ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ০৮ অক্টোবর ২০২২, ২২ আশ্বিন ১৪২৯

হত্যা মামলার আসামীকে কুপিয়ে হত্যা

নিজস্ব সংবাদদাতা, মাদারীপুর

প্রকাশিত: ১৫:১১, ৭ আগস্ট ২০২২

হত্যা মামলার আসামীকে কুপিয়ে হত্যা

নিহত শাহীন

মাদারীপুরে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে একটি হত্যা মামলার আসামীকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। রবিবার সকালে রাজৈর উপজেলার চৌরাশি গ্রামে একটি বাগান থেকে শাহীনের রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত শাহীন শেখ (২৫) বাজিতপুর গ্রামের মোস্তফা শেখের ছেলে। সে ওই এলাকার মুরগি ব্যবসায়ী সোহেল হাওলাদার হত্যা মামলার আসামী ছিলো। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ, স্বজন ও স্থানীয়রা জানান, বাড়ির লোকজন অন্যত্র বেড়াতে যাওয়ায় শনিবার রাতের খাবার খেয়ে ঘরে একা ঘুমিয়ে পড়ে শাহীন শেখ। পরে রবিবার সকালে রাজৈর উপজেলার চৌরাশি গ্রামের একটি বাগান থেকে তার রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করা হয়। পূর্বশত্রুতার কারণে কিছুদিন ধরে শাহীনকে হত্যার ঘোষণা দিয়ে আসছিল প্রতিপক্ষের লোকজন। এরই জের ধরে শনিবার রাতে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে কুপিয়ে ও গলাকেটে হত্যা করা হয় শাহীনকে। নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মাদারীপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার পর পুরো এলাকাজুড়ে থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। এই ঘটনায় দোষীদের শাস্তি দাবী করেছে স্বজন ও এলাকাবাসী। 

স্থানীয় অন্য একটি সূত্র জানায়, ওই এলাকায় আধিপত্য বিস্তারের ঘটনা দীর্ঘদিনের। একপক্ষ আরেক পক্ষকে ফাঁসাতে প্রায়ই এমন ঘটনার সৃষ্টি করে। নিহত শাহীনের চাচাতো ভাই মো. জব্বার জানান, “পূর্ব পরিকল্পিতভাবে এই ঘটনা ঘটানো হয়। এর কঠিন বিচার চাই।”

মাদারীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার চাইলাউ মারমা জানান, “প্রতিপক্ষের লোকজন, নাকি হত্যা মামলা থেকে বাঁচতে নিজেরাই এ ঘটনা ঘটিয়েছে কিনা বিষয়টি খতিয়ে দেখছে পুলিশ। এরই মধ্যে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মাইনউদ্দিন হাওলাদার (৪৫) নামে একজনকে আটক করা হয়েছে।”


 

টিএস