ধ গতিপথ থেকে বিচ্ছিন্ন হওয়ার জন্য মাদকের ছোবল যে কারও জন্য ভয়াবহ হতে পারে। অনেক সময় পিতা-মাতার অবহেলা অথবা সন্তানের নিজের অজ্ঞতার জন্য সন্তানের অনাগত ভবিষ্যতটাতে ধ্বংসের করুণ দৃশ্য প্রতিফলিত হয়। সন্তানকে নিয়ে পিতা-মাতার যে সাজানো বাগান, তাতে মাদকের তীব্র আঘাত জীবনটাকে রুগ্ণ, রুক্ষ, শুষ্ক ও জরাজীর্ণতায় পূর্ণ করতে কোন কার্পণ্যবোধ করে না। সময় যখন ভালর দিকে অগ্রসরমান, তখন মাদকের তা-বলীলায় জড়িত হয়ে বহু সন্তানের সম্ভাবনাময় জীবনে খেলে যায় প্রলয়। অনেক সন্তান মাদকগ্রহণের ফলে কেমন যেন ছন্নছাড়া, হতাশা-নিরাশায় ও আবেগপ্রবণ হয়ে জীবনযাপন করে। তাদের মধ্যে দেখা যায় একটা অশান্তি ও অস্থিরতার ভাব। কোন কিছুতেই তারা সন্তুষ্ট হতে পারে না। এই আধুনিকতার যুগে মাদকের সহজলভ্যতায় সন্তানকে অনেক সময় শুদ্ধতার পথে ফিরিয়ে আনা অসম্ভব হয়ে উঠে। আবার সন্তান মাদকের আক্রোশ থেকে মুক্ত হতে চাইলেও দেখা যায় পিতা-মাতা, পরিবার, সমাজ তথা দেশের সামগ্রিক ব্যবস্থা সন্তানকে সম্ভাবনায় ফিরিয়ে আনতে তৎপর নয়।

সন্তানকে মাদকের করাল গ্রাস থেকে উদ্ধারের জন্য পিতা-মাতার ভূমিকা সবচেয়ে বেশি। সন্তানকে শুধু আদর-যতœ, ভালবাসা দিয়ে মানুষ করা নয়, সুশিক্ষায় শিক্ষিত করাই হয়ে উঠতে পারে মাদকের পথ থেকে সন্তানকে ফিরিয়ে আনার কৌশল। সন্তানরা যেন পিতা-মাতার প্রতি সম্মান, মর্যাদা ও ভক্তি দেখায় এবং তাদের প্রতি অনুগত থাকে; সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। পারিবারিক, সামাজিক, নৈতিক ও ধর্মীয় অনুশাসনে সুশৃঙ্খল জীবনযাপনে মাদকাসক্ত সন্তান যেন অভ্যস্ত হয়। পিতা-মাতা বা আত্মীয়-স্বজনরা যদি বুঝতে পারে সন্তান মাদকের দিকে ধাপিত হচ্ছে তাহলে অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে সন্তান কি করছে, কোথায় যাচ্ছে, কার সঙ্গে মিশছে কি তাদের স্বপ্ন বা পরিকল্পনা। পরিবারে সন্তানদের সময় দেয়া, তাদের সঙ্গে আন্তরিকভাবে মেশা, মনের কথা শোনা, তাদের ভাল-মন্দ, জীবনের চাহিদা এ সবের প্রতি পিতা-মাতার যথেষ্ট যতœশীল আচরণই সন্তানকে মাদকের পথ থেকে মুক্ত করতে পারে। সন্তানরা যেন হতাশায় না ভোগে সে জন্য তাদের শিক্ষার পাশাপাশি শুদ্ধ চিত্তবিনোদন ও সুপ্ত প্রতিভা বিকাশে পিতা-মাতাকে এগিয়ে আসতে হবে। অনেক সময় মাদকাসক্ত সন্তানকে পরিবার তথা সমাজ ভালভাবে গ্রহণ করতে পারে না। এক্ষেত্রে অনেক সন্তান মাদকাসক্ত অবস্থা থেকে সুস্থ হওয়ার বিপরীতে আরও অসুস্থ হয়ে পড়ে। সন্তানকে অবশ্যই মাদকাসক্ত অবস্থা থেকে মুক্ত হওয়ার সাহস যোগাতে হবে। সন্তান যেন কখনও বুঝতে না পারে যে, সবাই তাকে ঘৃণা করে। বরং সন্তান যেন বোঝে যে, মাদকাসক্ত হওয়া সত্ত্বেও সবাই তাকে ভালবাসে।

রাজশাহী থেকে

শীর্ষ সংবাদ:
গণমুখী প্রশাসন ॥ স্বাধীনতার ৫০ বছরে বড় অর্জন         ছাত্রদের কাজ লেখাপড়া, রাস্তায় নেমে যান ভাংচুর নয়         উন্নয়নে পাকিস্তানকে পেছনে ফেলেছে বাংলাদেশ         ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নেতৃত্বের ভূমিকায় থাকবে         ১১ খাতে বিপুল বিনিয়োগ আসার সম্ভাবনা         ঐতিহাসিক পার্বত্য শান্তি চুক্তিতে বদলে গেছে পাহাড়         রামপুরায় ছাত্র বিক্ষোভ, মতিঝিলে গাড়ি ভাংচুর         দেশের প্রথম বর্জ্য বিদ্যুত কেন্দ্র অবশেষে বাস্তবায়ন হচ্ছে         বাল্যবিয়ে রোধে কাজীদের সচেতন করতে প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে         হত্যা মিশনে ব্যবহৃত গুলি-অস্ত্র উদ্ধার         শ্রদ্ধা ভালবাসায় জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলামের চিরবিদায়         সুপ্রীমকোর্টে শারীরিক উপস্থিতিতে বিচার কাজ শুরু         খালেদা জিয়াকে স্তব্ধ করে দিতে চায় সরকার ॥ ফখরুল         মুক্তিপণের টাকা আদায় হচ্ছিল মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে         সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে লাল সবুজের মহোৎসবে মুখরিত হাতিরঝিল         ৯০ কার্যদিবসে সম্প্রীতি বিনষ্টের মামলা নিষ্পত্তি করতে হবে         এইচএসসি ও আলিম পরীক্ষা উপলক্ষে যে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে ডিএমপি         আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম কমলে ব্যবস্থা নেবো : অর্থমন্ত্রী         হৃদরোগ ঝুঁকি হ্রাসে সরকারের যুগান্তকারী পদক্ষেপ         করোনা : গত ২৪ ঘন্টায় আরও ২ জনের মৃত্যু