বৃহস্পতিবার ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৬ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

সরকারী ক্রয়ে স্বচ্ছতা আনতে ই-জিপি সচেতনতা কার্যক্রম শুরু

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ সরকারী ক্রয়ে স্বচ্ছতা ও জাবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে ইলেকট্রনিক গবর্নমেন্ট প্রকিউরমেন্ট (ই-জিপি) সচেতনতা কার্যক্রম শুরু হয়েছে। পর্যায়ক্রমে ৬৪টি জেলায় এ কার্যক্রম করা হবে। এর মধ্য দিয়ে ই-জিপির সুষ্ঠু বাস্তবায়ন ও প্রসারের জন্য সংশ্লিষ্ট সকলের সচেতনতা বৃদ্ধি পাবে বলে আশা করা হচ্ছে। এ লক্ষ্যে জেলা পর্যায়ে একদিনের কর্মশালা মঙ্গলবার থেকে শুরু হয়েছে। প্রথম এ কর্মশালাটি অনুষ্ঠিত হয় টাঙ্গাইল এলজিইডি সম্মেলন কক্ষে।

পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের আইএমই বিভাগের অধীন সেন্ট্রাল প্রকিউরমেন্ট টেকনিক্যাল ইউনিট (সিপিটিইউ) বিশ্বব্যাংকের সহায়তায় পাবলিক প্রকিউরমেন্ট রিফর্ম প্রজেক্ট-২ (পিপিআরপি-২)-এর আওতায় দেশে ই-জিপি বাস্তবায়ন করছে। এর অংশ হিসেবে বাংলাদেশ সেন্টার ফর কমিউনিকেশন প্রোগ্রামসের সহায়তায় দেশের ৬৪টি জেলায় পর্যায়ক্রমে ই-জিপি সচেতনতামূলক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। প্রতিটি কর্মশালায় জেলা পর্যায়ে সরকারী ক্রয়কারী সংস্থার প্রতিনিধি, টেন্ডারার ও মিডিয়ার প্রতিনিধিবৃন্দ এসব কর্মশালায় অংশগ্রহণ করবেন। সিপিটিইউ’র মনোনীত একজন রিসোর্স পার্সন এসব কর্মশালায় ই-জিপি বিষয়ক নানাবিধ প্রশ্নের উত্তর ও ব্যাখ্যা দেবেন।

সূত্র জানায়, সরকারী ক্রয় কার্যক্রমে দক্ষতা, স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা, সমআচরণ ও সুষ্ঠু প্রতিযোগিতা নিশ্চিতকল্পে এবং জনগণের অর্থের সর্বোত্তম ব্যবহার করার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১১ সালের ২ জুন ন্যাশনাল ইলেকট্রনিক গর্বামেন্ট প্রকিউরমেন্ট (ই-জিপি) ওয়েব পোর্টাল উদ্বোধন করেন। এর মাধ্যমে সরকারী ক্রয়ে ই-টেন্ডারিং ব্যবস্থা চালু হয়। ওই বছরের ২৫ জানুয়ারি জাতীয় ই-জিপি গাইডলাইন জারি করা হয়। পিপিআরপি-২ প্রকল্পের আওতায় প্রাথমিক পর্যায়ে সিপিটিইউ চারটি টার্গেট এজেন্সিতে (স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতর, সড়ক ও জনপথ অধিদফতর, বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড এবং বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড ) পাইলট ভিত্তিতে ই-জিপি ব্যবস্থা প্রবর্তন করা হয়।

পরবর্তীতে অন্যান্য সংস্থায় ই-জিপি পোর্টালের মাধ্যমে ই-জিপি কার্যক্রম চালু করা হয়। সরকারী ক্রয় কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে সম্পাদনের জন্য গত ২৬ জুলাই পর্যন্ত চারটি টার্গেট এজেন্সিসহ ২৪টি মন্ত্রণালয়ের ৯৮টি সংস্থার মোট ১ হাজার ৯৪৯টি ক্রয়কারী ই-জিপি সিস্টেমে অন্তর্ভুক্ত হয়ে ক্রয়কার্য পরিচালনা করছে। ইতোমধ্যে এই সিস্টেমের মাধ্যমে মোট ২৬ হাজার ৭৮৭টি ই-টেন্ডার/প্রস্তাব আহ্বান করা হয়েছে। ই-টেন্ডারিংয়ের জন্য মোট ১৫ হাজার ৬৪৯ জন টেন্ডারার ই-জিপি সিস্টেমে নিবন্ধিত হয়েছে। ই-জিপি সিস্টেমে দরপত্র জামানত, কার্য সম্পাদন, জামানতসহ রেজিস্ট্রেশন ফি, নবায়ন ফি ও টেন্ডার ডকুমেন্ট ফি গ্রহণের জন্য ৩৯টি ব্যাংকের সঙ্গে এমওইউ স্বাক্ষর করা হয়েছে এবং মোট ১ হাজার ৭১৫টি শাখার মাধ্যমে এ সেবা প্রদান করা হচ্ছে।

শীর্ষ সংবাদ:
রেকর্ড দামে ১৭ পণ্য ॥ নাভিশ্বাস নিম্ন ও মধ্য আয়ের মানুষের         জলবায়ু ক্ষতিগ্রস্ত দেশকে প্রতিশ্রুত অর্থ দিন         দিনে ফল-সবজি বিক্রেতা, রাতে দুর্ধর্ষ ডাকাত         ইভিএমকে চমৎকার মেশিন বললেন প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা         রমনা বটমূলে হামলার ফাঁসির আসামি গ্রেফতার         চতুর্থ দিনে নাটকীয়তার অপেক্ষা মিরপুরে         পরিবেশ রক্ষা করেই প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে হবে         মধ্য জ্যৈষ্ঠেই এবার দেশে ঢুকবে বর্ষার বাতাস         সততা ও দক্ষতার মূল্যায়ন, অসৎদের শাস্তির ব্যবস্থা         সিলেটে বন্যার উন্নতি ॥ এখন প্রধান সমস্যা ময়লা আবর্জনা         গণতন্ত্র ও ভোটের অধিকার আদায়ে সবাই জেগে উঠুন         টেক্সাসে স্কুলে বন্দুকধারীর গুলি, ১৯ শিশুসহ নিহত ২১         অসাম্প্রদায়িক স্বদেশ গড়ার প্রত্যয়ে নজরুলজয়ন্তী উদ্যাপিত         শহর ছাপিয়ে প্রান্তিক পর্যায়ে ছড়াবে সংস্কৃতির আলো         ‘পর্যাপ্ত সবুজ ও বৃষ্টির পানি সংরক্ষণের ব্যবস্থা রেখেই প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে হবে’         প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টা : ফাঁসির আসামি গ্রেফতার         বাংলাদেশ ও সার্বিয়ার মধ্যে দু’টি সমঝোতা স্মারক সই         লক্ষ্য সাশ্রয়ী মূলে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুত ও জ্বালানি সরবরাহ ॥ নসরুল হামিদ         জাতীয় সংসদের জন্য ২০২২-২০২৩ অর্থবছরের বাজেট অনুমোদন         দিনাজপুরে ঘুষের ৮০ হাজার টাকাসহ কর্মকর্তা আটক